নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েও বিপাকে কোহলি
jugantor
নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েও বিপাকে কোহলি

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩১:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের এ সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। ভারতীয় এই অধিনায়ক সাম্প্রতিক সময়ে অফ ফর্মে রয়েছেন। যে কারণে তাকে নিয়ে ঘরে-বাইরে সমালোচনা হচ্ছে।

সেই সমালোচনা এড়াতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ভারতীয় দলের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন বিরাট কোহলি।

শুধু তাই নয়, ভারতীয় দলের নেতৃত্ব ছাড়ার পাশাপাশি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর নেতৃত্ব থেকেও সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন কোহলি।

২০১৩ সালে ড্যানিয়েল ভেট্টোরির কাছ থেকে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর (আরসিবি) নেতৃত্ব বুঝে নেন বিরাট কোহলি। চলতি আসরসহ আইপিএলে ৯ বছর ধরে বেঙ্গালুরুর নেতৃত্ব দিচ্ছেন কোহলি।

কোহলির অধিনায়কত্বে ২০১৬ সালে আইপিএলের ফাইনালে উঠেও শেষ পর্যন্ত মোস্তাফিজদের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে হেরে যায় আরসিবি। এরপর টানা তিন আসরে প্লে অফেও উঠতে ব্যর্থ হয় দলটি।

আরসিবির এমন বাজে পারফরম্যান্সের কারণেই বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। শুধু তাই নয়, টুর্নামেন্টের মাঝপথে এখন কেনে নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন কোহলি- এমন প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সকে (কেকেআর) দুটি আইপিএল শিরোপা উপহার দেওয়া সাবেক অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর বলেন, এ সময়ে কোহলির এমন ঘোষণা অবাক করার মতো। টুর্নামেন্ট শেষে কোহলি এমন ঘোষণা দিতে পারত। এখন ঘোষণা দেওয়ায় ক্রিকেটারদের ওপর অহেতুক চাপ পড়ে যায়।

ভারতের বিশ্বকাপজয়ী দলের সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর আরও বলেন, বিরাট কোহলি সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া মোটেও সহজ নয়। তবে আরসিবি এ মুহূর্তে ভালো পজিশনে রয়েছে। কোহলিকে যদি এমন ঘোষণা করতেই হতো তাহলে সে আইপিএল শেষে করতে পারত। ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং ক্রিকেটারদের আবেগে না ভেসে নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে হবে।

নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েও বিপাকে কোহলি

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের এ সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। ভারতীয় এই অধিনায়ক সাম্প্রতিক সময়ে অফ ফর্মে রয়েছেন। যে কারণে তাকে নিয়ে ঘরে-বাইরে সমালোচনা হচ্ছে। 

সেই সমালোচনা এড়াতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ভারতীয় দলের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন বিরাট কোহলি। 

শুধু তাই নয়, ভারতীয় দলের নেতৃত্ব ছাড়ার পাশাপাশি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর নেতৃত্ব থেকেও সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন কোহলি।

২০১৩ সালে ড্যানিয়েল ভেট্টোরির কাছ থেকে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর (আরসিবি) নেতৃত্ব বুঝে নেন বিরাট কোহলি। চলতি আসরসহ আইপিএলে ৯ বছর ধরে বেঙ্গালুরুর নেতৃত্ব দিচ্ছেন কোহলি। 

কোহলির অধিনায়কত্বে ২০১৬ সালে আইপিএলের ফাইনালে উঠেও শেষ পর্যন্ত মোস্তাফিজদের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে হেরে যায় আরসিবি। এরপর টানা তিন আসরে প্লে অফেও উঠতে ব্যর্থ হয় দলটি।

আরসিবির এমন বাজে পারফরম্যান্সের কারণেই বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। শুধু তাই নয়, টুর্নামেন্টের মাঝপথে এখন কেনে নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন কোহলি- এমন প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সকে (কেকেআর) দুটি আইপিএল শিরোপা উপহার দেওয়া সাবেক অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর বলেন, এ সময়ে কোহলির এমন ঘোষণা অবাক করার মতো। টুর্নামেন্ট শেষে কোহলি এমন ঘোষণা দিতে পারত। এখন ঘোষণা দেওয়ায় ক্রিকেটারদের ওপর অহেতুক চাপ পড়ে যায়।

ভারতের বিশ্বকাপজয়ী দলের সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর আরও  বলেন, বিরাট কোহলি সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া মোটেও সহজ নয়। তবে আরসিবি এ মুহূর্তে ভালো পজিশনে রয়েছে। কোহলিকে যদি এমন ঘোষণা করতেই হতো তাহলে সে আইপিএল শেষে করতে পারত। ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং ক্রিকেটারদের আবেগে না ভেসে নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০২১

১৫ অক্টোবর, ২০২১