লিটন-মুশফিকে ‘রূপকথা’
jugantor
লিটন-মুশফিকে ‘রূপকথা’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৩ মে ২০২২, ২০:০৬:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনের শুরুটা টাইগারদের জন্য যতটা হতাশার, শেষটা ততটাই আনন্দময়। দিনের শুরুটা বাংলাদেশের জন্য দুঃস্বপ্ন দিয়েই হয়েছিল রীতিমতো।

৬.৫ ওভারে মাত্র ৪২ মিনিটেই প্রথমসারির ৫ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে চরম বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দাঁড়িয়ে থেকেও দুঃসাহসিক প্রতিরোধ গড়ে তুলেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন কুমার দাস।

শ্রীলংকার দুই মিডিয়াম ফাস্ট বোলার কাসুন রাজিথা ও আসিথা ফার্নান্দোর গতির মুখে পড়ে একের পর এক সাজঘেরে ফেরেন- মাহমুদুল হাসান জয়, তামিম ইকবাল, মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত ও সাকিব আল হাসান।

২৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারে দাঁড়িয়েছিল বাংলাদেশ, তখন চোখরাঙানি দিচ্ছিল লজ্জার সব রেকর্ড।

মুশফিক-লিটনে সেই লজ্জা এড়ায় বাংলাদেশ। এই দুইজন মিলে ভেঙেছেন টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের ৬৩ বছরের পুরোনো রেকর্ড।

১৯৫৯ সালে ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পাকিস্তান ২২ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ষষ্ঠ উইকেটে ওয়ালিস ম্যাথিয়াস আর সুজাউদ্দিন যোগ করেন ৮৬ রান; যা গত ৬৩ বছর অক্ষত ছিল। সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন মুশফিক-লিটন।

তবে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে বিশ্ব রেকর্ডটা ৩৯৯ রানের। ছয় বছর আগে জনি বেয়ারস্টোকে সঙ্গে নিয়ে এই রানের জুটি গড়েছিলেন ইংলিশ তারকা বেন স্টোকস। লিটন-মুশফিক তা থেকে আছেন ‘মাত্র’ ১৪৬ রানের দূরত্বে।

মুশফিক-লিটন দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলে উইকেটে যেভাবে আধিপত্য বিস্তার করেছেন তা রূপকথার গল্পের মতোই!

মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নেমে মুশফিক-লিটন জুটি আরও ১৪৬ রান যোগ করতে পারলে জনি বেয়ারস্টো-বেন স্টোকসকে ছাড়িয়ে বিশ্ব রেকর্ডটা নিজেদের কব্জায় নিতে পারবেন।

মুশফিক-লিটন কি সেই বিশ্ব রেকর্ডটা নিজেদের করে নিতে পারবেন? না পারলেও ক্ষতি নেই। এ পর্যন্ত যা করেছেন সেটাই বা কম কিসে?

লিটন-মুশফিকে ‘রূপকথা’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৩ মে ২০২২, ০৮:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনের শুরুটা টাইগারদের জন্য যতটা হতাশার, শেষটা ততটাই আনন্দময়। দিনের শুরুটা বাংলাদেশের জন্য দুঃস্বপ্ন দিয়েই হয়েছিল রীতিমতো।

৬.৫ ওভারে মাত্র ৪২ মিনিটেই প্রথমসারির ৫ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে চরম বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দাঁড়িয়ে থেকেও দুঃসাহসিক প্রতিরোধ গড়ে তুলেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন কুমার দাস। 

শ্রীলংকার দুই মিডিয়াম ফাস্ট বোলার কাসুন রাজিথা ও আসিথা ফার্নান্দোর গতির মুখে পড়ে একের পর এক সাজঘেরে ফেরেন- মাহমুদুল হাসান জয়, তামিম ইকবাল, মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত ও সাকিব আল হাসান। 

২৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারে দাঁড়িয়েছিল বাংলাদেশ, তখন চোখরাঙানি দিচ্ছিল লজ্জার সব রেকর্ড।

মুশফিক-লিটনে সেই লজ্জা এড়ায় বাংলাদেশ। এই দুইজন মিলে ভেঙেছেন টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের ৬৩ বছরের পুরোনো রেকর্ড। 

১৯৫৯ সালে ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পাকিস্তান ২২ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ষষ্ঠ উইকেটে ওয়ালিস ম্যাথিয়াস আর সুজাউদ্দিন যোগ করেন ৮৬ রান; যা গত ৬৩ বছর অক্ষত ছিল। সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন মুশফিক-লিটন।

তবে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে বিশ্ব রেকর্ডটা ৩৯৯ রানের। ছয় বছর আগে জনি বেয়ারস্টোকে সঙ্গে নিয়ে এই রানের জুটি গড়েছিলেন ইংলিশ তারকা বেন স্টোকস। লিটন-মুশফিক তা থেকে আছেন ‘মাত্র’ ১৪৬ রানের দূরত্বে।

মুশফিক-লিটন দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলে উইকেটে যেভাবে আধিপত্য বিস্তার করেছেন তা রূপকথার গল্পের মতোই! 

মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নেমে মুশফিক-লিটন জুটি আরও ১৪৬ রান যোগ করতে পারলে জনি বেয়ারস্টো-বেন স্টোকসকে ছাড়িয়ে বিশ্ব রেকর্ডটা নিজেদের কব্জায় নিতে পারবেন।

মুশফিক-লিটন কি সেই বিশ্ব রেকর্ডটা নিজেদের করে নিতে পারবেন? না পারলেও ক্ষতি নেই। এ পর্যন্ত যা করেছেন সেটাই বা কম কিসে?

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-শ্রীলংকা টেস্ট সিরিজ, ঢাকা ২০২২