রাশিয়া বিশ্বকাপ

অঘটনের জন্ম দিতে পারে মিসর

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৪ মে ২০১৮, ১৪:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

মিসর,

আর মাত্র ২১ দিন পর পর্দা উঠছে রাশিয়া বিশ্বকাপের। এ নিয়ে এক এক করে ২১তমবারের মতো মঞ্চায়িত হতে যাচ্ছে ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর। স্বাভাবিকভাবেই হইচই পড়ে গেছে বিশ্ব ফুটবলপাড়ায়। কোন খেলোয়াড়, কোন দল কেমন করবে তা নিয়ে বিশ্লেষণ চলছে আগাগোড়া।

সব শ্রেণি-পেশার মানুষের মতো তা নিয়ে গবেষণা করছেন ফুটবল বোদ্ধারা। একরকম ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন তারা। তাদের বাণীতেই উঠে এলো চমক জাগানিয়া এক তথ্য। এবারের বিশ্বকাপে অঘটনের জন্ম দিতে পারে মিসর।

ইতিহাস ও বাছাইপর্ব : নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিশ্বকাপে মিসর। বাছাইপর্বে কঙ্গোকে হারিয়ে বিশ্বকাপের টিকিট কাটে পিরামিডের দেশটি। এ নিয়ে প্রায় ২৮ বছর পর ফুটবলের সবচেয়ে বড় মহাযজ্ঞে অংশ নিতে যাচ্ছে তারা। এর আগে ১৯৩৪ ও ১৯৯০ বিশ্বকাপে খেলে মুসলিমপ্রধান দেশটি। ১৯৩৪ ইতালি বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডে হটফেভারিট হাঙ্গেরিকে ৪-২ গোলে উড়িয়ে দেন তারা।

পরে ১৯৯০ বিশ্বকাপে সেই ইতালির মাটিতেই চমক অব্যাহত রাখে মিসর। গ্রুপপর্বের প্রথম দুই ম্যাচে নেদারল্যান্ডস ও আয়ারল্যান্ডকে জয়বঞ্চিত করে নীলনদের দেশটি। শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লড়াই করে পরাজিত হয় তারা। এর পর রাজনৈতিক গ্যাঁড়াকলে পড়ে পথ হারায় দেশটির ফুটবল। ধীরে ধীরে ফের ফিরে আসতে শুরু করেছে অতীত গৌরব।

তুরুপের তাস : এবার মিসরের বাজির ঘোড়া মোহাম্মদ সালাহ। দেশটির সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় তিনিই। শুধু তাই নয়, এ মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় এ জাদুকর। লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, নেইমারের কাতারেই তার নাম উচ্চারিত হচ্ছে।

উচ্চারিত হওয়ারই কথা। চলতি মৌসুমটা দারুণ কাটিয়েছেন সালাহ। লিভারপুলের হয়ে বিস্ময় জাগানিয়া পারফর্ম করছেন তিনি। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে নিজের নামের পাশে লিখেছেন ৪৪ গোল। সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ১৬ গোল। তার হাত ধরেই ১১ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠেছে অলরেডরা। আর ১৩ বছর পর ইউরোপের সবচেয়ে মর্যাদার শিরোপা ঘরে তোলার স্বপ্ন দেখছেন তারা।

দ্য ফারাওখ্যাত খেলোয়াড়ের ডানায় ভর করে বাছাইপর্বে উড়েছে মিসর। আফ্রিকা অঞ্চল থেকে সবার আগে বিশ্ব মঞ্চে পা রাখেন তারা। সঙ্গত কারণে তাকে ঘিরেই রাশিয়া বিশ্বকাপে অঘটনের স্বপ্ন দেখছে ইতিহাস-ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ দেশটি। ফুটবল বিশ্লেষকদের বাজির ঘোড়া তিনিই।

শক্তিমত্তা : বলার আর অপেক্ষা রাখে না মিসরের সবচেয়ে বড় শক্তি সালাহ। যে দলে তার মতো খেলোয়াড় আছে তা প্রতিপক্ষের জন্য হুমকি। সঙ্গে আছেন কাহরাবা কুকে ও রামাদান শোভি। এ আক্রমণভাগ যে কোনো দলকে ভোগাতে পারে। তাদের রক্ষণভাগও যথেষ্ট ভালো। মোহাম্মদ আব্দেল শাফি, আহমেদ এল মোহামাদি, আহমেদ ফাতিহদের নিয়ে রক্ষণ বেশ মজবুত। দলটির বর্তমান কোচ হেক্টর কুপার দায়িত্ব নেয়ার পর ৩০ ম্যাচ খেলেছে মিসর। এর মধ্যে মাত্র এক ম্যাচে একটির বেশি গোল হজম করেছে দলটি।

ট্যাক্টিস : মিসরের কোচ হেক্টর কুপার আর্জেন্টিনার সাবেক সেন্টারব্যাক। নিজে রক্ষণসেনা হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই রক্ষণাত্মক খেলার প্রতি ঝুঁকবেন তিনি। দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই দলকে খেলাচ্ছেন ৪-২-৩-১ ফরমেশনে। উদ্দেশ্য গোল কম হজম করে জয়ী হওয়া। এক্ষেত্রে ভীষণ সফল তিনি। ৬৩ শতাংশ ম্যাচ জিতেছেন। এখন দেখার বিষয়, সেই কৌশল বিশ্বকাপে কতটা কাজে লাগে।

দুর্বলতা : ২৮ বছর পর বিশ্বকাপে এসেছে মিসর। দীর্ঘদিন বিশ্ব আসরের বাইরে থাকায় বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা নেই তাদের। এ ছাড়া অতীতেও দেখা গেছে, বিগ ম্যাচের চাপ সামলাতেও অভ্যস্ত নয় তারা। তাই ছন্দে থাকা দলটিও বিশ্বমঞ্চে নুইয়ে পড়তে পারে বলে শংকা রয়েছে।

সম্ভাবনা : বিশ্বকাপে মিসরের গ্রুপ সঙ্গী রাশিয়া, সৌদি আরব ও উরুগুয়ে। নকআউট পর্বে ওঠার ক্ষেত্রে স্বাগতিক হিসেবে বিশেষ সুবিধা ভোগ করবে রাশিয়া। দুবারের বিশ্বকাপজয়ী উরুগুয়েও একেবারে ফেলনা নয়। সুয়ারেজ-এডিসন কাভানি ও ক্রিশ্চিয়ান রদ্রিগেজেদের হাত ধরে চমকে দিতে পারে দলটি। সৌদি আরবও মন্দ নয়।

বিশ্বকাপে মিসরের ফিক্সচার-

১৫ জুন, ২০১৮- মিসর-উরুগুয়ে- সন্ধ্যা ৬ টা*

১৯ জুন, ২০১৮- মিসর-রাশিয়া -রাত ৯ টা*

২৫ জুন, ২০১৮- মিসর-সৌদি আরব- রাত ৮টা*

*বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী

মিসরের সম্ভাব্য স্কোয়াড

গোলরক্ষক : মোহাম্মদ আওয়াদ, এশাম এল হাদারি ও মোহাম্মদ এল শেনাউই।

রক্ষণভাগ : মোহাম্মদ আব্দেল শাফি, আহমেদ এল মোহামাদি, আহমেদ ফাতিহ, ওমর জাবের, আলি গাবর, আহমেদ হেজাজি ও সাদ সামির।

মিডফিল্ডার : হোশাম আশুর, হুসেইন এল সাহাত, মোহাম্মদ এলনেনি, তারেক হামিদ, মোহাম্মদ মাগদি, আবদুল্লাহ সাইদ ও মাহামুদ হাসান ত্রেজেগে।

ফরোয়ার্ড : মোহাম্মদ সালাহ, কাহরাবা কুকে, মারওয়ান মোহসিন, রামাদান শোভি ও মোমেন জাকারিয়া।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter