সাকিবকে ছেড়ে দিচ্ছে কলকাতা!
jugantor
সাকিবকে ছেড়ে দিচ্ছে কলকাতা!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৭ নভেম্বর ২০২১, ১৩:৩০:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

এইতো সেদিন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে গত অক্টোবরে শেষ হলো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৪তম আসর।

গত ১৭ অক্টোবর ফাইনালে সাকিবের দল কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ২৭ রানে হারিয়ে চতুর্থবারের মতো শিরোপা ঘরে তুলল ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।

সেই মহারণের দেড় মাস না পার হতেই আসছে ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে আইপিএলের ১৫তম আসরের মেগা নিলাম। তার আগেই আইপিএল কর্তৃপক্ষকে জমা দিতে হবে ধরে রাখা খেলোয়াড়দের তালিকা। এক দল থেকে সর্বোচ্চ ৪ খেলোয়াড়ধরে রাখা যাবে ।

আর সেই বিষয়টিকে সামনে রেখে যে প্রশ্ন ভাসছে বাতাসে তাহলো - বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান কে ধরে রাখবেকলকাতা?

ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, আগামী ৩০ নভেম্বর আইপিএল কর্তৃপক্ষকে যে তালিকা জমা দেবে কলকাতা, তাতে থাকছে না সাকিব আল হাসান ও অধিনায়ক ইয়ন মরগানের নাম। দীনেশ কার্তিকের থাকা না থাকা নিয়েও শঙ্কা রয়েছে।

বলা হচ্ছে, নাইট ফ্রাঞ্চাইজির এখন চোখ ভারতীয় তরুণদের দিকে। তালিকায় রয়েছেন - ভারতীয় তরুণ ওপেনার শুভমান গিল, বরুণ চক্রবর্তী, ভেঙ্কেটেশ আইয়ার। দুই ক্যারিবীয় তারকা সুনীল নারিন ও আন্দ্রে রাসেলে ভরসা রাখছে কেকেআর কর্তৃপক্ষ।

গেল মৌসুমে সাকিব ও কার্তিকের পারফরম্যান্স ছিল গড়পড়তা। আর মরগানের পারফরম্যান্স তো যাচ্ছেতাই!

৮ ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন সাকিব। রান করেছেন সাকুল্যে ৪৭, আর উইকেট নিয়েছিলেন ৪টি।

আর ১৭ ম্যাচে মরগান করেন ১৩৩ রান। সর্বোচ্চ ছিল ৪৭ রান। এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের কারণে মরগানকে ছেড়ে দেওয়ার গুঞ্জন উঠেছিল টুনামেন্ট চলমান থাকাকালীনই।

এমনটি ঘটলে ২০২২ সালের আইপিএলে ইয়ন মরগান এবং সাকিবকে দেখা যাবে না কেকেআর জার্সিতে।

প্রসঙ্গত, আইপিএলে অংশগ্রহণকারী ৮টি দলের সঙ্গে এ বছর লক্ষনউ ও আহমেদাবাদভিত্তিক দুটি নতুন দল সংযোজিত হচ্ছে। মোট ১০ দলের আইপিএল হতে চলেছে ২০২২ সালে।

সাকিবকে ছেড়ে দিচ্ছে কলকাতা!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৭ নভেম্বর ২০২১, ০১:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এইতো সেদিন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে গত অক্টোবরে শেষ হলো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৪তম আসর।

গত ১৭ অক্টোবর ফাইনালে সাকিবের দল কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ২৭ রানে হারিয়ে চতুর্থবারের মতো শিরোপা ঘরে তুলল ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।

সেই মহারণের দেড় মাস না পার হতেই আসছে ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে আইপিএলের ১৫তম আসরের মেগা নিলাম। তার আগেই আইপিএল কর্তৃপক্ষকে জমা দিতে হবে ধরে রাখা খেলোয়াড়দের তালিকা। এক দল থেকে সর্বোচ্চ ৪ খেলোয়াড় ধরে রাখা যাবে । 

আর সেই বিষয়টিকে সামনে রেখে যে প্রশ্ন ভাসছে বাতাসে তাহলো - বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান কে ধরে রাখবে কলকাতা?

ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, আগামী ৩০ নভেম্বর আইপিএল কর্তৃপক্ষকে যে তালিকা জমা দেবে কলকাতা, তাতে থাকছে না সাকিব আল হাসান ও অধিনায়ক ইয়ন মরগানের নাম। দীনেশ কার্তিকের থাকা না থাকা নিয়েও শঙ্কা রয়েছে।

বলা হচ্ছে, নাইট ফ্রাঞ্চাইজির এখন চোখ ভারতীয় তরুণদের দিকে। তালিকায় রয়েছেন - ভারতীয় তরুণ ওপেনার শুভমান গিল, বরুণ চক্রবর্তী, ভেঙ্কেটেশ আইয়ার। দুই ক্যারিবীয় তারকা সুনীল নারিন ও আন্দ্রে রাসেলে ভরসা রাখছে কেকেআর কর্তৃপক্ষ। 

গেল মৌসুমে সাকিব ও কার্তিকের পারফরম্যান্স ছিল গড়পড়তা। আর মরগানের পারফরম্যান্স তো যাচ্ছেতাই! 

৮ ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন সাকিব। রান করেছেন সাকুল্যে ৪৭, আর উইকেট নিয়েছিলেন ৪টি।   

আর ১৭ ম্যাচে মরগান করেন ১৩৩ রান। সর্বোচ্চ ছিল ৪৭ রান। এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের কারণে মরগানকে ছেড়ে দেওয়ার গুঞ্জন উঠেছিল টুনামেন্ট চলমান থাকাকালীনই। 

এমনটি ঘটলে ২০২২ সালের আইপিএলে ইয়ন মরগান এবং সাকিবকে দেখা যাবে না কেকেআর জার্সিতে।

প্রসঙ্গত, আইপিএলে অংশগ্রহণকারী ৮টি দলের সঙ্গে এ বছর লক্ষনউ ও আহমেদাবাদভিত্তিক দুটি নতুন দল সংযোজিত হচ্ছে। মোট ১০ দলের আইপিএল হতে চলেছে ২০২২ সালে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন