‘ও এরকম ভালো করতে থাকলে শাস্তি পেতেই থাকব’
jugantor
‘ও এরকম ভালো করতে থাকলে শাস্তি পেতেই থাকব’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৬ জুন ২০২২, ২০:২৭:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলকে অপ্রিয় ভাবার কোনো কারণ নেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের তারকা ব্যাটসম্যান কাইল মায়ার্সের।

গত বছর চট্টগ্রাম টেস্টে টাইগারদের বিপক্ষে অভিষেকেই ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন মায়ার্স। তার সেই রেকর্ডময় ডাবল সেঞ্চুরির সুবাদে চতুর্থ ইনিংসে ৪০০ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড গড়েছিল উইন্ডিজ।

আবার সেই ‘প্রিয় প্রতিপক্ষ’ বাংলাদেশ দলকে পেয়ে নিজের চেনারূপে ব্যাটিং নৈপুণ্য প্রদর্শন করে যাচ্ছেন ক্যারিবীয় তারকা ব্যাটসম্যান কাইল মায়ার্স।

সেন্ট লুসিয়া টেস্টে উদ্বোধনীতে ১০০ রান করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ এরপর মাত্র ৩২ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট হারায়। দলের এমন ব্যাটিং বিপর্যয়ে হাল ধরেন কাইল মায়ার্স।

পঞ্চম উইকেটে জার্মেইন ব্লাকউডের সঙ্গে প্রথমে ১১৬ রানের জুটি গড়েন মায়ার্স। ৪০ রান করে জার্মেইন আউট হওয়ার পর জশুয়া ডি সিলভার সঙ্গে পাটর্নারশিপ গড়ে তুলেন তিনি।

ষষ্ঠ উইকেটে শনিবার দ্বিতীয় দিনের শেষ বিকালে অবিচ্ছিন্ন ৯২ রানের জুটি গড়েন মায়ার্স-ডি সিলভা।

আর এই জুটিতেই ক্যারিয়ারের ১৩তম টেস্টে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন মায়ার্স। তার ব্যাটে ভর করেই লিড নেওয়া উইন্ডিজ বড় সংগ্রহের পথে।

কাইল মায়ার্সের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেন, মায়ার্সের মতো ইনিংস আমাদের কেউ খেলতে পারছে না। গত বছরও ওয়েস্ট ইন্ডিজ আমাদের বিপক্ষে ৪০০ রান তাড়া করেছে ওর ডাবল সেঞ্চুরির সুবাদে। ওকে দেখে শিক্ষা নেওয়া উচিত। টেস্ট ম্যাচ সত্যিই অনেক কঠিন। ও এরকম ভালো করতে থাকলে শাস্তি পেতেই থাকব।

ডমিঙ্গো আরও বলেন, নিজের ভাগ্য নিজেই গড়ে নিচ্ছে মায়ার্স। সে ইতিবাচক ব্যাটিং করছে। কাভারে অনেক রান করছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী যতক্ষণ ইচ্ছা পছন্দের শটগুলো খেলতে পারছে। ওর মধ্যে প্রখরতা আছে। আমরা বাজে বল করলেই ও শাসন করছে।

ডমিঙ্গো বলেন, আমাদের দলের অনেক ক্রিকেটার ছন্দ খুঁজে বেড়াচ্ছে, রানের পেছনে ছুটছে। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার একটাই উপায়, লম্বা সময় ধরে ব্যাট করা। অনেক ৩০-৪০ রানের ইনিংস হচ্ছে। কেউ কেউ ৫০ রান করছে। কিন্তু মায়ার্সের মতো কেউ হতে পারছে না। এটাই দলীয় সংগ্রহকে ২৩০ থেকে ৪০০ রানে পৌঁছে দেয়। পরে এটাই টেস্টের পার্থক্য গড়ে দেয়।

‘ও এরকম ভালো করতে থাকলে শাস্তি পেতেই থাকব’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৬ জুন ২০২২, ০৮:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলকে অপ্রিয় ভাবার কোনো কারণ নেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের তারকা ব্যাটসম্যান কাইল মায়ার্সের। 

গত বছর চট্টগ্রাম টেস্টে টাইগারদের বিপক্ষে অভিষেকেই ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন মায়ার্স। তার সেই রেকর্ডময় ডাবল সেঞ্চুরির সুবাদে চতুর্থ ইনিংসে ৪০০ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড গড়েছিল উইন্ডিজ। 

আবার সেই ‘প্রিয় প্রতিপক্ষ’ বাংলাদেশ দলকে পেয়ে নিজের চেনারূপে ব্যাটিং নৈপুণ্য প্রদর্শন করে যাচ্ছেন ক্যারিবীয় তারকা ব্যাটসম্যান কাইল মায়ার্স। 

সেন্ট লুসিয়া টেস্টে উদ্বোধনীতে ১০০ রান করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ এরপর মাত্র ৩২ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট হারায়। দলের এমন ব্যাটিং বিপর্যয়ে হাল ধরেন কাইল মায়ার্স। 

পঞ্চম উইকেটে জার্মেইন ব্লাকউডের সঙ্গে প্রথমে ১১৬ রানের জুটি গড়েন মায়ার্স। ৪০ রান করে জার্মেইন আউট হওয়ার পর জশুয়া ডি সিলভার সঙ্গে পাটর্নারশিপ গড়ে তুলেন তিনি। 

ষষ্ঠ উইকেটে শনিবার দ্বিতীয় দিনের শেষ বিকালে অবিচ্ছিন্ন ৯২ রানের জুটি গড়েন মায়ার্স-ডি সিলভা। 

আর এই জুটিতেই ক্যারিয়ারের ১৩তম টেস্টে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন মায়ার্স। তার ব্যাটে ভর করেই লিড নেওয়া উইন্ডিজ বড় সংগ্রহের পথে। 

কাইল মায়ার্সের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেন, মায়ার্সের মতো ইনিংস আমাদের কেউ খেলতে পারছে না। গত বছরও ওয়েস্ট ইন্ডিজ আমাদের বিপক্ষে ৪০০ রান তাড়া করেছে ওর ডাবল সেঞ্চুরির সুবাদে। ওকে দেখে শিক্ষা নেওয়া উচিত। টেস্ট ম্যাচ সত্যিই অনেক কঠিন। ও এরকম ভালো করতে থাকলে শাস্তি পেতেই থাকব।

ডমিঙ্গো আরও বলেন, নিজের ভাগ্য নিজেই গড়ে নিচ্ছে মায়ার্স। সে ইতিবাচক ব্যাটিং করছে। কাভারে অনেক রান করছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী যতক্ষণ ইচ্ছা পছন্দের শটগুলো খেলতে পারছে। ওর মধ্যে প্রখরতা আছে। আমরা বাজে বল করলেই ও শাসন করছে।

ডমিঙ্গো বলেন, আমাদের দলের অনেক ক্রিকেটার ছন্দ খুঁজে বেড়াচ্ছে, রানের পেছনে ছুটছে। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার একটাই উপায়, লম্বা সময় ধরে ব্যাট করা। অনেক ৩০-৪০ রানের ইনিংস হচ্ছে। কেউ কেউ ৫০ রান করছে। কিন্তু মায়ার্সের মতো কেউ হতে পারছে না। এটাই দলীয় সংগ্রহকে ২৩০ থেকে ৪০০ রানে পৌঁছে দেয়। পরে এটাই টেস্টের পার্থক্য গড়ে দেয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর ২০২২