৬ গোলের নাটকীয় ম্যাচে পয়েন্ট হারাল লিভারপুল (ভিডিও)
jugantor
৬ গোলের নাটকীয় ম্যাচে পয়েন্ট হারাল লিভারপুল (ভিডিও)

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৭:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইপিএলে) শীর্ষস্থানের দৌড়ে পাল্লা দিচ্ছে চেলসি ও লিভারপুল। দুদলের পয়েন্ট, গোল ও গোল ব্যবধান এক— এমনকি প্রতিটি রাউন্ডে দুদলের স্কোরলাইনও এক ছিল।

তবে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে ঘরের মাঠে চেলসি হেরে যাওয়ায় শীর্ষে ওঠার সুযোগ এসে যায় লিভারপুলের কাছে। সেই লক্ষ্যে মাঠে নেমেও ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে জয় পাননি অলরেডরা। ৩-৩ গোলে ড্র করেছে মোহামেদ সালাহর দল।

পয়েন্ট হারালেও শীর্ষে উঠতে সক্ষম হয়েছে লিভারপুল। ৬ গোলের গোটা ম্যাচই ছিল নাটকীয়তা আর রোমাঞ্চে ঠাসা।

ব্রেন্টফোর্ড কমিউনিটি স্টেডিয়ামে শনিবার রাতে ম্যাচের শুরু থেকে দাপট দেখিয়েছে লিভারপুল। কিন্তু ধারালো আক্রমণের দিক থেকে এগিয়ে থাকবে ব্রেন্টফোর্ডই।

ম্যাচে ৬৭ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের জন্য ১৬টি শট নেয় লিভারপুল, যার ৬টি লক্ষ্যে। নবাগত ব্রেন্টফোর্ডের ১২ শটের ৪টি লক্ষ্যে ছিল।

শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টাআক্রমণে শুরুতেই জমে ওঠে ম্যাচ। প্রথম ১০ মিনিটে গোল হতে পারত দুটি। দুদলই বেঁচে যায় রক্ষণের দৃঢ়তায়।

সপ্তম মিনিটে দিয়েগো জটার থ্রু বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে এগিয়ে আসা গোলরক্ষকের দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে বল পাঠান মোহামেদ সালাহ। ডাইভ দিয়ে শেষ মুহূর্তে গোললাইন থেকে বল ফেরান ব্রেন্টফোর্ডের ডিফেন্ডার ক্রিস্তোফের আয়ের।

তিন মিনিট পর ডি-বক্সে ঢুকে চিপ শটে আলিসনকে ফাঁকি দেন স্বাগতিক ফরোয়ার্ড ব্রায়ান এমবিউমো। কিন্তু গোললাইন থেকে ফেরান লিভারপুল ডিফেন্ডার জোয়েল মাতিপ।

২৭তম মিনিটে লিড নেয় ব্রেন্টফোর্ড। ডান দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বলে ব্যাকহিল ফ্লিক করেন ইভান টনি। দূরের পোস্টে বাঁ পায়ের টোকায় জাল খুঁজে নেন অরক্ষিত ইথান পিনক।

গা ঝাড়া দিয়ে ওঠা লিভারপুল ৪ মিনিট পরই ম্যাচে ফেরে। ডান প্রান্ত থেকে আসা হেন্ডারসনের ক্রসে দুর্দান্ত হেডে সমতা আনেন দিয়েগো জোতা।

১-১ স্কোরলাইনে বিরতিতে যায় দুদল।

দ্বিতীয়ার্ধে নেমে ৫৪ মিনিটে লিভারপুলকে লিড এনে দেন মিসরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহ। এর ৯ মিনিট পরই স্কোরলাইন ২-২ করেন ভিটালি জ্যানেট।

৬৭ মিনিটে লিভারপুলকে দ্বিতীয়বার এগিয়ে দেন কার্টিস জোন্স। গোল করার পরই এই তরুণকে উঠিয়ে নেন কোচ ইয়ুগ্লেন ক্লপ। বদলিতে নামেন ফর্ম হারিয়ে খোঁজা ব্রাজিলিয়ান তারকা রবার্তো ফিরমিনো।

৮২ মিনিটে ব্রেন্টফোর্ডকে আবার সমতায় ফেরান ইয়োন ভিসা। ৪ মিনিট পর লিভারপুলের জালে বল জড়িয়ে দেন টনি। কিন্তু অফসাইডের কারণে সেটি আর গোলের মর্যাদা পায়নি।

ফলে ৩-৩ গোলে ড্র নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়ে লিভারপুল।

আসরে দ্বিতীয়বার পয়েন্ট হারানো লিভারপুল ৬ ম্যাচে চার জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে।

অন্য ম্যাচে চেলসিকে ১-০ গোলে হারানো ম্যানচেস্টার সিটি ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে। সমান পয়েন্ট নিয়ে তিনে চেলসি।

অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ১-০ গোলে হারা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও এভারটনেরও ১৩ পয়েন্ট করে।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন—

