টেস্ট ম্যাচ জিততে হলে যা করতে হবে জানালেন সাকিব
jugantor
টেস্ট ম্যাচ জিততে হলে যা করতে হবে জানালেন সাকিব

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৮ জুন ২০২২, ২১:০৭:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

অভিজ্ঞতা, শক্তি-সামর্থ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বাংলাদেশ সমানে সমান। তারপরও অ্যান্টিগা ও সেন্ট লুসিয়ায় ৭ ও ১০ উইকেটের ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ।

টেস্টে ২২ বছরের পথচলায় উন্নতির তেমন ছাপ রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। ক্রিকেটের এই আদি ফরম্যাটে নিজেদের উন্নতি নিয়ে কথা বলেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

উইন্ডিজে হারের পর সাকিব বলেন, উন্নতি আসলে সব বিভাগেই করতে হবে। আমরা যদি টেস্ট ম্যাচ জিততে চাই, সব বিভাগেই উন্নতি করতে হবে। ভালো দিক হলো, এখন অনেক বড় একটা বিরতি আছে। যারা টেস্ট খেলতে আগ্রহী তারা হয়তো যার যার জায়গা থেকে উন্নতি করার চেষ্টা করবে। উন্নতি ছাড়া আর কোনো পথ নেই ভালো করার।

সাকিব আরও বলেন, আমাদের এমন কোনো সেট অব প্লেয়ারও নেই যাদের আনলে তারাও ভালো করে ফেলবে। যারা আছি বা বাইরে আর যে দুই-চারজন আছে, সবাই মিলে যদি একসঙ্গে পরিকল্পনা করে এগোতে পারি, তাহলেই ভালো কিছু সম্ভব হবে। তা না হলে এতদিন ধরে যা হয়ে আসছে তা থেকে খুব বেশি একটা পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

টেস্টে ভালো করার জন্য ক্রিকেটারদের মানসিকতার পরিবর্তনও খুব করে দরকার জানিয়ে সাকিব বলেন, আমাদের নিজেদের চিন্তার পরিবর্তনটা খুব জরুরি। এ জায়গায় কাজ করার আছে। এখন পাঁচ মাসের মতো একটা সময় আছে। সবাই বসে, কথা বলে, চিন্তা-ভাবনা করে সিদ্ধান্তগুলো নেওয়া যাবে বলে আমি মনে করি।

তিনি আরও বলেন, একজনকে ছাড়া আরেকজনকে নিয়ে পরিকল্পনা করে আসলে সফল হওয়া সম্ভব নয়। সবাই মিলে বসে যদি আমরা একটা পরিকল্পনা ধরে এগিয়ে যাই তাহলে অন্তত এক-দেড় বছর পর ধারাবাহিক পারফর্ম করা সম্ভব।

টেস্ট ম্যাচ জিততে হলে যা করতে হবে জানালেন সাকিব

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ জুন ২০২২, ০৯:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অভিজ্ঞতা, শক্তি-সামর্থ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বাংলাদেশ সমানে সমান। তারপরও অ্যান্টিগা ও সেন্ট লুসিয়ায় ৭ ও ১০ উইকেটের ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ। 

টেস্টে ২২ বছরের পথচলায় উন্নতির তেমন ছাপ রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। ক্রিকেটের এই আদি ফরম্যাটে নিজেদের উন্নতি নিয়ে কথা বলেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। 

উইন্ডিজে হারের পর সাকিব বলেন, উন্নতি আসলে সব বিভাগেই করতে হবে। আমরা যদি টেস্ট ম্যাচ জিততে চাই, সব বিভাগেই উন্নতি করতে হবে। ভালো দিক হলো, এখন অনেক বড় একটা বিরতি আছে। যারা টেস্ট খেলতে আগ্রহী তারা হয়তো যার যার জায়গা থেকে উন্নতি করার চেষ্টা করবে। উন্নতি ছাড়া আর কোনো পথ নেই ভালো করার।

সাকিব আরও বলেন, আমাদের এমন কোনো সেট অব প্লেয়ারও নেই যাদের আনলে তারাও ভালো করে ফেলবে। যারা আছি বা বাইরে আর যে দুই-চারজন আছে, সবাই মিলে যদি একসঙ্গে পরিকল্পনা করে এগোতে পারি, তাহলেই ভালো কিছু সম্ভব হবে। তা না হলে এতদিন ধরে যা হয়ে আসছে তা থেকে খুব বেশি একটা পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

টেস্টে ভালো করার জন্য ক্রিকেটারদের মানসিকতার পরিবর্তনও খুব করে দরকার জানিয়ে সাকিব বলেন, আমাদের নিজেদের চিন্তার পরিবর্তনটা খুব জরুরি। এ জায়গায় কাজ করার আছে। এখন পাঁচ মাসের মতো একটা সময় আছে। সবাই বসে, কথা বলে, চিন্তা-ভাবনা করে সিদ্ধান্তগুলো নেওয়া যাবে বলে আমি মনে করি।

তিনি আরও বলেন, একজনকে ছাড়া আরেকজনকে নিয়ে পরিকল্পনা করে আসলে সফল হওয়া সম্ভব নয়। সবাই মিলে বসে যদি আমরা একটা পরিকল্পনা ধরে এগিয়ে যাই তাহলে অন্তত এক-দেড় বছর পর ধারাবাহিক পারফর্ম করা সম্ভব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর ২০২২