মেসিকে ছুঁলেন ছেত্রী, সাফ জিতল ভারত
jugantor
মেসিকে ছুঁলেন ছেত্রী, সাফ জিতল ভারত

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ২৩:১৭:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

অঝোর ধারায় বৃষ্টির ভেতরেই মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে অনুষ্ঠিত হয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ খ্যাত সাফ ফুটবলের ফাইনাল।

ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার মুকুট পরতে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই হয়েছে ভারত ও নেপালের মধ্যে।

আর সেই লড়াই ফুটবলের কিংবদন্তি পেলেকে ছাড়িয়ে যাওয়া ভারত দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী ত্রাতা হয়ে উঠেলেন।

তার নৈপুণ্যে ৩ -০ গোলে নেপালকে হারিয়ে ৮ম বারের মতো সাফের শিরোপা জিতল ভারত।

দুই গোলের মধ্যে একটি করেছেন ছেত্রী।

৪৮ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে মানবীর সিংয়ের ক্রসে দুর্দান্ত হেডে লিড এনে দেন ছেত্রী। সেই গোলের উল্লাসে মাততে না মাততেই ফের গোল। ৫০তম ডানপ্রান্ত থেকেই স্কয়ার পাসে নেপালের ডি-বক্সে বল পান সুরেশ সিং। আড়াআড়ি শটে গোলরক্ষক কিরণ লিম্বুকে পরাস্ত করেন।

২-০ তে এগিয়ে যায় ভারত ৪ মিনিটের মধ্যেই। দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে নেপাল আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি।

বেশ কয়েকবার আক্রমণে উঠেও ভারতের গোলমুখ খুলতে পারেনি নেপালের ফরোয়ার্ডরা। নেপালেরে একটি জোরালো আক্রমণ ক্রসবারে লেগে ফেরত আসে।

উল্টো যোগ করা সময়েনেপালের কফিনে শেষ পেরেকটা ঠোকেন সাহাল আব্দুল সামাদ।স্কোরলাইন ৩-০ করেন।

এদিকে ফাইনালে গোল করে ফুটবলের আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসিকে ছুঁয়ে ফেলেছেন সুনীল ছেত্রী।

আগের ম্যাচে স্বাগতিক মালদ্বীপের বিপক্ষে জোড়া গোল করে ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলেকে অতিক্রম করেন। আজ ফাইনালে এক গোল করে মেসির জাতীয় দলের হয়ে ৮০ গোলের কীর্তি স্পর্শ করেছেন ছেত্রী।

সুনীল ছেত্রী গোল পেতে পারতেন প্রথমার্ধের শেষ দিকেই। ৪০ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে পাওয়া ক্রস অরক্ষিত গোল পোস্টের সামনে উড়ে আসে সুনীল ছেত্রীর কাছে। বলে মাথা ছোঁয়ালে তা পোস্টের উপর দিয়ে চলে যায়।

যে আক্ষেপ নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করলেও পরে গোল পেয়ে তা মুছে যায়।

প্রথমার্ধে দুই দলের কেউই গোল করতে পারেনি।

এর জন্য দায়ী দুই দলের স্ট্রাইকারদের ফিনিশিং ব্যর্থতা। অবশ্য এর জন্য বৃষ্টিও দায়ী অনেকাংশে। কারণ বৃষ্টিতে ভিজে আর প্রতিকূল পরিবেশ স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারেননি দুই দলের খেলোয়াড়রা।

শট নিতে গিয়ে পিছলে পড়ছেন তারা,শটে গতি দেখা যাচ্ছে না। ঠিকমতো বল রিপ্লেস করা যাচ্ছে না। গোলরক্ষকদেরও বল গ্লাভসবন্দি করতে বেগ পেতে হচ্ছে।