৬ গোলের নাটকীয় ম্যাচে পয়েন্ট হারাল লিভারপুল (ভিডিও)

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইপিএলে) শীর্ষস্থানের দৌড়ে পাল্লা দিচ্ছে চেলসি ও লিভারপুল। দুদলের পয়েন্ট, গোল ও গোল ব্যবধান এক— এমনকি প্রতিটি রাউন্ডে দুদলের স্কোরলাইনও এক ছিল। 

তবে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে ঘরের মাঠে চেলসি হেরে যাওয়ায় শীর্ষে ওঠার সুযোগ এসে যায় লিভারপুলের কাছে। সেই লক্ষ্যে মাঠে নেমেও ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে জয় পাননি অলরেডরা। ৩-৩ গোলে ড্র করেছে মোহামেদ সালাহর দল।

পয়েন্ট হারালেও শীর্ষে উঠতে সক্ষম হয়েছে লিভারপুল। ৬ গোলের গোটা ম্যাচই ছিল নাটকীয়তা আর রোমাঞ্চে ঠাসা। 

ব্রেন্টফোর্ড কমিউনিটি স্টেডিয়ামে শনিবার রাতে ম্যাচের শুরু থেকে দাপট দেখিয়েছে লিভারপুল। কিন্তু ধারালো আক্রমণের দিক থেকে এগিয়ে থাকবে ব্রেন্টফোর্ডই।

ম্যাচে ৬৭ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের জন্য ১৬টি শট নেয় লিভারপুল, যার ৬টি লক্ষ্যে। নবাগত ব্রেন্টফোর্ডের ১২ শটের ৪টি লক্ষ্যে ছিল।

শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টাআক্রমণে শুরুতেই জমে ওঠে ম্যাচ। প্রথম ১০ মিনিটে গোল হতে পারত দুটি। দুদলই বেঁচে যায় রক্ষণের দৃঢ়তায়।

সপ্তম মিনিটে দিয়েগো জটার থ্রু বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে এগিয়ে আসা গোলরক্ষকের দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে বল পাঠান মোহামেদ সালাহ। ডাইভ দিয়ে শেষ মুহূর্তে গোললাইন থেকে বল ফেরান ব্রেন্টফোর্ডের ডিফেন্ডার ক্রিস্তোফের আয়ের।

তিন মিনিট পর ডি-বক্সে ঢুকে চিপ শটে আলিসনকে ফাঁকি দেন স্বাগতিক ফরোয়ার্ড ব্রায়ান এমবিউমো। কিন্তু গোললাইন থেকে ফেরান লিভারপুল ডিফেন্ডার জোয়েল মাতিপ।

২৭তম মিনিটে লিড নেয় ব্রেন্টফোর্ড। ডান দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বলে ব্যাকহিল ফ্লিক করেন ইভান টনি। দূরের পোস্টে বাঁ পায়ের টোকায় জাল খুঁজে নেন অরক্ষিত ইথান পিনক।

গা ঝাড়া দিয়ে ওঠা লিভারপুল ৪ মিনিট পরই ম্যাচে ফেরে। ডান প্রান্ত থেকে আসা হেন্ডারসনের ক্রসে দুর্দান্ত হেডে সমতা আনেন দিয়েগো জোতা।

১-১ স্কোরলাইনে বিরতিতে যায় দুদল। 

দ্বিতীয়ার্ধে নেমে ৫৪ মিনিটে লিভারপুলকে লিড এনে দেন মিসরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহ। এর ৯ মিনিট পরই স্কোরলাইন ২-২ করেন ভিটালি জ্যানেট। 

৬৭ মিনিটে লিভারপুলকে দ্বিতীয়বার এগিয়ে দেন কার্টিস জোন্স। গোল করার পরই এই তরুণকে উঠিয়ে নেন কোচ ইয়ুগ্লেন ক্লপ। বদলিতে নামেন ফর্ম হারিয়ে খোঁজা ব্রাজিলিয়ান তারকা রবার্তো ফিরমিনো।

৮২ মিনিটে ব্রেন্টফোর্ডকে আবার সমতায় ফেরান ইয়োন ভিসা। ৪ মিনিট পর লিভারপুলের জালে বল জড়িয়ে দেন টনি। কিন্তু অফসাইডের কারণে সেটি আর গোলের মর্যাদা পায়নি।

ফলে ৩-৩ গোলে ড্র নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়ে লিভারপুল।

আসরে দ্বিতীয়বার পয়েন্ট হারানো লিভারপুল ৬ ম্যাচে চার জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে।

অন্য ম্যাচে চেলসিকে ১-০ গোলে হারানো ম্যানচেস্টার সিটি ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে। সমান পয়েন্ট নিয়ে তিনে চেলসি।

অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ১-০ গোলে হারা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও এভারটনেরও ১৩ পয়েন্ট করে।

ম্যাচ হাইলাইটস দেখুন—
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন