বিরল রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে সানিয়া মির্জা
jugantor
বিরল রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে সানিয়া মির্জা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৫ জুন ২০২১, ১৫:৫৮:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার সব বাধাকে হার মানিয়ে আগামী ২৩ জুলাই পর্দা উঠবে মেগা টুর্নামেন্ট টোকিও অলিম্পিকের।

যেখানে টেনিস ইভেন্টে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন দেশটির টেনিস সেনসেশন সানিয়া মির্জা।

আর টোকিও অলিম্পিকের কোর্টে নামলেই বিরল এক রেকর্ড গড়বেন সানিয়া, যা নেই আর কোনো ভারতীয় টেনিস তারকার।

রেকর্ডটি হচ্ছে— ভারতীয় নারী হিসেবে প্রথমবারের মতো চারটি অলিম্পিকে খেলবেন ছয়টি গ্র্যান্ডস্ল্যামজয়ী সানিয়া মির্জা। এর আগে তিনটি অলিম্পিকে অংশ নিয়েছেন তিনি।

২০১৬ সালের রিও অলিম্পিকে দুর্দান্ত খেলেছিলেন সানিয়া। মিক্সড ডাবলসে রোহন বোপান্নার সঙ্গে জুটি বেঁধে সেমিফাইনালে উঠেছিলেন। অল্পের জন্য পদক হাতছাড়া হয় তার।

এবার অঙ্কিতা রায়নার সঙ্গে জুটি বেঁধে কোর্টে লড়বেন সানিয়া। ২০১৬ সালের চেয়েও ভালো কিছু করার প্রত্যয়ী এ টেনিস সুন্দরীর।

নিজের সেই বিরল রেকর্ড আর পারফরম্যান্সের বিষয়ে সানিয়া মির্জা বলেন, 'আমার ক্যারিয়ারটা দুর্দান্ত দেখছি। সারা বিশ্বে যেখানেই খেলতে যাই, ভারতকেই প্রতিনিধিত্ব করি। কিন্তু অলিম্পিকে খেলাটা গর্বের। সেখানে দেশের প্রতিনিধিত্ব করা যে কোনো খেলোয়াড়ের স্বপ্ন। আমি জানি, এবারের টোকিও অলিম্পিকে খেলতে নামলে আমি হব একমাত্র ভারতীয় নারী, যে সবচেয়ে বেশি অলিম্পিক খেলবে।'

২০১৬ সালের রিও অলিম্পিকের পারফরম্যান্স নিয়ে সানিয়া মির্জা বলেন, 'আমার জীবনের সবচেয়ে খারাপ দিন ছিল সেদিন। পদক জয়ের কাছে গিয়েও ফিরতে হয়েছিল।'

আর কতদিন কোর্টে দেখা যাবে টেনিসের এই ভারতীয় সুন্দরীকে?

সানিয়া বলেন, ‘আমার বছর ৩০ পেরিয়েছে, তার পরেও আমি খেলে যাচ্ছি। কবে অবসর নেব সে ভাবনাও নেই। আমি প্রতিটা দিন ধরে এগিয়ে চলি। ভবিষ্যৎ নিয়ে খুব একটা চিন্তা করি না। নিজের ওপর বিশ্বাস রাখা সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। সেটাই করে যাচ্ছি।’

তথ্যসূত্র: শি দ্য পিপল, নিউজ এইটিন

বিরল রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে সানিয়া মির্জা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৫ জুন ২০২১, ০৩:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার সব বাধাকে হার মানিয়ে আগামী ২৩ জুলাই পর্দা উঠবে মেগা টুর্নামেন্ট টোকিও অলিম্পিকের। 

যেখানে টেনিস ইভেন্টে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন দেশটির টেনিস সেনসেশন সানিয়া মির্জা। 

আর টোকিও অলিম্পিকের কোর্টে নামলেই বিরল এক রেকর্ড গড়বেন সানিয়া, যা নেই আর কোনো ভারতীয় টেনিস তারকার।

রেকর্ডটি হচ্ছে— ভারতীয় নারী হিসেবে প্রথমবারের মতো চারটি অলিম্পিকে খেলবেন ছয়টি গ্র্যান্ডস্ল্যামজয়ী সানিয়া মির্জা। এর আগে তিনটি অলিম্পিকে অংশ নিয়েছেন তিনি। 

২০১৬ সালের রিও অলিম্পিকে দুর্দান্ত খেলেছিলেন সানিয়া। মিক্সড ডাবলসে রোহন বোপান্নার সঙ্গে জুটি বেঁধে সেমিফাইনালে উঠেছিলেন। অল্পের জন্য পদক হাতছাড়া হয় তার। 

এবার অঙ্কিতা রায়নার সঙ্গে জুটি বেঁধে কোর্টে লড়বেন সানিয়া। ২০১৬ সালের চেয়েও ভালো কিছু করার প্রত্যয়ী এ টেনিস সুন্দরীর। 

নিজের সেই বিরল রেকর্ড আর পারফরম্যান্সের বিষয়ে সানিয়া মির্জা বলেন, 'আমার ক্যারিয়ারটা দুর্দান্ত দেখছি। সারা বিশ্বে যেখানেই খেলতে যাই, ভারতকেই প্রতিনিধিত্ব করি। কিন্তু অলিম্পিকে খেলাটা গর্বের। সেখানে দেশের প্রতিনিধিত্ব করা যে কোনো খেলোয়াড়ের স্বপ্ন। আমি জানি, এবারের টোকিও অলিম্পিকে খেলতে নামলে আমি হব একমাত্র ভারতীয় নারী, যে সবচেয়ে বেশি অলিম্পিক খেলবে।' 

২০১৬ সালের রিও অলিম্পিকের পারফরম্যান্স নিয়ে সানিয়া মির্জা বলেন, 'আমার জীবনের সবচেয়ে খারাপ দিন ছিল সেদিন। পদক জয়ের কাছে গিয়েও ফিরতে হয়েছিল।'

আর কতদিন কোর্টে দেখা যাবে টেনিসের এই ভারতীয় সুন্দরীকে?

সানিয়া বলেন, ‘আমার বছর ৩০ পেরিয়েছে, তার পরেও আমি খেলে যাচ্ছি। কবে অবসর নেব সে ভাবনাও নেই। আমি প্রতিটা দিন ধরে এগিয়ে চলি। ভবিষ্যৎ নিয়ে খুব একটা চিন্তা করি না। নিজের ওপর বিশ্বাস রাখা সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। সেটাই করে যাচ্ছি।’

তথ্যসূত্র: শি দ্য পিপল, নিউজ এইটিন
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন