বাংলাদেশকে হারানোই টার্নিং পয়েন্ট বললেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ অসি অধিনায়ক
jugantor
বাংলাদেশকে হারানোই টার্নিং পয়েন্ট বললেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ অসি অধিনায়ক

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৫ নভেম্বর ২০২১, ০১:৩৭:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন দারুণ শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ইংল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটের হেরে সেমিফাইনালে ওঠা নিয়ে শঙ্কায় পড়ে যায় অসিরা।

এরপর সেমির টিকিট নিশ্চিত করতে তাদের প্রয়োজন ছিল বড় ব্যবধানের জয়। আর বাংলাদেশের বিপক্ষে সেই কাজটি বেশ ভালোভাবেই করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ৮২ বল বাকি থাকতেই ৮ উইকেটে বাংলাদেশকে হারায় অসিরা। অথচ এই বাংলাদেশের কাছেই গত সেপ্টেম্বরে ৪-১ ব্যবধানে নাস্তানাবুদ হয়েছিলঅস্ট্রেলিয়া।

তাইবাংলাদেশের বিপক্ষে পাওয়া জয়টিই ছিল নিজেদের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে জানালেন অ্যারন ফিঞ্চ।

ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারানোর পর অসি অধিনায়ক বললেন, ‘এটি বিশাল জয়। অস্ট্রেলিয়া দলের প্রথম সাফল্য। তাই আমরা গর্বিত যেখানে ছেলেরা খেলেছে।’

বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটিই টার্নিং পয়েন্ট ছিল কি না প্রশ্নের জবাবে ফিঞ্চ বলেন, ‘অবশ্যই টার্নিং পয়েন্ট ছিল। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গিয়েছিল। আমাদের লড়াই করতে হতো এবং আমরা তা অবশ্যই করতে পেরেছি। দলগত ও ব্যক্তিগত বেশ কিছু উজ্জ্বল পারফরম্যান্স ছিল।যেমন ওয়ার্নার, এটা বিশ্বাস করা মুশকিল যে, কয়েক সপ্তাহ আগে লোকেরা তাকে নিয়ে সমালোচনা করেছিল, বিষয়টি প্রায় ভালুককে খোঁচা দেওয়ার মতো ছিল। তারপর জাম্পা, আমার মতে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় সে। গোটা টুর্নামেন্টে তার বোলিং ছিল নিয়ন্ত্রিত। বড় উইকেটগুলো পেয়েছে সে। সে সত্যি অসাধারণ খেলোয়াড়। আর মিচেল মার্শ, তার প্রশংসা কীভাবে শুরু করব! প্রতিপক্ষকে শুরু থেকেই চাপে রাখল সে। ম্যাথু ওয়েড তো চোট নিয়েই নিজের খেলাটা খেলে গেছেন। সে মার্কাস স্টয়নিসের সাথে সেমিফাইনালে দারুণ পারফর্ম করেছে।’

বাংলাদেশকে হারানোই টার্নিং পয়েন্ট বললেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ অসি অধিনায়ক

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৫ নভেম্বর ২০২১, ০১:৩৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন দারুণ শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ইংল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটের হেরে সেমিফাইনালে ওঠা নিয়ে শঙ্কায় পড়ে যায় অসিরা। 

এরপর সেমির টিকিট নিশ্চিত করতে তাদের প্রয়োজন ছিল বড় ব্যবধানের জয়। আর বাংলাদেশের বিপক্ষে সেই কাজটি বেশ ভালোভাবেই করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ৮২ বল বাকি থাকতেই ৮ উইকেটে বাংলাদেশকে হারায় অসিরা। অথচ এই বাংলাদেশের কাছেই গত সেপ্টেম্বরে ৪-১ ব্যবধানে নাস্তানাবুদ হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া।

তাই বাংলাদেশের বিপক্ষে পাওয়া জয়টিই ছিল নিজেদের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে জানালেন অ্যারন ফিঞ্চ।

ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে  ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারানোর পর অসি অধিনায়ক বললেন, ‘এটি বিশাল জয়। অস্ট্রেলিয়া দলের প্রথম সাফল্য। তাই আমরা গর্বিত যেখানে ছেলেরা খেলেছে।’ 

বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটিই টার্নিং পয়েন্ট ছিল কি না প্রশ্নের জবাবে ফিঞ্চ বলেন, ‘অবশ্যই টার্নিং পয়েন্ট ছিল। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গিয়েছিল। আমাদের লড়াই করতে হতো এবং আমরা তা অবশ্যই করতে পেরেছি। দলগত ও ব্যক্তিগত বেশ কিছু উজ্জ্বল পারফরম্যান্স ছিল।যেমন ওয়ার্নার, এটা বিশ্বাস করা মুশকিল যে, কয়েক সপ্তাহ আগে লোকেরা তাকে নিয়ে সমালোচনা করেছিল, বিষয়টি প্রায় ভালুককে খোঁচা দেওয়ার মতো ছিল। তারপর জাম্পা, আমার মতে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় সে। গোটা টুর্নামেন্টে তার বোলিং ছিল নিয়ন্ত্রিত। বড় উইকেটগুলো পেয়েছে সে। সে সত্যি অসাধারণ খেলোয়াড়। আর মিচেল মার্শ, তার প্রশংসা কীভাবে শুরু করব! প্রতিপক্ষকে শুরু থেকেই চাপে রাখল সে। ম্যাথু ওয়েড তো চোট নিয়েই নিজের খেলাটা খেলে গেছেন। সে মার্কাস স্টয়নিসের সাথে সেমিফাইনালে দারুণ পারফর্ম করেছে।’ 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : টি২০ বিশ্বকাপ ২০২১