নেপালের অভিজ্ঞ গোলরক্ষক কিরণ লিম্বুই শট নিতে গিয়ে তিনবার পিছলে পড়েছেন।

এমন পরিস্থিতিতেই সাফের ফাইনাল চালিয়ে নিয়েছেন দুই দলের খেলোয়াড়রা।

মেসিকে ছুঁলেন ছেত্রী, সাফ জিতল ভারত

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অঝোর ধারায় বৃষ্টির ভেতরেই  মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে অনুষ্ঠিত হয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ খ্যাত সাফ ফুটবলের ফাইনাল।

ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার মুকুট পরতে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই হয়েছে ভারত ও নেপালের মধ্যে। 

আর সেই লড়াই ফুটবলের কিংবদন্তি পেলেকে ছাড়িয়ে যাওয়া ভারত দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী ত্রাতা হয়ে উঠেলেন।

তার নৈপুণ্যে ৩ -০ গোলে নেপালকে হারিয়ে ৮ম বারের মতো সাফের শিরোপা জিতল ভারত। 

দুই গোলের মধ্যে একটি করেছেন ছেত্রী। 

৪৮ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে মানবীর সিংয়ের ক্রসে দুর্দান্ত হেডে লিড এনে দেন ছেত্রী। সেই গোলের উল্লাসে মাততে না মাততেই ফের গোল। ৫০তম ডানপ্রান্ত থেকেই স্কয়ার পাসে নেপালের ডি-বক্সে বল পান সুরেশ সিং। আড়াআড়ি শটে গোলরক্ষক কিরণ লিম্বুকে পরাস্ত করেন। 

২-০ তে এগিয়ে যায় ভারত ৪ মিনিটের মধ্যেই। দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে নেপাল আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি। 

বেশ কয়েকবার আক্রমণে উঠেও ভারতের গোলমুখ খুলতে পারেনি নেপালের ফরোয়ার্ডরা। নেপালেরে একটি জোরালো আক্রমণ ক্রসবারে লেগে ফেরত আসে।

উল্টো যোগ করা সময়ে নেপালের কফিনে শেষ পেরেকটা ঠোকেন সাহাল আব্দুল সামাদ। স্কোরলাইন ৩-০ করেন।

এদিকে ফাইনালে গোল করে ফুটবলের আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসিকে ছুঁয়ে ফেলেছেন সুনীল ছেত্রী।

আগের ম্যাচে স্বাগতিক মালদ্বীপের বিপক্ষে জোড়া গোল করে ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলেকে অতিক্রম করেন। আজ ফাইনালে এক গোল করে মেসির জাতীয় দলের হয়ে ৮০ গোলের কীর্তি স্পর্শ করেছেন ছেত্রী। 

সুনীল ছেত্রী গোল পেতে পারতেন প্রথমার্ধের শেষ দিকেই। ৪০ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে পাওয়া ক্রস অরক্ষিত গোল পোস্টের সামনে উড়ে আসে সুনীল ছেত্রীর কাছে। বলে মাথা ছোঁয়ালে তা পোস্টের উপর দিয়ে চলে যায়। 

যে আক্ষেপ নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করলেও পরে গোল পেয়ে তা মুছে যায়।

প্রথমার্ধে দুই দলের কেউই গোল করতে পারেনি।  

এর জন্য দায়ী দুই দলের স্ট্রাইকারদের ফিনিশিং ব্যর্থতা। অবশ্য এর জন্য বৃষ্টিও দায়ী অনেকাংশে। কারণ বৃষ্টিতে ভিজে আর প্রতিকূল পরিবেশ স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারেননি দুই দলের খেলোয়াড়রা।

শট নিতে গিয়ে পিছলে পড়ছেন তারা,শটে গতি দেখা যাচ্ছে না। ঠিকমতো বল রিপ্লেস করা যাচ্ছে না। গোলরক্ষকদেরও বল গ্লাভসবন্দি করতে বেগ পেতে হচ্ছে।

নেপালের অভিজ্ঞ গোলরক্ষক কিরণ লিম্বুই শট নিতে গিয়ে তিনবার পিছলে পড়েছেন।
 
এমন পরিস্থিতিতেই সাফের ফাইনাল চালিয়ে নিয়েছেন দুই দলের খেলোয়াড়রা।  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন