বাংলাদেশ-পাকিস্তানকে ‘না’ বলা সহজ : উসমান খাজা
jugantor
বাংলাদেশ-পাকিস্তানকে ‘না’ বলা সহজ : উসমান খাজা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৩৮:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলছে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্ব। এরপর একই ভেন্যুতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসর।

কিন্তু ক্রিকেটের এই দুই মেগা ইভেন্টের খবরাখবরও ছাপিয়ে গত কয়েকদিনের আলোচনায় রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিলের বিষয়টি।

বিষয়টি নিয়ে বিশ্বজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। মিশ্র প্রতিক্রিয়াও দেখা যাচ্ছে। বিশ্লেষকদের মধ্যে কেউ কেউ বলছে, হুমকি পেয়ে সিরিজ শুরুর দেড় ঘণ্টা আগে ম্যাচ বাতিল করে কিউইদের দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কেন ক্রিকেট খেলতে হবে!

আবার এটাকে 'ষড়যন্ত্র' হিসেবে দেখছেস কেউ কেউ।

এদিকে দুই দেশ পাক সফর বাতিল করায় অস্ট্রেলিয়াও যখন তাদের আগামী বছরের সফর নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছে তখন এ নিয়ে মুখ খুললেন খোদ অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটার উসমান খাজা।

নিরাপত্তা হুমকির কারণে পাক সফর বাতিলের বিষয়টি খাজার কাছে গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। তার মতে, সর্বোচ্চ নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তানে ক্রিকেট না খেলার যৌক্তিক কোনো কারণ নেই। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানকে না বলা সহজ। কিন্তু ভারতকে কেউ না বলতে পারে না।

খাজা বলেন, ‘তারা কতদিন ধরে একের পর এক টুর্নামেন্ট করে প্রমাণ করছে তাদের দেশটা নিরাপদ। আমি মনে করি পাকিস্তানে খেলতে না যাওয়ার মত কোনো কারণ নেই। আমি মনে করি খেলোয়াড় এবং সংস্থাগুলোর জন্য পাকিস্তানকে না বলাটা খুব সহজ, কারণ এটি পাকিস্তান। একই ব্যাপার বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। কিন্তু ভারত যদি একই জায়গায় থাকে, তাহলে তাদের কেউ না বলবে না।’

এর পেছনে নিরাপত্তা নয়, অর্থটাই বড় কারণ বলে মনে করেন উসমান খাজা।

বলেন,‘ এটা আমরা সবাই জানি যে, টাকায় কথা বলে। এ সফর বাতিল সম্ভবত এরই (টাকা) একটি বড় অংশ। পাকিস্তান বারবার প্রমাণ করছে যে, তাদের দেশ ক্রিকেট খেলার জন্য নিরাপদ। আমি মনে করি, আমাদের না যাওয়ার কোন কারণ নেই।’

১০টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরির মালিক এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘অনেক নিরাপত্তা পাকিস্তানে, কঠিন নিরাপত্তা। সেখানে মানুষের নিরাপদ বোধ করা ছাড়া আর কিছু আমি শুনিনি। পিএসএল (পাকিস্তান সুপার লিগ) চলাকালীন ছেলেদের সঙ্গে কথা বলার সময় নিরাপত্তা বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তারা আমাকে একই কথা বলে যে, পাকিস্তান শতভাগ নিরাপদ।’

উসমান খাজার এমন বক্তব্যে অনেকে সহমত জানালেও কেউ কেউ বলছেন, তার এই পাক প্রীতি থাকতেই পারেন। কারণ তিনি পাকিস্তানে জন্মেছেন। মাতৃভূমির প্রতি আলাদা টান থাকতেই পারে।

পাকিস্তানে জন্মালেও জাতীয়তা বদলে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলেন উসমান খাজা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৪৪ টেস্ট, ৪০ ওয়ানডে ও ৯টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন এরইমধ্যে।

বাংলাদেশ-পাকিস্তানকে ‘না’ বলা সহজ : উসমান খাজা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলছে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্ব। এরপর একই ভেন্যুতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসর।

কিন্তু ক্রিকেটের এই দুই মেগা ইভেন্টের খবরাখবরও ছাপিয়ে গত কয়েকদিনের আলোচনায় রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিলের বিষয়টি।

বিষয়টি নিয়ে বিশ্বজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। মিশ্র প্রতিক্রিয়াও দেখা যাচ্ছে। বিশ্লেষকদের মধ্যে কেউ কেউ বলছে, হুমকি পেয়ে সিরিজ শুরুর দেড় ঘণ্টা আগে ম্যাচ বাতিল করে কিউইদের দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কেন ক্রিকেট খেলতে হবে! 

আবার এটাকে 'ষড়যন্ত্র' হিসেবে দেখছেস কেউ কেউ। 

এদিকে দুই দেশ পাক সফর বাতিল করায় অস্ট্রেলিয়াও যখন তাদের আগামী বছরের সফর নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছে তখন এ নিয়ে মুখ খুললেন খোদ অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটার উসমান খাজা। 

নিরাপত্তা হুমকির কারণে পাক সফর বাতিলের বিষয়টি খাজার কাছে গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। তার মতে, সর্বোচ্চ নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তানে ক্রিকেট না খেলার যৌক্তিক কোনো কারণ নেই। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানকে না বলা সহজ। কিন্তু ভারতকে কেউ না বলতে পারে না। 

খাজা বলেন, ‘তারা কতদিন ধরে একের পর এক টুর্নামেন্ট করে প্রমাণ করছে তাদের দেশটা নিরাপদ। আমি মনে করি পাকিস্তানে খেলতে না যাওয়ার মত কোনো কারণ নেই। আমি মনে করি খেলোয়াড় এবং সংস্থাগুলোর জন্য পাকিস্তানকে না বলাটা খুব সহজ, কারণ এটি পাকিস্তান। একই ব্যাপার বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। কিন্তু ভারত যদি একই জায়গায় থাকে, তাহলে তাদের কেউ না বলবে না।’ 

এর পেছনে নিরাপত্তা নয়, অর্থটাই বড় কারণ বলে মনে করেন উসমান খাজা। 

বলেন,‘ এটা আমরা সবাই জানি যে, টাকায় কথা বলে। এ সফর বাতিল সম্ভবত এরই (টাকা) একটি বড় অংশ। পাকিস্তান বারবার প্রমাণ করছে যে, তাদের দেশ ক্রিকেট খেলার জন্য নিরাপদ। আমি মনে করি, আমাদের না যাওয়ার কোন কারণ নেই।’

১০টি আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরির মালিক এই ব্যাটসম্যান  বলেন, ‘অনেক নিরাপত্তা পাকিস্তানে, কঠিন নিরাপত্তা। সেখানে মানুষের নিরাপদ বোধ করা ছাড়া আর কিছু আমি শুনিনি। পিএসএল (পাকিস্তান সুপার লিগ) চলাকালীন ছেলেদের সঙ্গে কথা বলার সময় নিরাপত্তা বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তারা আমাকে একই কথা বলে যে, পাকিস্তান শতভাগ নিরাপদ।’

উসমান খাজার এমন বক্তব্যে অনেকে সহমত জানালেও কেউ কেউ বলছেন, তার এই পাক প্রীতি থাকতেই পারেন। কারণ তিনি পাকিস্তানে জন্মেছেন। মাতৃভূমির প্রতি আলাদা টান থাকতেই পারে। 

পাকিস্তানে জন্মালেও জাতীয়তা বদলে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলেন উসমান খাজা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৪৪ টেস্ট, ৪০ ওয়ানডে ও ৯টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন এরইমধ্যে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন