ব্যালন ডি’অর জিতে যা বললেন মেসি
jugantor
ব্যালন ডি’অর জিতে যা বললেন মেসি

  স্পোর্টস ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৫৩:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনাকে বিদায় জানানোর সময় অঝোরে কাঁদা লিওনেল মেসির ২০২১ সালের শেষটা দারুণ হলো।

প্যারিসের থিয়েখ দু শাতেলে ব্যালন ডি’অর অনুষ্ঠানে চওড়া গালেহাসলেন।

নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার রবের্ত লেওয়ানডস্কিকে হারিয়ে ব্যালন ডি’অর জিতলেন মেসি!

এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো ফরাসি সাময়িকী ‘ফ্রান্স ফুটবল’ –এর পুরস্কারটি নিজের করে নিলেন ফুটবলের আর্জেন্টাইন তারকা।এপুরস্কার জয়ে মেসির পেছনেই পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর অবস্থান।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পাঁচবার পুরস্কারটি জিতেছেন ম্যানইউ তারকা সিআর সেভেন। এখনও খেলছেন এমন ফুটবলারদের মধ্যে পুরস্কারটি আর জিতেছেন কেবল ৩৬ বছর বয়সি লুকা মদ্রিচ, একবার ২০১৮ সালে।

আর ২০০৯ থেকে ২০১২ পর্যন্ত পুরস্কারটি টানা জিতেছেন মেসি। এরপর ২০১৫ ও ২০১৯ সালেও জেতেন।

গত বছর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এ পুরস্কার দেওয়া হয়নি।

এবার ফের ব্যালন ডি’অর নিচের শো-কেসে জমা করলেন ফুটবলের আর্জেন্টাইন জাদুকর।

ব্যালন ডি’অর হাতে নিয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত মেসি।

প্যারিসে সোমবার রাতের সেই জমকালো অনুষ্ঠানে মেসি বলেন, ‘এখানে আবার আসতে পারাটা অবিশ্বাস্য। দুই বছর আগেও ভেবেছিলাম এবারই শেষ। কোপা আমেরিকা জয়ই চাবিকাঠি।’

পুরস্কার জিতেই দম্ভ করেননি মেসি। পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বী লেওয়ানডস্কির প্রশংসাই ঝড়ল তার মুখে। মেসি বলেন, ‘সবাই জানে এবং আমরাও একমত যে তুমিই গত বছর এ পুরস্কার জিতেছ।’

ব্যালন ডি’অর জিতে যা বললেন মেসি

 স্পোর্টস ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৫৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনাকে বিদায় জানানোর সময় অঝোরে কাঁদা লিওনেল মেসির ২০২১ সালের শেষটা দারুণ হলো। 

প্যারিসের থিয়েখ দু শাতেলে ব্যালন ডি’অর অনুষ্ঠানে চওড়া গালে হাসলেন।

নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার রবের্ত লেওয়ানডস্কিকে হারিয়ে ব্যালন ডি’অর জিতলেন মেসি! 

এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো ফরাসি সাময়িকী ‘ফ্রান্স ফুটবল’ –এর পুরস্কারটি নিজের করে নিলেন ফুটবলের আর্জেন্টাইন তারকা। এ পুরস্কার জয়ে মেসির পেছনেই পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর অবস্থান।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পাঁচবার পুরস্কারটি জিতেছেন ম্যানইউ তারকা সিআর সেভেন। এখনও খেলছেন এমন ফুটবলারদের মধ্যে পুরস্কারটি আর জিতেছেন কেবল ৩৬ বছর বয়সি লুকা মদ্রিচ, একবার ২০১৮ সালে।

আর ২০০৯ থেকে ২০১২ পর্যন্ত পুরস্কারটি টানা জিতেছেন মেসি। এরপর ২০১৫ ও ২০১৯ সালেও জেতেন।

 গত বছর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এ পুরস্কার দেওয়া হয়নি।

এবার ফের  ব্যালন ডি’অর নিচের শো-কেসে জমা করলেন ফুটবলের আর্জেন্টাইন জাদুকর।

ব্যালন ডি’অর হাতে নিয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত মেসি।

প্যারিসে সোমবার রাতের সেই জমকালো অনুষ্ঠানে মেসি বলেন, ‘এখানে আবার আসতে পারাটা অবিশ্বাস্য। দুই বছর আগেও ভেবেছিলাম এবারই শেষ। কোপা আমেরিকা জয়ই চাবিকাঠি।’ 

পুরস্কার জিতেই দম্ভ করেননি মেসি। পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বী লেওয়ানডস্কির প্রশংসাই ঝড়ল তার মুখে। মেসি বলেন, ‘সবাই জানে এবং আমরাও একমত যে তুমিই গত বছর এ পুরস্কার জিতেছ।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন