সানিয়ার কেকে ‘মান বাঁচল’ হাফিজের
jugantor
সানিয়ার কেকে ‘মান বাঁচল’ হাফিজের

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:২৯:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

৪১ বছর বয়সেও প্রথম একাদশে জায়গা পেয়েছেন পাকিস্তানের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। দলে সুযোগ পেয়ে তরুণদের সঙ্গে সমানতালে লড়ে যাচ্ছেন তিনি।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ১০ উইকেটে ঐতিহাসিক জয়ের সাক্ষী তিনি। দ্বিতীয় ম্যাচেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও মধুর প্রতিশোধের খেলায় অবদান রয়েছে তার।

সব মিলিয়ে বিশ্বকাপ মঞ্চে নেমেই বেজায় খুশি ‘বুড়ো’ হাফিজ। এতটাই খুশি যে, স্ত্রীর জন্মদিনের তারিখটাই ভুলে গিয়েছিলেন তিনি।

এ মুহূর্তে দুবাইয়ে হাফিজের সঙ্গেই অবস্থান করছে তার স্ত্রী–সন্তানরা।

এত কাছে থাকার পরও স্ত্রী নাজিয়াকে জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে বেমালুম ভুলে যান এ অলরাউন্ডার। ফুল নেই, কেকের জোগাড় নেই। বিষয়টি হাফিজের স্ত্রীর ভালো না লাগারই কথা।

বিব্রতকর অবস্থা থেকে হাফিজকে বাঁচাতে ত্রাতার ভূমিকায় ধরা দেন তার সতীর্থ শোয়েব মালিকের স্ত্রী সানিয়া মির্জা। সানিয়ার কেকে মান বাঁচল হাফিজের।

ভারতের এই টেনিস তারকা কেক নিয়ে যান হাফিজের স্ত্রীর জন্য। সেই কেকের জন্য সানিয়াকে ধন্যবাদ জানাতে কার্পণ্য করলেন না হাফিজ।

জন্মদিনে উৎসবের ছবি টুইট করে হাফিজ লিখেছেন, ‘স্ত্রী নাজিয়া হাফিজকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা। আমি ভুলেই গিয়েছিলাম। তবে ত্রাণকর্তা হয়ে সানিয়া সময়মতো কেকের ব্যবস্থা করায় তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

জবাবে সানিয়া লিখেছেন, ‘ভাবিদের নেত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।’

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের স্ত্রীদের মধ্যে হাফিজের স্ত্রীকে ‘নেত্রী’ হিসেবে সম্বোধন করেন বাকিরা। বয়সের কারণেই তাকে শ্রদ্ধা থেকে এমনটি বলা হয়।

টি২০ বিশ্বকাপ ২০২১

সানিয়ার কেকে ‘মান বাঁচল’ হাফিজের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

৪১ বছর বয়সেও প্রথম একাদশে জায়গা পেয়েছেন পাকিস্তানের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। দলে সুযোগ পেয়ে তরুণদের সঙ্গে সমানতালে লড়ে যাচ্ছেন তিনি।  

নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ১০ উইকেটে ঐতিহাসিক জয়ের সাক্ষী তিনি। দ্বিতীয় ম্যাচেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও মধুর প্রতিশোধের খেলায় অবদান রয়েছে তার।

সব মিলিয়ে বিশ্বকাপ মঞ্চে নেমেই বেজায় খুশি ‘বুড়ো’ হাফিজ। এতটাই খুশি যে, স্ত্রীর জন্মদিনের তারিখটাই ভুলে গিয়েছিলেন তিনি।

এ মুহূর্তে দুবাইয়ে হাফিজের সঙ্গেই অবস্থান করছে তার স্ত্রী–সন্তানরা। 

এত কাছে থাকার পরও স্ত্রী নাজিয়াকে জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে বেমালুম ভুলে যান এ অলরাউন্ডার। ফুল নেই, কেকের জোগাড় নেই। বিষয়টি হাফিজের স্ত্রীর ভালো না লাগারই কথা। 

বিব্রতকর অবস্থা থেকে হাফিজকে বাঁচাতে ত্রাতার ভূমিকায় ধরা দেন তার সতীর্থ শোয়েব মালিকের স্ত্রী সানিয়া মির্জা। সানিয়ার কেকে মান বাঁচল হাফিজের।

ভারতের এই টেনিস তারকা কেক নিয়ে যান হাফিজের স্ত্রীর জন্য। সেই কেকের জন্য সানিয়াকে ধন্যবাদ জানাতে কার্পণ্য করলেন না হাফিজ। 

জন্মদিনে উৎসবের ছবি টুইট করে হাফিজ লিখেছেন, ‘স্ত্রী নাজিয়া হাফিজকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা। আমি ভুলেই গিয়েছিলাম। তবে ত্রাণকর্তা হয়ে সানিয়া সময়মতো কেকের ব্যবস্থা করায় তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

জবাবে সানিয়া লিখেছেন, ‘ভাবিদের নেত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।’

 

 

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের স্ত্রীদের মধ্যে হাফিজের স্ত্রীকে ‘নেত্রী’ হিসেবে সম্বোধন করেন বাকিরা। বয়সের কারণেই তাকে শ্রদ্ধা থেকে এমনটি বলা হয়।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : টি২০ বিশ্বকাপ ২০২১