ম্যাথিউস নিজেও বোঝেননি তার ব্যাটে বল লেগেছে
jugantor
ম্যাথিউস নিজেও বোঝেননি তার ব্যাটে বল লেগেছে

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৬ মে ২০২২, ২২:৩০:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে একাই লড়াই করেছেন শ্রীলংকান ব্যাটসম্যান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। টানা ৫৭৮ মিনিট উইকেটে কাটিয়ে খেলেছেন ৩৯৭ বল। ১৯৯ রানের আউট হয়ে আক্ষেপে পুড়ছেন লংকান সাবেক এই অধিনায়ক।

ম্যাথুস অবশ্য ১৯৯ রানের ইনিংসে জীবন পেয়েছেন দুই বার। প্রথমবার অর্ধশতক হাঁকানোর পর তার ক্যাচ ফসকেছে উইকেটের পেছনে।

আর দ্বিতীয়বার জীবন পেয়েছেন ১১৯ রানে ব্যাট করার সময়। দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর চতুর্থ ওভারে খালেদ আহমেদের লেন্থ বলে খোঁচা মারেন ম্যাথিউস। কিন্তু উইকেটকিপার লিটন দাস বুঝতেই পারেননি বল ব্যাট ছুঁয়েছে কিনা। পরে অবশ্য রিপ্লেতে দেখা গেছে ব‍্যাটের কানা ছুঁয়ে লিটনের গ্লাভসে গিয়ে বল জমা হয়।

এ ঘটনায় রিভিউ না নেওয়ায় অনেকেই অধিনায়ক মুমিনুল হক, বোলার-কিপারকে দুষছেন। তবে ম্যাথিউস দাঁড়িয়েছেন তাদের পাশে, সত্যি কথা বলতে সেই সময় আমি নিশ্চিত ছিলাম না। আমিও অবাক হয়েছিলাম, একদমই শুনতে পাইনি। তাই আমি উল্টো লিটনকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে সে কিছু শুনেছে কিনা। তবে স্বাভাবিকভাবেই আমি যেটা শুনিনি, সেটা লিটন কীভাবে শুনবে? এসব জিনিস হয় ক্রিকেটে।

সেই সময়ে রিভিউ না নেওয়া প্রসঙ্গে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা নাঈম হাসান বলেন, আসলে ওটার শব্দই পাইনি আমরা। ব্যাটে লেগেছে কিনা নিশ্চিত ছিলাম না। বাইরে থেকে মনে হয় অনেক সহজ রিভিউ নেওয়া, কিন্তু যারা মাঝখানে থাকে তাদের জন্য কঠিন। কারণ একটা বল যেতে বেশি সময় লাগে না। মিলি সেকেন্ডের ভেতরে বল চলে যায়।

ম্যাথিউস নিজেও বোঝেননি তার ব্যাটে বল লেগেছে

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৬ মে ২০২২, ১০:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে একাই লড়াই করেছেন শ্রীলংকান ব্যাটসম্যান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। টানা ৫৭৮ মিনিট উইকেটে কাটিয়ে খেলেছেন ৩৯৭ বল। ১৯৯ রানের আউট হয়ে আক্ষেপে পুড়ছেন লংকান সাবেক এই অধিনায়ক। 

ম্যাথুস অবশ্য ১৯৯ রানের ইনিংসে জীবন পেয়েছেন দুই বার। প্রথমবার অর্ধশতক হাঁকানোর পর তার ক্যাচ ফসকেছে উইকেটের পেছনে।

আর দ্বিতীয়বার জীবন পেয়েছেন ১১৯ রানে ব্যাট করার সময়। দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর চতুর্থ ওভারে খালেদ আহমেদের লেন্থ বলে খোঁচা মারেন ম্যাথিউস। কিন্তু উইকেটকিপার লিটন দাস বুঝতেই পারেননি বল ব্যাট ছুঁয়েছে কিনা। পরে অবশ্য রিপ্লেতে দেখা গেছে ব‍্যাটের কানা ছুঁয়ে লিটনের গ্লাভসে গিয়ে বল জমা হয়। 

এ ঘটনায় রিভিউ না নেওয়ায় অনেকেই অধিনায়ক মুমিনুল হক, বোলার-কিপারকে দুষছেন। তবে ম্যাথিউস দাঁড়িয়েছেন তাদের পাশে, সত্যি কথা বলতে সেই সময় আমি নিশ্চিত ছিলাম না। আমিও অবাক হয়েছিলাম, একদমই শুনতে পাইনি। তাই আমি উল্টো লিটনকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে সে কিছু শুনেছে কিনা। তবে স্বাভাবিকভাবেই আমি যেটা শুনিনি, সেটা লিটন কীভাবে শুনবে? এসব জিনিস হয় ক্রিকেটে।

সেই সময়ে রিভিউ না নেওয়া প্রসঙ্গে  বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা নাঈম হাসান বলেন, আসলে ওটার শব্দই পাইনি আমরা। ব্যাটে লেগেছে কিনা নিশ্চিত ছিলাম না। বাইরে থেকে মনে হয় অনেক সহজ রিভিউ নেওয়া, কিন্তু যারা মাঝখানে থাকে তাদের জন্য কঠিন। কারণ একটা বল যেতে বেশি সময় লাগে না। মিলি সেকেন্ডের ভেতরে বল চলে যায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকা ২০২২