ব্যাটিং নিয়েই যত দুশ্চিন্তা
jugantor
ব্যাটিং নিয়েই যত দুশ্চিন্তা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৩ জুন ২০২২, ২২:২৩:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

শুক্রবার রাত ৮টায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেন্ট লুসিয়ায় শুরু হবে দুই টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচটি। অ্যান্টিগায় টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের অফ ফর্মের কারণেই হেরেছে বাংলাদেশ।

তাইতো সেন্ট লুসিয়া টেস্ট শুরুর আগেও সেই ব্যাটিং নিয়েই দুশ্চিন্তা। ব্যর্থতা থেকে বেরিয়ে আসার উপায় খুঁজে পাচ্ছে না বাংলাদেশ দল। দ্বিতীয় টেস্টে যে কোনো উপায়ে রানে ফেরাটা বাংলাদেশের জন্য জরুরি।

২০০৪ সালে সেন্ট লুসিয়ার এই মাঠে দারুণ খেলে ড্র করাটা অনুপ্রেরণা। সুখস্মৃতির ভেন্যুতে আরেকবার সুখের খোঁজে বাংলাদেশ দল।

চলতি সিরিজের প্রথম টেস্ট টিভিতে সরাসরি বাংলাদেশের দর্শকরা দেখতে পাননি। রাত ৮টায় শুরু হওয়া দ্বিতীয় টেস্ট সরাসরি দেখা যাবে টি স্পোর্টস এবং আইসিসি টিভিতে।

বাংলাদেশের ব্যাটিং ব্যর্থতা প্রথম টেস্টে প্রকট হয়ে ওঠে। অ্যান্টিগায় প্রথম ইনিংসে ১০৩ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৬ রানে ছয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান দলকে ২০০ পার করান।

টানা ব্যর্থতার জেরে ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন আনতে পারে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। ১৭ ইনিংসে মাত্র একটি হাফ সেঞ্চুরি পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্তর পরিবর্তে একাদশে জায়গা পেতে পারেন এনামুল হক বিজয়। সেন্ট লুসিয়ার এই মাঠেই আট বছর আগে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন এনামুল। এদিকে ইনজুরি কাটিয়ে শরীফুল ইসলাম দলে ফেরায় মোস্তাফিজুর রহমানকে একাদশের বাইরে যেতে হতে পারে।

মুশফিকুর রহিম না থাকায় এবং ইয়াসির আলী ইনজুরিতে পড়ায় সুযোগ পাচ্ছেন নুরুল হাসান। দ্বিতীয় ইনিংসে সাকিবের সঙ্গে তার জুটিতে ইনিংস হার এড়ায় বাংলাদেশ। নেতৃত্ব নেওয়ার পর সাকিব প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই হাফ সেঞ্চুরি করেছেন।

প্রথম টেস্টে বোলারদের পারফরম্যান্স ছিল আশা জাগানিয়া। মোস্তাফিজ, ইবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদ তিন পেসারই ভালো করেন। সাফল্য পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ এবং সাকিবও। সেন্ট লুসিয়ার উইকেটেও পেস বোলিং সহায়ক। গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে এই মাঠে কোনো দলই প্রথম ইনিংসে তিনশ রান তুলতে পারেনি।

অপরিবর্তিত দল নিয়েই মাঠে নামতে পারে স্বাগতিকরা। কেমার রোচ নতুন বলে আগুনে বোলিং করছেন। প্রথম টেস্টে পেস আক্রমণে দারুণ নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। সাত উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচসেরা। ব্যাটিংয়ে ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছেন ক্যারিবীয়রা। অধিনায়ক ক্রেগ ব্রাফেট আগের ম্যাচে ৯৪ রানে আউট হয়েছেন। সব মিলে পঞ্চমবার নড়বড়ে নব্বইয়ের শিকার হন তিনি। এই টেস্টেও জিততে পারলে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট টেবিলে পাকিস্তানকে টপকে পাঁচে উঠে যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পাকিস্তানের চেয়ে দুই পয়েন্ট কম নিয়ে বর্তমানে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে উইন্ডিজ।

ব্যাটিং নিয়েই যত দুশ্চিন্তা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৩ জুন ২০২২, ১০:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শুক্রবার রাত ৮টায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেন্ট লুসিয়ায় শুরু হবে দুই টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচটি। অ্যান্টিগায় টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের অফ ফর্মের কারণেই হেরেছে বাংলাদেশ। 

তাইতো সেন্ট লুসিয়া টেস্ট শুরুর আগেও সেই ব্যাটিং নিয়েই দুশ্চিন্তা। ব্যর্থতা থেকে বেরিয়ে আসার উপায় খুঁজে পাচ্ছে না বাংলাদেশ দল। দ্বিতীয় টেস্টে যে কোনো উপায়ে রানে ফেরাটা বাংলাদেশের জন্য জরুরি। 

২০০৪ সালে সেন্ট লুসিয়ার এই মাঠে দারুণ খেলে ড্র করাটা অনুপ্রেরণা। সুখস্মৃতির ভেন্যুতে আরেকবার সুখের খোঁজে বাংলাদেশ দল। 

চলতি সিরিজের প্রথম টেস্ট টিভিতে সরাসরি বাংলাদেশের দর্শকরা দেখতে পাননি। রাত ৮টায় শুরু হওয়া দ্বিতীয় টেস্ট সরাসরি দেখা যাবে টি স্পোর্টস এবং আইসিসি টিভিতে।

বাংলাদেশের ব্যাটিং ব্যর্থতা প্রথম টেস্টে প্রকট হয়ে ওঠে। অ্যান্টিগায় প্রথম ইনিংসে ১০৩ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৬ রানে ছয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান দলকে ২০০ পার করান।

টানা ব্যর্থতার জেরে ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন আনতে পারে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। ১৭ ইনিংসে মাত্র একটি হাফ সেঞ্চুরি পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্তর পরিবর্তে একাদশে জায়গা পেতে পারেন এনামুল হক বিজয়। সেন্ট লুসিয়ার এই মাঠেই আট বছর আগে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন এনামুল। এদিকে ইনজুরি কাটিয়ে শরীফুল ইসলাম দলে ফেরায় মোস্তাফিজুর রহমানকে একাদশের বাইরে যেতে হতে পারে। 

মুশফিকুর রহিম না থাকায় এবং ইয়াসির আলী ইনজুরিতে পড়ায় সুযোগ পাচ্ছেন নুরুল হাসান। দ্বিতীয় ইনিংসে সাকিবের সঙ্গে তার জুটিতে ইনিংস হার এড়ায় বাংলাদেশ। নেতৃত্ব নেওয়ার পর সাকিব প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই হাফ সেঞ্চুরি করেছেন। 

প্রথম টেস্টে বোলারদের পারফরম্যান্স ছিল আশা জাগানিয়া। মোস্তাফিজ, ইবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদ তিন পেসারই ভালো করেন। সাফল্য পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ এবং সাকিবও। সেন্ট লুসিয়ার উইকেটেও পেস বোলিং সহায়ক। গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে এই মাঠে কোনো দলই প্রথম ইনিংসে তিনশ রান তুলতে পারেনি।  

অপরিবর্তিত দল নিয়েই মাঠে নামতে পারে স্বাগতিকরা। কেমার রোচ নতুন বলে আগুনে বোলিং করছেন। প্রথম টেস্টে পেস আক্রমণে দারুণ নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। সাত উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচসেরা। ব্যাটিংয়ে ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছেন ক্যারিবীয়রা। অধিনায়ক ক্রেগ ব্রাফেট আগের ম্যাচে ৯৪ রানে আউট হয়েছেন। সব মিলে পঞ্চমবার নড়বড়ে নব্বইয়ের শিকার হন তিনি। এই টেস্টেও জিততে পারলে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট টেবিলে পাকিস্তানকে টপকে পাঁচে উঠে যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পাকিস্তানের চেয়ে দুই পয়েন্ট কম নিয়ে বর্তমানে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে উইন্ডিজ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর ২০২২