দৈহিক গড়নের কারণেই পিছিয়ে বাংলাদেশ!
jugantor
দৈহিক গড়নের কারণেই পিছিয়ে বাংলাদেশ!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

৩০ জুন ২০২২, ১৭:২০:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

টি-টোয়েন্টিতে পাওয়ার হিটিংয়ে বাংলাদেশের দুর্বলতা বেশ পুরোনো। ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে শারীরিক গড়নের কারণে বড় শট খেলায় টাইগাররা পিছিয়ে আছে বলে মনে করেন বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স।

সিডন্স বলেন, জাতি হিসেবে আমার মনে হয় না আমাদের খুব দীর্ঘকায় গড়নের খেলোয়াড় রয়েছে। যেমন- জস বাটলার ৬ ফুট ২ ইঞ্চি, বড় শরীর, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৬ ফুট ২ ইঞ্চি, মার্কাস স্টয়নিসও তাই। বড়সড় দৈহিক গড়ন তাদের। আমাদের তাই অন্য উপায় খুঁজতে হবে। আমরা দৈহিক গড়নে অন্য দলগুলোকে পেছনে ফেলতে পারব না।

তিনি আরও বলেন, আমরা দৈহিক গড়নে অন্য দলগুলোকে পেছনে ফেলতে পারব না। আমাদের বোলিং বিভাগ খুব ভালো। আমার মনে হয় না, আমাদের অনেক বেশি রান করতে হবে। বোর্ডে একটা ভালো সংগ্রহ দাঁড় করাতে হবে। সিঙ্গেল অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। তবে পাওয়ার হিটিং ম্যাচ জেতায়। যত বেশি বাউন্ডারি, তত বেশি ম্যাচ জেতা যায়। আমাদের তাই পাওয়ার হিটিংয়ে মনোযোগ দিতে হবে, ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে।

সিডন্স বলেন, পাওয়ার হিটিংয়ের স্কিল আয়ত্ত করতে অনেক বেশি ট্রেনিং সেশন প্রয়োজন। আমার সময় প্রয়োজন। ট্রেনিংয়ে আরও বেশি সময় দিয়ে দেখতে হবে খেলোয়াড়দের স্কিলে পরিবর্তন আনা যায় কিনা। এ মুহূর্তে আমরা ম্যাচ খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। এ অবস্থায় আপনি অন্য কিছু চিন্তা করতে পারবেন না। খেলোয়াড়দের জন্য নতুন টেকনিক রপ্ত করে একটা টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামা খুবই কঠিন। এসব স্কিলে উন্নতির জন্য তাই সময় প্রয়োজন।

অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে সিডন্স বলেন, আমাদের টি-টোয়েন্টি দলে বেশ কয়েকজন নতুন খেলোয়াড় আছে। আমরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতার জন্য বা বিশ্বকাপে ভালো খেলার জন্য একটি ভালো দল গড়ার চেষ্টা করছি। এছাড়া এশিয়া কাপও রয়েছে। এখানে তিনটি ম্যাচ, এশিয়া কাপেও কিছু ম্যাচ পাব। বিশ্বকাপের জন্য আমরা যথাযথ প্রস্তুত হতে পারব।

দৈহিক গড়নের কারণেই পিছিয়ে বাংলাদেশ!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
৩০ জুন ২০২২, ০৫:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টি-টোয়েন্টিতে পাওয়ার হিটিংয়ে বাংলাদেশের দুর্বলতা বেশ পুরোনো। ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে শারীরিক গড়নের কারণে বড় শট খেলায় টাইগাররা পিছিয়ে আছে বলে মনে করেন বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স। 

সিডন্স বলেন, জাতি হিসেবে আমার মনে হয় না আমাদের খুব দীর্ঘকায় গড়নের খেলোয়াড় রয়েছে। যেমন- জস বাটলার ৬ ফুট ২ ইঞ্চি, বড় শরীর, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৬ ফুট ২ ইঞ্চি, মার্কাস স্টয়নিসও তাই। বড়সড় দৈহিক গড়ন তাদের। আমাদের তাই অন্য উপায় খুঁজতে হবে। আমরা দৈহিক গড়নে অন্য দলগুলোকে পেছনে ফেলতে পারব না।

তিনি আরও বলেন, আমরা দৈহিক গড়নে অন্য দলগুলোকে পেছনে ফেলতে পারব না। আমাদের বোলিং বিভাগ খুব ভালো। আমার মনে হয় না, আমাদের অনেক বেশি রান করতে হবে। বোর্ডে একটা ভালো সংগ্রহ দাঁড় করাতে হবে। সিঙ্গেল অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। তবে পাওয়ার হিটিং ম্যাচ জেতায়। যত বেশি বাউন্ডারি, তত বেশি ম্যাচ জেতা যায়। আমাদের তাই পাওয়ার হিটিংয়ে মনোযোগ দিতে হবে, ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে।

সিডন্স বলেন, পাওয়ার হিটিংয়ের স্কিল আয়ত্ত করতে অনেক বেশি ট্রেনিং সেশন প্রয়োজন। আমার সময় প্রয়োজন। ট্রেনিংয়ে আরও বেশি সময় দিয়ে দেখতে হবে খেলোয়াড়দের স্কিলে পরিবর্তন আনা যায় কিনা। এ মুহূর্তে আমরা ম্যাচ খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। এ অবস্থায় আপনি অন্য কিছু চিন্তা করতে পারবেন না। খেলোয়াড়দের জন্য নতুন টেকনিক রপ্ত করে একটা টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামা খুবই কঠিন। এসব স্কিলে উন্নতির জন্য তাই সময় প্রয়োজন।

অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে সিডন্স বলেন, আমাদের টি-টোয়েন্টি দলে বেশ কয়েকজন নতুন খেলোয়াড় আছে। আমরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতার জন্য বা বিশ্বকাপে ভালো খেলার জন্য একটি ভালো দল গড়ার চেষ্টা করছি। এছাড়া এশিয়া কাপও রয়েছে। এখানে তিনটি ম্যাচ, এশিয়া কাপেও কিছু ম্যাচ পাব। বিশ্বকাপের জন্য আমরা যথাযথ প্রস্তুত হতে পারব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর ২০২২