‘এখান থেকেও ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব’
jugantor
‘এখান থেকেও ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:৫৩:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা টেস্টের প্রথম তিন দিনই ছিল বৃষ্টি। তিন দিনে মিনিমাম ৯০ ওভার করে ২৭০ ওভার খেলা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু খেলা হয়েছে সর্বসাকুল্যে ৬৩.৩ ওভার।

মঙ্গলবার চতুর্থ দিনে ফের ব্যাটিংয়ে নেমে ৩৫ ওভার খেলে ২ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান তুলে ৩০০/৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করে পাকিস্তান।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে সময়ের ব্যবধানে উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ২০.৪ ওভারে ৭১ রানে ৭ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা।

ঢাকা টেস্টে পরাজয় এড়াতে হলে বুধবার শেষ দিনে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করতে হবে টাইগারদের। সফরকারী পাকিস্তান ক্রিকেট দল চাইবে বাংলাদেশ দলকে দ্রুত অলআউট করে ফলোঅনে ফেলতে।

ফলোঅন এড়াতে হলে বুধবার শেষ দিনে আরও ২৭ রান করতে হবে টাইগারদের। সাকিব-তাইজুলরা যদি ফলোঅন এড়াতে না পারেন তাহলে ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

এমন শঙ্কার মধ্যেও ম্যাচ বাঁচানোর সুযোগ রয়েছে বলে মনে করেন জাতীয় দলের তরুণ তারকা নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনি বলেন, কালকের শুরুটা গুরুত্বপূর্ণ। সাকিব ও তাইজুল ভাই যদি ভালো শুরু করতে পারেন, তাহলে পরের ইনিংসের জন্য সুবিধা হবে।

তিনি আরও বলেন, পরের ইনিংসে আমাদের ভালো ব্যাটিং করতে হবে। ভালো ব্যাটিং করতে পারলে অবশ্যই ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব। অসম্ভব কিছু না। খেলায় হেরে গেছি, এ রকম কিছু না। এখান থেকে ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব। ভালো অবস্থায় যেতে পারব না- এমন কিছু না।

শান্ত আরও বলেন, এখানে শুধু ডিফেন্স করে সারা দিন পার করা কঠিন। শট খেললে ওদের আক্রমণাত্মক ফিল্ডিং সেটআপটা একটু ছড়িয়ে পড়ত। আমার মনে হয় না কেউ অতিরিক্ত আগ্রাসী ছিল। আমরা এর থেকেও ভালো ক্রিকেট খেলেছি। আজকের দিনটা খারাপ ছিল, ভালো করতে পারিনি। তার মানে এই নয়, আমাদের সামর্থ্য এতটুকুই। আমরা এর থেকে বড় বড় রানও করে এসেছি।

‘এখান থেকেও ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা টেস্টের প্রথম তিন দিনই ছিল বৃষ্টি। তিন দিনে মিনিমাম ৯০ ওভার করে ২৭০ ওভার খেলা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু খেলা হয়েছে সর্বসাকুল্যে ৬৩.৩ ওভার। 

মঙ্গলবার চতুর্থ দিনে ফের ব্যাটিংয়ে নেমে ৩৫ ওভার খেলে ২ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান তুলে ৩০০/৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করে পাকিস্তান। 

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে সময়ের ব্যবধানে উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ২০.৪ ওভারে ৭১ রানে ৭ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। 

ঢাকা টেস্টে পরাজয় এড়াতে হলে বুধবার শেষ দিনে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করতে হবে টাইগারদের। সফরকারী পাকিস্তান ক্রিকেট দল চাইবে বাংলাদেশ দলকে দ্রুত অলআউট করে ফলোঅনে ফেলতে।

ফলোঅন এড়াতে হলে বুধবার শেষ দিনে আরও ২৭ রান করতে হবে টাইগারদের। সাকিব-তাইজুলরা যদি ফলোঅন এড়াতে না পারেন তাহলে ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

এমন শঙ্কার মধ্যেও ম্যাচ বাঁচানোর সুযোগ রয়েছে বলে মনে করেন জাতীয় দলের তরুণ তারকা নাজমুল হোসেন শান্ত। তিনি বলেন, কালকের শুরুটা গুরুত্বপূর্ণ। সাকিব ও তাইজুল ভাই যদি ভালো শুরু করতে পারেন, তাহলে পরের ইনিংসের জন্য সুবিধা হবে। 

তিনি আরও বলেন, পরের ইনিংসে আমাদের ভালো ব্যাটিং করতে হবে। ভালো ব্যাটিং করতে পারলে অবশ্যই ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব। অসম্ভব কিছু না। খেলায় হেরে গেছি, এ রকম কিছু না। এখান থেকে ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব। ভালো অবস্থায় যেতে পারব না- এমন কিছু না।

শান্ত আরও বলেন, এখানে শুধু ডিফেন্স করে সারা দিন পার করা কঠিন। শট খেললে ওদের আক্রমণাত্মক ফিল্ডিং সেটআপটা একটু ছড়িয়ে পড়ত। আমার মনে হয় না কেউ অতিরিক্ত আগ্রাসী ছিল। আমরা এর থেকেও ভালো ক্রিকেট খেলেছি। আজকের দিনটা খারাপ ছিল, ভালো করতে পারিনি। তার মানে এই নয়, আমাদের সামর্থ্য এতটুকুই। আমরা এর থেকে বড় বড় রানও করে এসেছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজ ঢাকা ২০২১