‘আফিফের মধ্যে কিছু অনন্য যোগ্যতা দেখেছি’
jugantor
‘আফিফের মধ্যে কিছু অনন্য যোগ্যতা দেখেছি’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৫ আগস্ট ২০২২, ২২:২৪:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

সদ্য শেষ হওয়া জিম্বাবুয়ে সফরে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন আফিফ হোসেন। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে যথাক্রমে ১০, ৩০ ও ৩৯* রান করেন আফিফ।

আর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম খেলায় ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি আফিফ। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে করেন ৪১ রান। আর শেষ ম্যাচে হোয়াইটওয়াশ এড়াতে নেমে ৮৫ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে দলের জয়ে অবদান রেখে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতে নেন।

জিম্বাবুয়ের মাঠে দারুণ ক্রিকেট খেলা আফিফের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন।

সুজন বলেন, আমরা নির্দিষ্ট একটা দায়িত্ব নিয়ে আফিফকে চিন্তা করছি। হি ইজ এ ডায়নামো। আমার মনে হয়, সে আত্মবিশ্বাসী একটা ছেলে। শেষ দুটি সিরিজে দারুণ ব্যাটিং করেছে। ওয়ানডেতেও ভালো খেলেছে। আমরা আফিফকে সে জায়গাটা দেব। কারণ সে আমাদের ভবিষ্যৎ।

সোমবার মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সুজন বলেন, সবচেয়ে বড় কথা, সে আক্রমণাত্মক। এটাই আমরা দলের মধ্যে চাই। বাংলাদেশে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একজন ক্রিকেটার তৈরি হচ্ছে। অবশ্যই তাকে আমাদের সে সুযোগটা করে দিতে হবে। এটা আমাদের দায়িত্ব।

সুজন বলেন, আমি আফিফের মধ্যে কিছু অনন্য যোগ্যতা দেখেছি, যেটা খুব বেশি ক্রিকেটারের মধ্যে নেই। আপনি যদি দেখেন- দ্বিতীয় ম্যাচেও আফিফ যখন ব্যাটিংয়ে আসে, আমরা চাপে ছিলাম এবং চাপটা সে দ্রুতই সরিয়ে দিয়েছে। এ ধরনের খেলোয়াড় অন্যদিন একই জিনিস করতে গিয়ে আউট হয়ে যাবে। তখন আপনারা-আমরা বলব যে এটা কী করল! কিন্তু তার মধ্যে যে কোয়ালিটি আছে, সেটা আমি হারাতে চাই না। সে এভাবেই খেলুক।

‘আফিফের মধ্যে কিছু অনন্য যোগ্যতা দেখেছি’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৫ আগস্ট ২০২২, ১০:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সদ্য শেষ হওয়া জিম্বাবুয়ে সফরে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন আফিফ হোসেন। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে যথাক্রমে ১০, ৩০ ও ৩৯* রান করেন আফিফ। 

আর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম খেলায় ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি আফিফ। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে করেন ৪১ রান। আর শেষ ম্যাচে হোয়াইটওয়াশ এড়াতে নেমে ৮৫ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে দলের জয়ে অবদান রেখে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতে নেন। 

জিম্বাবুয়ের মাঠে দারুণ ক্রিকেট খেলা আফিফের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন।  

সুজন বলেন, আমরা নির্দিষ্ট একটা দায়িত্ব নিয়ে আফিফকে চিন্তা করছি। হি ইজ এ ডায়নামো। আমার মনে হয়, সে আত্মবিশ্বাসী একটা ছেলে। শেষ দুটি সিরিজে দারুণ ব্যাটিং করেছে। ওয়ানডেতেও ভালো খেলেছে। আমরা আফিফকে সে জায়গাটা দেব। কারণ সে আমাদের ভবিষ্যৎ।

সোমবার মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সুজন বলেন, সবচেয়ে বড় কথা, সে আক্রমণাত্মক। এটাই আমরা দলের মধ্যে চাই। বাংলাদেশে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একজন ক্রিকেটার তৈরি হচ্ছে। অবশ্যই তাকে আমাদের সে সুযোগটা করে দিতে হবে। এটা আমাদের দায়িত্ব।

সুজন বলেন, আমি আফিফের মধ্যে কিছু অনন্য যোগ্যতা দেখেছি, যেটা খুব বেশি ক্রিকেটারের মধ্যে নেই। আপনি যদি দেখেন- দ্বিতীয় ম্যাচেও আফিফ যখন ব্যাটিংয়ে আসে, আমরা চাপে ছিলাম এবং চাপটা সে দ্রুতই সরিয়ে দিয়েছে। এ ধরনের খেলোয়াড় অন্যদিন একই জিনিস করতে গিয়ে আউট হয়ে যাবে। তখন আপনারা-আমরা বলব যে এটা কী করল! কিন্তু তার মধ্যে যে কোয়ালিটি আছে, সেটা আমি হারাতে চাই না। সে এভাবেই খেলুক।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : এশিয়া কাপ-২০২২