নিউজিল্যান্ডের দুঃসংবাদে বাংলাদেশের সুসংবাদ
jugantor
নিউজিল্যান্ডের দুঃসংবাদে বাংলাদেশের সুসংবাদ

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৯:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর আর উঠেই দাঁড়াতে পারছে না বাংলাদেশ দল। পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর টেস্ট ফরম্যাটেও ধরাশায়ী টাইগাররা।

প্রথম টেস্টে বড় ব্যবধানে হারের পর দ্বিতীয় টেস্টেও ফলোঅনে পড়ার শঙ্কায় ভুগছে মুমিনুল বাহিনী।

এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। সেখানের কন্ডিশন আর বাউন্সি উইকেটে কতটা কঠিন পরিস্থিতিতে পড়বেন টাইগাররা তা ভাবতেই গায়ে কাঁটা দিয়ে ওঠে অনেকের।

তবে এমন পরিস্থিতিতে বড় দুঃসংবাদই শোনালো কিউই ক্রিকেট বোর্ড, যা বাংলাদেশের জন্য সুসংবাদই বটে, এক স্বস্তির খবর।

তা হচ্ছে, বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামা হচ্ছে না নিউজিল্যান্ড দলের কাণ্ডারী, সেরা ব্যাটিং স্তম্ভ অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসনের।

কনুইয়ের চোট দীর্ঘদিন ধরে ভোগাচ্ছে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসনকে। গত মার্চে বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম সিরিজে চোটের কারণেই খেলা হয়নি তার। পুরোনো চোট আবার মাথাচাড়া দেওয়ায় এবারও বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজে উইলিয়ামসনকে পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড। অন্তত দুই মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে।

আগামী ১ জানুয়ারি মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। দ্বিতীয় টেস্ট ক্রাইস্টচার্চে ৯ জানুয়ারি থেকে। দুটি টেস্টেই নামা হবে না কেইন উইলিয়ামসনের।

শুধু বাংলাদেশের বিপেক্ষে টেস্টই নয়, বাংলাদেশ সিরিজ শেষে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে রঙিন জার্সিতেও বাংলাদেশের দলে অনুপস্থিত থাকছেন কেইন।

ফেব্রুয়ারি-মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজে মাঠে ফিরতে পারেন উইলিয়ামসন।

এ বিষয়ে নিউজিল্যান্ডের কোচ গ্যারি স্টিড বলেন, ‌‘কেইন (উইলিয়ামসন) ঠিকভাবেই এগোচ্ছে। তবে আমি শুরুতেই বলেছিলাম, সম্ভবত বড় সময়ের জন্য ছিটকে পড়তে যাচ্ছে সে। গতবার... এটা ছিল আট কিংবা নয় সপ্তাহ। আমার মনে হয়, এবারও এতটা সময়ই বাইরে থাকতে হবে তাকে। আমরা নির্দিষ্ট একটা সময় বেঁধে দিচ্ছি না। তার কনুই কতটা চাপ নিতে পারে এটা একটা ব্যাপার। কারণ টেস্ট আঙিনায় ট্রেনিং এবং ব্যাটিংয়ে বাড়তি সময় দিতে হয়। কেনের কঠিন সময় যাচ্ছে। কেননা সে শুধু টেস্ট নয়, নিউজিল্যান্ডের হয়ে কোনো খেলাই মিস করতে চায় না।’

এদিকে কেইনের অভাব রীতিমতো হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে কিউই দল। উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে কানপুরে সিরিজের প্রথম টেস্টে হারের মুখ থেকে জয়সম এক ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে কিউইরা।

কিন্তু পরের টেস্টে কনুইয়ের চোটে উইলিয়ামসন ছিটকে পড়াতেই যেন খেই হারিয়ে ফেলে ব্ল্যাক ক্যাপসরা।

কানপুরে টম লাথামের নেতৃত্বে খেলতে নেমে ভারতের কাছে রেকর্ড ৩৭২ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে নিউজিল্যান্ড। ছিটকে পড়েছে টেস্টের শীর্ষস্থান থেকেও।

নিউজিল্যান্ডের দুঃসংবাদে বাংলাদেশের সুসংবাদ

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর আর উঠেই দাঁড়াতে পারছে না বাংলাদেশ দল। পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর টেস্ট ফরম্যাটেও ধরাশায়ী টাইগাররা। 

প্রথম টেস্টে বড় ব্যবধানে হারের পর দ্বিতীয় টেস্টেও ফলোঅনে পড়ার শঙ্কায় ভুগছে মুমিনুল বাহিনী।

এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। সেখানের কন্ডিশন আর বাউন্সি উইকেটে কতটা কঠিন পরিস্থিতিতে পড়বেন টাইগাররা তা ভাবতেই গায়ে কাঁটা দিয়ে ওঠে অনেকের।

তবে এমন পরিস্থিতিতে বড় দুঃসংবাদই শোনালো কিউই ক্রিকেট বোর্ড, যা বাংলাদেশের জন্য সুসংবাদই বটে, এক স্বস্তির খবর।

তা হচ্ছে, বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামা হচ্ছে না নিউজিল্যান্ড দলের কাণ্ডারী, সেরা ব্যাটিং স্তম্ভ অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসনের।

কনুইয়ের চোট দীর্ঘদিন ধরে ভোগাচ্ছে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসনকে। গত মার্চে বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম সিরিজে চোটের কারণেই খেলা হয়নি তার। পুরোনো চোট আবার মাথাচাড়া দেওয়ায় এবারও বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজে উইলিয়ামসনকে পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড। অন্তত দুই মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে। 

আগামী ১ জানুয়ারি মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। দ্বিতীয় টেস্ট ক্রাইস্টচার্চে ৯ জানুয়ারি থেকে। দুটি টেস্টেই নামা হবে না কেইন উইলিয়ামসনের।

শুধু বাংলাদেশের বিপেক্ষে টেস্টই নয়, বাংলাদেশ সিরিজ শেষে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে রঙিন জার্সিতেও বাংলাদেশের দলে অনুপস্থিত থাকছেন কেইন। 

ফেব্রুয়ারি-মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজে মাঠে ফিরতে পারেন উইলিয়ামসন।

এ বিষয়ে নিউজিল্যান্ডের কোচ গ্যারি স্টিড বলেন, ‌‘কেইন (উইলিয়ামসন) ঠিকভাবেই এগোচ্ছে। তবে আমি শুরুতেই বলেছিলাম, সম্ভবত বড় সময়ের জন্য ছিটকে পড়তে যাচ্ছে সে। গতবার... এটা ছিল আট কিংবা নয় সপ্তাহ। আমার মনে হয়, এবারও এতটা সময়ই বাইরে থাকতে হবে তাকে। আমরা নির্দিষ্ট একটা সময় বেঁধে দিচ্ছি না। তার কনুই কতটা চাপ নিতে পারে এটা একটা ব্যাপার। কারণ টেস্ট আঙিনায় ট্রেনিং এবং ব্যাটিংয়ে বাড়তি সময় দিতে হয়। কেনের কঠিন সময় যাচ্ছে। কেননা সে শুধু টেস্ট নয়, নিউজিল্যান্ডের হয়ে কোনো খেলাই মিস করতে চায় না।’

এদিকে কেইনের অভাব রীতিমতো হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে কিউই দল। উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে কানপুরে সিরিজের প্রথম টেস্টে হারের মুখ থেকে জয়সম এক ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে কিউইরা।

কিন্তু পরের টেস্টে কনুইয়ের চোটে উইলিয়ামসন ছিটকে পড়াতেই যেন খেই হারিয়ে ফেলে ব্ল্যাক ক্যাপসরা।

কানপুরে টম লাথামের নেতৃত্বে খেলতে নেমে ভারতের কাছে রেকর্ড ৩৭২ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে নিউজিল্যান্ড।  ছিটকে পড়েছে টেস্টের শীর্ষস্থান থেকেও। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন