কাশ্মীর লিগ ঠেকাতে বিদেশি ক্রিকেটারদের হুমকি দিচ্ছে ভারত!
jugantor
কাশ্মীর লিগ ঠেকাতে বিদেশি ক্রিকেটারদের হুমকি দিচ্ছে ভারত!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

৩১ জুলাই ২০২১, ১৬:৪৭:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে প্রথমবারের মতো শুরু হতে যাচ্ছে কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেট (কেপিএল)। যেখানে খেলবেন ইংল্যান্ড ও শ্রীলংকার ছয়জন বিদেশি তারকা।

আর সেসব বিদেশি ক্রিকেটারদের নাকি কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগ না খেলার জন্য হুমকি দিচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কয়েকজন কর্মকতা।

বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলে টুইটারে পোস্ট দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফ ও দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান হার্শেল গিবস।

গিবস জানিয়েছেন, কাশ্মীরের লিগে খেলবেন জানানোর পর নানাবিদ হুমকি পাচ্ছেন তিনি।

উল্লেখ্য, আগামী ৬ আগস্ট থেকে কাশ্মীরে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত মুজাফফরাবাদে এ টুর্নামেন্টের বল মাঠে গড়াবে।

এ টুর্নামেন্টে স্থানীয়দের ছাড়াও মাঠ মাতাবেন ক্রিকেটের সাবেক সুপারস্টাররা। তারা হলেন - দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান হার্শেল গিবস, ইংল্যান্ডের তারকা মন্টি প্যানেল, ফিল মাস্টার্ড ও ওয়াইজ শাহ এবং শ্রীলংকার সাবেক অধিনায়ক তিলকারাত্নে দিলশান।

ছয় দল নিয়ে হবে টুর্নামেন্টটি। যেখানে সবগুলো দলের অধিনায়ক পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। একটি দলের অধিনায়কত্ব করবেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। একটির অধিনায়ক বর্তমান পাক দলের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। বাকি চার দলের নেতৃত্ব দেবেন যথাক্রমে - পাক অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক, ফখর জামান, শাদাব খান ও ইমাদ ওয়াসিম।

বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে আঙুল তুলে শনিবার এক টুইটে হার্শেল গিভস লিখেছেন, ‘কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগে ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক বৈরিতার ইস্যু জড়ানো মোটেই উচিত নয়। কিন্তু ভারতীয় বোর্ড বিসিসিআই এমনটা করছে। আমাকে তারা হুমকি দিয়েছে যে, যদি আমি কেপিএলে অংশ নেই তো তারা কখনও আমাকে ভারতে প্রবেশ করতে দেবে না।


কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরাকে গিভস জানিয়েছেন, দ. আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের ডিরেক্টর গ্রায়েম স্মিথকে বার্তা পাঠিয়েছেন মি. শাহ নামে বিসিসিআইয়ের একজন সেক্রেটারি। সেখানে গিভসকে কাশ্মীর লিগ খেলতে নিষেধ করা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার টুইটারে রশিদ লতিফও বিসিসিআইয়ের বিপক্ষে লেখেন।

তিনি লিখেছেন, ‘বিসিসিআই বিভিন্ন ক্রিকেট বোর্ডকে হুমকি দিচ্ছে, তারা যদি সাবেক ক্রিকেটারদের কাশ্মীরে খেলার অনুমতি দেয়, তাহলে তাদের আর ভারতে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। গিবস, দিলশান, প্যানেসারসহ অনেকেই কাশ্মীরের লিগে খেলবেন।’

রশিদ লতিফের অভিযোগকে সত্য বলে মন্তব্য করে কেপিএলের এক প্রতিনিধি বলেছেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ডকে তাদের সাবেক খেলোয়াড়দের আটকানোর কথা বলেছে বিসিসিআই। বোর্ডগুলো বিসিসিআইয়ের চাওয়া মেনেও নিয়েছে। তাই এখন বিদেশি ক্রিকেটারদের বদলে স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিতে হবে।’

গিভস ও রশিদ লতিফের এমন অভিযোগের বিষয়ে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে আলজাজিরাকে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি ভারতীয় বোর্ডের কর্মকর্তারা।


সূত্র: আলজাজিরা

কাশ্মীর লিগ ঠেকাতে বিদেশি ক্রিকেটারদের হুমকি দিচ্ছে ভারত!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
৩১ জুলাই ২০২১, ০৪:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে প্রথমবারের মতো শুরু হতে যাচ্ছে কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেট (কেপিএল)। যেখানে খেলবেন ইংল্যান্ড ও শ্রীলংকার ছয়জন বিদেশি তারকা।

আর সেসব বিদেশি ক্রিকেটারদের নাকি কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগ না খেলার জন্য হুমকি দিচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কয়েকজন কর্মকতা।

বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলে টুইটারে পোস্ট দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফ ও দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান হার্শেল গিবস।

গিবস জানিয়েছেন, কাশ্মীরের লিগে খেলবেন জানানোর পর নানাবিদ হুমকি পাচ্ছেন তিনি।

উল্লেখ্য, আগামী ৬ আগস্ট থেকে  কাশ্মীরে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত মুজাফফরাবাদে এ টুর্নামেন্টের বল মাঠে গড়াবে।

এ টুর্নামেন্টে স্থানীয়দের ছাড়াও মাঠ মাতাবেন ক্রিকেটের সাবেক সুপারস্টাররা। তারা হলেন -  দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান হার্শেল গিবস, ইংল্যান্ডের তারকা মন্টি প্যানেল, ফিল মাস্টার্ড ও ওয়াইজ শাহ এবং শ্রীলংকার সাবেক অধিনায়ক তিলকারাত্নে দিলশান।

ছয় দল নিয়ে হবে টুর্নামেন্টটি। যেখানে সবগুলো দলের অধিনায়ক পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। একটি দলের অধিনায়কত্ব করবেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। একটির অধিনায়ক বর্তমান পাক দলের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। বাকি চার দলের নেতৃত্ব দেবেন যথাক্রমে - পাক অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক, ফখর জামান, শাদাব খান ও ইমাদ ওয়াসিম।

বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে আঙুল তুলে শনিবার এক টুইটে হার্শেল গিভস লিখেছেন, ‘কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগে ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক বৈরিতার ইস্যু জড়ানো মোটেই উচিত নয়। কিন্তু ভারতীয় বোর্ড বিসিসিআই এমনটা করছে। আমাকে তারা হুমকি দিয়েছে যে, যদি আমি কেপিএলে অংশ নেই তো তারা কখনও আমাকে ভারতে প্রবেশ করতে দেবে না।

 

   
কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরাকে গিভস জানিয়েছেন, দ. আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের ডিরেক্টর গ্রায়েম স্মিথকে বার্তা পাঠিয়েছেন মি. শাহ নামে বিসিসিআইয়ের একজন সেক্রেটারি। সেখানে গিভসকে  কাশ্মীর লিগ খেলতে নিষেধ করা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার টুইটারে রশিদ লতিফও বিসিসিআইয়ের বিপক্ষে লেখেন।

তিনি লিখেছেন, ‘বিসিসিআই বিভিন্ন ক্রিকেট বোর্ডকে হুমকি দিচ্ছে, তারা যদি সাবেক ক্রিকেটারদের কাশ্মীরে খেলার অনুমতি দেয়, তাহলে তাদের আর ভারতে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। গিবস, দিলশান, প্যানেসারসহ অনেকেই কাশ্মীরের লিগে খেলবেন।’

 

রশিদ লতিফের অভিযোগকে সত্য বলে মন্তব্য করে কেপিএলের এক প্রতিনিধি বলেছেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ডকে তাদের সাবেক খেলোয়াড়দের আটকানোর কথা বলেছে বিসিসিআই। বোর্ডগুলো বিসিসিআইয়ের চাওয়া মেনেও নিয়েছে। তাই এখন বিদেশি ক্রিকেটারদের বদলে স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিতে হবে।’

গিভস ও রশিদ লতিফের এমন অভিযোগের বিষয়ে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে আলজাজিরাকে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি ভারতীয় বোর্ডের কর্মকর্তারা।   


সূত্র: আলজাজিরা

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন