মুনিম-শান্তর ব্যাটিং তাণ্ডবে আবাহনীর জয়
jugantor
মুনিম-শান্তর ব্যাটিং তাণ্ডবে আবাহনীর জয়

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৪ জুন ২০২১, ১৮:৩২:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

মুনিম শাহরিয়ার ও নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটিং তাণ্ডবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ৪৯ রানের বড় ব্যবধানে হারাল আবাহনী লিমিটেড।

সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ৫২তম ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেই তাণ্ডব চালায় আবাহনী। ৩.১ ওভারে দলীয় ২৭ রানে ফেরেন ওপেনার মোহাম্ম নাঈম শেখ। দ্বিতীয় উইকেটে নাজমুলে হোসেন শান্তকে সঙ্গে নিয়ে ৮৮ রানের জুটি গড়েন ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার। ১২তম ওভারের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে ৪০ বলে ৯টি চার ও তিন ছক্কায় দলীয় সর্বোচ্চ ৭৪ রান করেন মুনিম।

দলীয় ১১৫ রানে ব্যাটিংয়ে নেমেই শূন্য রানে ফেরেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে মাত্র ৩৬ বলে স্কোর বোর্ডে ৬২ রান যোগ করেন শান্ত। ১৫ বলে দুই ছক্কা আর এক বাউন্ডারিতে ২৬ রান করে ফেরেন সৈকত।

এরপর শুরু হয় বৃষ্টি। ১৮.২ ওভারে বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ৪ উইকেটে ১৮১ রান করে আবাহনী। ৪২ বলে ছয় চার ও দুই ছক্কায় ৬৫ রান করে অপরাজিত থাকেন শান্ত। এর আগে শাইন পুকুর ও প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে ১৮৩ রান করেন আবাহনী।

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে জয়ের জন্য ১৩ ওভারে শেখ জামালের টার্গেট দাঁড়ায় ১৪৮ রান। টার্গেট তাড়া করতে নেমে মেহেদী হাসান রানার গতি আর আরাফাত সানির স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ৯ উইকেট হারিয়ে ৯৮ রান তুলতে সক্ষম হয় নুরুল হাসান সোহানের নেতৃত্বাধীন দলটি। আবাহনীর হয়ে রানা তিন আর সানি শিকার করেন দুই উইকেট।

মুনিম-শান্তর ব্যাটিং তাণ্ডবে আবাহনীর জয়

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৪ জুন ২০২১, ০৬:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মুনিম শাহরিয়ার ও নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটিং তাণ্ডবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ৪৯ রানের বড় ব্যবধানে হারাল আবাহনী লিমিটেড। 

সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ৫২তম ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেই তাণ্ডব চালায় আবাহনী।  ৩.১ ওভারে দলীয় ২৭ রানে ফেরেন ওপেনার মোহাম্ম নাঈম শেখ। দ্বিতীয় উইকেটে নাজমুলে হোসেন শান্তকে সঙ্গে নিয়ে ৮৮ রানের জুটি গড়েন ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার। ১২তম ওভারের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে ৪০ বলে ৯টি চার ও তিন ছক্কায় দলীয় সর্বোচ্চ ৭৪ রান করেন মুনিম। 

দলীয় ১১৫ রানে ব্যাটিংয়ে নেমেই শূন্য রানে ফেরেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে মাত্র ৩৬ বলে স্কোর বোর্ডে ৬২ রান যোগ করেন শান্ত। ১৫ বলে দুই ছক্কা আর এক বাউন্ডারিতে ২৬ রান করে ফেরেন সৈকত।  

এরপর শুরু হয় বৃষ্টি। ১৮.২ ওভারে বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ৪ উইকেটে ১৮১ রান করে আবাহনী।  ৪২ বলে  ছয় চার ও দুই ছক্কায় ৬৫ রান করে অপরাজিত থাকেন শান্ত।  এর আগে শাইন পুকুর ও প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে ১৮৩ রান করেন আবাহনী। 

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে জয়ের জন্য ১৩ ওভারে শেখ জামালের টার্গেট দাঁড়ায় ১৪৮ রান। টার্গেট তাড়া করতে নেমে মেহেদী হাসান রানার গতি আর আরাফাত সানির স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ৯ উইকেট হারিয়ে ৯৮ রান তুলতে সক্ষম হয় নুরুল হাসান সোহানের নেতৃত্বাধীন দলটি। আবাহনীর হয়ে রানা তিন আর সানি শিকার করেন দুই উইকেট। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ২০২১