পাকিস্তানকে যে কারণে ‘সমীহ’ করতে হবে
jugantor
পাকিস্তানকে যে কারণে ‘সমীহ’ করতে হবে

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২২ অক্টোবর ২০২১, ১৮:২৫:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চলতি আসরে পাকিস্তান যে কোনো দলকেই হারাতে পারে। বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন দলকে যারা হালকাভাবে নেবে তাদের বিপাকে পড়তে হতে পারে। এমনটাই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

পাকিস্তানের বর্তমান দলটি কেন বিপজ্জনক হতে পারে, তার পেছনে বেশ কিছু কারণও আছে।

সেরা ওপেনার: পাকিস্তানের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরাই তাদের আসল শক্তি। ওপেনিং জুটিতে আছেন বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। এই দুজনেই আইসিসি ক্রমতালিকায় প্রথম দশের মধ্যে রয়েছেন। যেসব দেশ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলছে তাদের কোনো দেশেরই দুই ওপেনার একসঙ্গে আইসিসির ক্রম তালিকায় দশের মধ্যে নেই।

বাবর-রিজওয়ান জুটি এখনো পর্যন্ত ১০টি ইনিংস খেলে ৫২.১০ গড়ে ৫২১ রান করেছে; যা পাকিস্তানের হয়ে খেলা ৪৬টি ওপেনিং জুটির মধ্যে সেরা।

দ্রুততম পেস বোলিং: শুধু ওপেনিং জুটিই নয়, পাকিস্তানের পেস বোলিং বিভাগটাও বেশ শক্তিশালি। পেস আক্রমণে আছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি, হাসান আলি, হারিস রউফের মতো বৈচিত্র্য আর অভিজ্ঞতাসম্পন্ন পেসার।

নিজেদের প্রমাণ করার ক্ষুধা: বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তান সফরে গিয়েও নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে ম্যাচ শুরুর ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগে সফর বাতিল করে নিউজিল্যান্ড। তাদের দেখাদেখি সফর বাতিল করে ইংল্যান্ড। তারপরই হতাশায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন পাকিস্তানের সাবেক তারকা ক্রিকেটাররা। সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করে নিজেদের সেরাটা উজার করে দিতে চাইবেন বাবর আজমরা।

পাকিস্তানকে যে কারণে ‘সমীহ’ করতে হবে

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চলতি আসরে পাকিস্তান যে কোনো দলকেই হারাতে পারে। বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন দলকে যারা হালকাভাবে নেবে তাদের বিপাকে পড়তে হতে পারে। এমনটাই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। 

পাকিস্তানের বর্তমান দলটি কেন বিপজ্জনক হতে পারে, তার পেছনে বেশ কিছু কারণও আছে। 

সেরা ওপেনার: পাকিস্তানের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরাই তাদের আসল শক্তি। ওপেনিং জুটিতে আছেন বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। এই দুজনেই আইসিসি ক্রমতালিকায় প্রথম দশের মধ্যে রয়েছেন। যেসব দেশ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলছে তাদের কোনো দেশেরই দুই ওপেনার একসঙ্গে আইসিসির ক্রম তালিকায় দশের মধ্যে নেই।

বাবর-রিজওয়ান জুটি এখনো পর্যন্ত ১০টি ইনিংস খেলে ৫২.১০ গড়ে ৫২১ রান করেছে; যা পাকিস্তানের হয়ে খেলা ৪৬টি ওপেনিং জুটির মধ্যে সেরা। 

দ্রুততম পেস বোলিং: শুধু ওপেনিং জুটিই নয়, পাকিস্তানের পেস বোলিং বিভাগটাও বেশ শক্তিশালি। পেস আক্রমণে আছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি, হাসান আলি, হারিস রউফের মতো বৈচিত্র্য আর অভিজ্ঞতাসম্পন্ন পেসার। 

নিজেদের প্রমাণ করার ক্ষুধা: বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তান সফরে গিয়েও নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে ম্যাচ শুরুর ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগে সফর বাতিল করে নিউজিল্যান্ড। তাদের দেখাদেখি সফর বাতিল করে ইংল্যান্ড। তারপরই হতাশায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন পাকিস্তানের সাবেক তারকা ক্রিকেটাররা। সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করে নিজেদের সেরাটা উজার করে দিতে চাইবেন বাবর আজমরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : টি২০ বিশ্বকাপ ২০২১