শারজায় ইতিহাস, একসঙ্গে ক্রিকেট মাঠ মাতাল বাবা-ছেলের জুটি (ভিডিও)
jugantor
শারজায় ইতিহাস, একসঙ্গে ক্রিকেট মাঠ মাতাল বাবা-ছেলের জুটি (ভিডিও)

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৪ জানুয়ারি ২০২২, ২২:২৭:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্রিকেটের ইতিহাসে দুই ভাইয়ের একই সঙ্গে একই দলে খেলার নজির আছে অনেক। তবে বাবা-ছেলেকে কোনো প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট বা ম্যাচে একই সঙ্গে খেলতে দেখার ঘটনা নেই বললেই চলে।

তবে নতুন করে এ নজির গড়েছেন আফগানিস্তানের তারকা ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবি ও তার ছেলে হাসান খান। শুক্রবার ইতিহাসের পাতায় নতুন করে নাম লিখিয়েছেন এই বাবা-ছেলে।

মোহাম্মদ নবি তার ১৬ বছর বয়সী ছেলে হাসান খানের সঙ্গে শারজাহ টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতায় বুখাতির এলিভেন নামের একটি দলের হয়ে একই সঙ্গে খেলতে নামেন।

ফলে শুক্রবার মোহাম্মদ নবি ও তার ছেলের একই দলের হয়ে খেলার বিষয়টি একটি বিরল ঘটনাই বলা যায়।

তবে মোহাম্মদ নবি নিজের ছেলেকে নিয়ে আরেকটি বেশি স্বপ্ন দেখেন। তার ইচ্ছা হলো এখন ছেলের সঙ্গে একই সময় জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন।

লিগ ক্রিকেটে ছেলের সঙ্গে একই দলের হয়ে খেলে ইতিহাস গড়ার পরই মোহাম্মদ নবি তার ইচ্ছার কথাটি জানান।

গণমাধ্যম দ্য ন্যাশনালকে দেয়া সাক্ষাতকারে নবি বলেন, আমার আশা ছিল আমরা একবার একই সঙ্গে খেলব। আমার আশা আমরা জাতীয় দলেও একই সঙ্গে খেলতে পারব।

নবি আরো বলেন, আমি আফগানিস্তানের হয়ে ও লিগে আরো কয়েক বছর খেলার চেস্টা করব। হাসান তখন আরো বড় হবে। আশা করি সে অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে খেলবে। তার যদি জাতীয় দলের হয়ে খেলার যোগ্যতা থাকে। আশা করি তখন আমরা একই সঙ্গে জাতীয় দলের হয়ে খেলব।

নবি সাক্ষাতকারটিতে আরো জানিয়েছেন, তার ছেলেকে তিনি বলে দিয়েছেন নিজের যোগ্যতায় সব কিছু করতে হবে। নিজের নামেই নিজেকে পরিচিত হতে হবে।

মোহাম্মদ নবি ২০০৯ সালে আফগানিস্তানের হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলেন। এরপর থেকে দেশটির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে এখনো খেলে যাচ্ছেন। আফগানরা তাকে ভালোবাসে প্রেসিডেন্ট বলেও সম্বোধন করে।

শারজায় ইতিহাস, একসঙ্গে ক্রিকেট মাঠ মাতাল বাবা-ছেলের জুটি (ভিডিও)

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্রিকেটের ইতিহাসে দুই ভাইয়ের একই সঙ্গে একই দলে খেলার নজির আছে অনেক।  তবে বাবা-ছেলেকে কোনো প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট বা ম্যাচে একই সঙ্গে খেলতে দেখার ঘটনা নেই বললেই চলে। 

তবে নতুন করে এ নজির গড়েছেন আফগানিস্তানের তারকা ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবি ও তার ছেলে হাসান খান।  শুক্রবার ইতিহাসের পাতায় নতুন করে নাম লিখিয়েছেন এই বাবা-ছেলে।

মোহাম্মদ নবি তার ১৬ বছর বয়সী ছেলে হাসান খানের সঙ্গে শারজাহ টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতায় বুখাতির এলিভেন নামের একটি দলের হয়ে একই সঙ্গে খেলতে নামেন।

ফলে শুক্রবার মোহাম্মদ নবি ও তার ছেলের একই দলের হয়ে খেলার বিষয়টি একটি বিরল ঘটনাই বলা যায়। 

তবে মোহাম্মদ নবি নিজের ছেলেকে নিয়ে আরেকটি বেশি স্বপ্ন দেখেন।  তার ইচ্ছা হলো এখন ছেলের সঙ্গে একই সময় জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন। 

লিগ ক্রিকেটে ছেলের সঙ্গে একই দলের হয়ে খেলে ইতিহাস গড়ার পরই মোহাম্মদ নবি তার ইচ্ছার কথাটি জানান।

গণমাধ্যম দ্য ন্যাশনালকে দেয়া সাক্ষাতকারে নবি বলেন, আমার আশা ছিল আমরা একবার একই সঙ্গে খেলব।  আমার আশা আমরা জাতীয় দলেও একই সঙ্গে খেলতে পারব।

নবি আরো বলেন, আমি আফগানিস্তানের হয়ে ও লিগে আরো কয়েক বছর খেলার চেস্টা করব।  হাসান তখন আরো বড় হবে।  আশা করি সে অনূর্ধ্ব-১৯  পর্যায়ে খেলবে। তার যদি জাতীয় দলের হয়ে খেলার যোগ্যতা থাকে।  আশা করি তখন আমরা একই সঙ্গে জাতীয় দলের হয়ে খেলব।

নবি সাক্ষাতকারটিতে আরো জানিয়েছেন, তার ছেলেকে তিনি বলে দিয়েছেন নিজের যোগ্যতায় সব কিছু করতে হবে।  নিজের নামেই নিজেকে পরিচিত হতে হবে।

মোহাম্মদ নবি ২০০৯ সালে আফগানিস্তানের হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলেন।  এরপর থেকে দেশটির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে এখনো খেলে যাচ্ছেন।  আফগানরা তাকে ভালোবাসে প্রেসিডেন্ট বলেও সম্বোধন করে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন