রশিদের সাফল্যের নেপথ্যে বাবা-মায়ের দোয়া

  স্পোর্টস ডেস্ক, ০৭ মে ২০১৮, ১৩:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

রশিদ খান,

যতদিন যাচ্ছে, ততই পরিণত ও ক্ষুরধার হয়ে উঠছেন রশিদ খান। প্রতিনিয়ত বিস্ময় উপহার দিয়ে চলেছেন তিনি। আফগানিস্তানের জার্সি গায়ে যেমন উজ্জ্বল, তেমনি বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়েও বল হাতে আগুন ঝরাচ্ছেন এ বোলিং বিস্ময়।

গেল দুই বছরে বিশ্বক্রিকেটে উজ্জ্বল নক্ষত্রে পরিণত হয়েছেন রশিদ। প্রতি ম্যাচেই জ্বল জ্বল করে জ্বলছেন। যার আভায় সুশোভিত হচ্ছে দলগুলো।

এবারের আইপিএলেও এর ব্যত্যয় ঘটছে না। হয়ে উঠেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বোলিং আক্রমণের সেরা অস্ত্র। গেল শনিবার ফের এর প্রমাণ দিয়েছেন। তার জাদুকরী বোলিংয়ে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিপক্ষে ৭ উইকেটের জয় পেয়েছে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা।

এদিন মাত্র ২৩ রানের খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন রশিদ। ম্যাচের টার্নিং পয়েন্টে সাজঘরে ফেরত পাঠান ঋষভ পন্থ ও পৃথ্বী শকে। এতে দিল্লির রানের চাকা শ্লথ হয়ে যায়। মেজিক্যাল বোলিংয়ের সুবাদে হাতে ওঠে ম্যাচসেরার পুরস্কার।

আফগান লেগস্পিনার বলেন, দলে অবদান রাখতে পেরে ভালো লাগছে। গেল দুই বছরে ভারতীয়দের ভালোবাসায় মুগ্ধ হয়েছি। তারা যে সমর্থন দিচ্ছেন, তাতে দেশের বাইরে খেলছি বলে মনে হচ্ছে না। এসবই আমাকে আরও ভালো করতে উৎসাহ জোগাচ্ছে। প্রতিটি আফগান আইপিএল দেখে। তাদের মঙ্গল কামনাও কাজে লাগছে। বিশেষ করে আমার বাবা-মায়ের দোয়া।

এখন পর্যন্ত ৯টি ম্যাচ খেলেছে হায়দরাবাদ। সবকটিতেই খেলেছেন রশিদ। ৯ ম্যাচে ঝুলিতে ভরেছেন ১২ উইকেট। ২০১৭ সালে ১৪ ম্যাচে নিয়েছিলেন ১৭ উইকেট। সবার দোয়ায় এবার তা ছাড়িয়ে যেতে পারেন কিনা- এ মুহূর্তের বিশ্বসেরা লেগি তা দেখার।

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter