বার্সেলোনাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতল লিঁও
jugantor
বার্সেলোনাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতল লিঁও

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২২ মে ২০২২, ০৯:৩১:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

বার্সেলোনাকে হারিয়ে নারীদের চ্যাম্পিয়নস লিগ ট্রফি জিতল অলিম্পিক লিঁও। ফাইনালে শনিবার লিঁওর জিতল ৩-১ গোলে। এ নিয়ে প্রতিযোগিতাটিতে অষ্টমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসি ক্লাবটি।

আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর ২ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যায় লিঁও। ডান প্রান্ত দিয়ে আক্রমণে ওঠা আডা হেগেরবার্গ বল ব্যাকপাস দেন সতীর্থ আমানদিন হেনরিকে। পড়ে গেলেও বল ঠিকঠাক রিকভার করেন তিনি। দ্রুত উঠে দাঁড়িয়ে সতীর্থের সামনে থেকে বল ছোবল মেরে নিয়ে প্রায় মাঝমাঠ থেকে দুর্দান্ত এক শট নেন হেনরি। ঝাঁপিয়ে পড়েও বলের নাগাল পাননি বার্সা গোলরক্ষক, ততক্ষণে ১-০ গোলে এগিয়ে লিঁও।

লিঁওর পরের গোলটি হয় ম্যাচের ২৩ মিনিটে। ডান প্রান্ত থেকে ডিফেন্ডার সেলমা বাছার শট থেকে হেডের মাধ্যমে জালের দেখা পান আডা। গোলরক্ষকসহ সেখানে তিনজন খেলোয়াড় থাকলেও জাল অক্ষত রাখতে পারেনি বার্সা। এর পর আডা যে উদ্‌যাপনটা করেন তা অনেকটা ইউরোপে তাদের আধিপত্যের জানান দেয়।

প্রথমার্ধে আরও একবার উদ্‌যাপনের উপলক্ষ্য পায় লিঁও। এ গোলটা অনেকটা নিজেদের দোষে হজম করে বার্সেলোনা। ডিবক্সের ভেতর প্রতিপক্ষের কাছ থেকে বল পেয়েও তা হারিয়ে ফেলেন তারা। অবশেষে তা জালে জড়ান ক্যাটারিনা মাকারিও। বার্সা ম্যাচের একমাত্র গোলটি করে ম্যাচের ৪১ মিনিটে। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হলে ৩-১ ব্যবধানে জয় পায় লিঁও।

২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত মেয়েদের চ্যাম্পিয়নস লিগে লিঁও প্রথম শিরোপা জিতে ২০১১ সালে। পরের বছরও ট্রফি তাদের শোকেসে ওঠে। এর পর ২০১৬ সাল থেকে টানা পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এক বছর বিরতির পর আবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতল লিঁও।

বার্সেলোনাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতল লিঁও

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২২ মে ২০২২, ০৯:৩১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বার্সেলোনাকে হারিয়ে নারীদের চ্যাম্পিয়নস লিগ ট্রফি জিতল অলিম্পিক লিঁও। ফাইনালে শনিবার লিঁওর জিতল ৩-১ গোলে। এ নিয়ে প্রতিযোগিতাটিতে অষ্টমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো ফরাসি ক্লাবটি।

আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর ২ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যায় লিঁও। ডান প্রান্ত দিয়ে আক্রমণে ওঠা আডা হেগেরবার্গ বল ব্যাকপাস দেন সতীর্থ আমানদিন হেনরিকে। পড়ে গেলেও বল ঠিকঠাক রিকভার করেন তিনি। দ্রুত উঠে দাঁড়িয়ে সতীর্থের সামনে থেকে বল ছোবল মেরে নিয়ে প্রায় মাঝমাঠ থেকে দুর্দান্ত এক শট নেন হেনরি। ঝাঁপিয়ে পড়েও বলের নাগাল পাননি বার্সা গোলরক্ষক, ততক্ষণে ১-০ গোলে এগিয়ে লিঁও।

লিঁওর পরের গোলটি হয় ম্যাচের ২৩ মিনিটে। ডান প্রান্ত থেকে ডিফেন্ডার সেলমা বাছার শট থেকে হেডের মাধ্যমে জালের দেখা পান আডা। গোলরক্ষকসহ সেখানে তিনজন খেলোয়াড় থাকলেও জাল অক্ষত রাখতে পারেনি বার্সা। এর পর আডা যে উদ্‌যাপনটা করেন তা অনেকটা ইউরোপে তাদের আধিপত্যের জানান দেয়।

প্রথমার্ধে আরও একবার উদ্‌যাপনের উপলক্ষ্য পায় লিঁও। এ গোলটা অনেকটা নিজেদের দোষে হজম করে বার্সেলোনা। ডিবক্সের ভেতর প্রতিপক্ষের কাছ থেকে বল পেয়েও তা হারিয়ে ফেলেন তারা। অবশেষে তা জালে জড়ান ক্যাটারিনা মাকারিও। বার্সা ম্যাচের একমাত্র গোলটি করে ম্যাচের ৪১ মিনিটে। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হলে ৩-১ ব্যবধানে জয় পায় লিঁও।

২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত মেয়েদের চ্যাম্পিয়নস লিগে লিঁও প্রথম শিরোপা জিতে ২০১১ সালে। পরের বছরও ট্রফি তাদের শোকেসে ওঠে। এর পর ২০১৬ সাল থেকে টানা পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এক বছর বিরতির পর আবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতল লিঁও।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন