তাইজুলের প্রশংসায় যা বললেন সাকলায়েন মুশতাক
jugantor
তাইজুলের প্রশংসায় যা বললেন সাকলায়েন মুশতাক

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:১৭:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম টেস্টে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে গেছে বাংলাদেশ। এই ম্যাচ থেকে টাইগারদের প্রাপ্তি বলতে ৪টি।

প্রথম ইনিংসে লিটন দাসের সেঞ্চুরি, দ্বিতীয় ইনিংসে ফিফটি, মুশফিকের ফর্মে ফেরা আর পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে তাইজুল ইসলামের ৭ উইকেট।

তবে এ চারটির মধ্যে তাইজুলের পারফরম্যান্সে যারপরনাই মুগ্ধ পাকিস্তানের সাকলায়েন মুশতাক। তাইজুলের ভূয়সী প্রশংসা করে আরো ভালো করার টিপসও দিলেন পাক কোচ।

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের সাকলায়েন বলেছেন, ‘তাইজুলকে আমার খুব ভালো লেগেছে। যে জায়গায় সে আক্রমণ করেছে, ব্যাটারদের কোনো সুযোগ দেয়নি। আলগা বল তো নয়ই, সিঙ্গেলের সুযোগও দেয়নি। ওর নিয়ন্ত্রণ আমার সত্যিই ভালো লেগেছে। তার টেম্পারমেন্ট, তার ধৈর্য আমার খুবই ভালো লেগেছে। নিয়ন্ত্রণটাই তাইজুলের মূল শক্তি।’

এরপর তাইজুলকে পরামর্শ দিতে গিয়ে এই সাবেক পাক তারকা স্পিনার বলেন,‘আমার মনে হয় তাইজুলের আরেকটু বৈচিত্র যোগ করা উচিত। তার আরও উন্নতির জায়গা আছে। সেটা তাকে বাড়তি কিছু দেবে। আরেকটু ওভারস্পিন তাকে অনেক সহায়তা করতে পারে। সেটা করতে পারলে বিশ্বমানের স্পিনারও হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার।’

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে মোট ৮ উইকেট পেয়েছেন তাইজুল। প্রথম ইনিংসে ৪৪.৪ ওভার বোলিং করে তাইজুল শিকার করেছেন ৭ উইকেট। ২.৫৯ ইকনোমিতে রান দিয়েছেন মাত্র ১১৬। এটা অবশ্য তার ক্যারিয়ারসেরা নয়। ৪২ রানে ৮ উইকেট তার ক্যারিয়ারে জ্বলজ্বল করছে।

এখন পর্যন্ত ৩৪ টেস্টে ১৪২ উইকেট নিয়ে তাইজুল বাংলাদেশের দ্বিতীয় সফল টেস্ট বোলার। ১০০ উইকেটে তিনি দেশের দ্রুততম।

তাইজুলের প্রশংসায় যা বললেন সাকলায়েন মুশতাক

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:১৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম টেস্টে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে গেছে বাংলাদেশ। এই ম্যাচ থেকে টাইগারদের প্রাপ্তি বলতে ৪টি। 

প্রথম ইনিংসে লিটন দাসের সেঞ্চুরি, দ্বিতীয় ইনিংসে ফিফটি, মুশফিকের ফর্মে ফেরা আর পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে তাইজুল ইসলামের ৭ উইকেট।

তবে এ চারটির মধ্যে তাইজুলের পারফরম্যান্সে যারপরনাই মুগ্ধ পাকিস্তানের সাকলায়েন মুশতাক। তাইজুলের ভূয়সী প্রশংসা করে আরো ভালো করার টিপসও দিলেন পাক কোচ। 

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের সাকলায়েন বলেছেন, ‘তাইজুলকে আমার খুব ভালো লেগেছে। যে জায়গায় সে আক্রমণ করেছে, ব্যাটারদের কোনো সুযোগ দেয়নি। আলগা বল তো নয়ই, সিঙ্গেলের সুযোগও দেয়নি। ওর নিয়ন্ত্রণ আমার সত্যিই ভালো লেগেছে। তার টেম্পারমেন্ট, তার ধৈর্য আমার খুবই ভালো লেগেছে। নিয়ন্ত্রণটাই তাইজুলের মূল শক্তি।’

এরপর তাইজুলকে পরামর্শ দিতে গিয়ে এই সাবেক পাক তারকা স্পিনার বলেন,‘আমার মনে হয় তাইজুলের আরেকটু বৈচিত্র যোগ করা উচিত। তার আরও উন্নতির জায়গা আছে। সেটা তাকে বাড়তি কিছু দেবে। আরেকটু ওভারস্পিন তাকে অনেক সহায়তা করতে পারে।  সেটা করতে পারলে বিশ্বমানের স্পিনারও হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার।’

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে মোট ৮ উইকেট পেয়েছেন তাইজুল। প্রথম ইনিংসে ৪৪.৪ ওভার বোলিং করে তাইজুল শিকার করেছেন ৭ উইকেট।  ২.৫৯ ইকনোমিতে রান দিয়েছেন মাত্র ১১৬।  এটা অবশ্য তার ক্যারিয়ারসেরা নয়। ৪২ রানে ৮ উইকেট তার ক্যারিয়ারে জ্বলজ্বল করছে। 

এখন পর্যন্ত ৩৪ টেস্টে ১৪২ উইকেট নিয়ে তাইজুল বাংলাদেশের দ্বিতীয় সফল টেস্ট বোলার। ১০০ উইকেটে তিনি দেশের দ্রুততম।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজ ঢাকা ২০২১