বিশ্বকাপে যাদের সমর্থক মাশরাফি-সাকিবরা

  যুগান্তর ডেস্ক    ১২ জুন ২০১৮, ১২:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

সাকিব,

হোক তারা ক্রিকেটার। তাতে কী। ৯০ মিনিটের খেলায়ও নিমগ্ন হন তারা। বিশ্বকাপের মাঝপথে বাংলাদেশ দল থাকবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। বিশ্বকাপ ঠিকমতো উপভোগ করতে পারবেন না বলে সাকিবরা হতাশ। বাংলাদেশ দলের অধিকাংশ ক্রিকেটার আর্জেন্টিনার ভক্ত। ব্রাজিল দলের সমর্থকও আছেন কেউ কেউ। কে কোন দলকে সমর্থন জানাবেন বিশ্বকাপে? লিখেছেন জ্যোতির্ময় মণ্ডল

মাশরাফির প্রিয় ম্যারাডোনার দেশ

দিয়েগো ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনা। মাশরাফি মুর্তজার প্রিয় দল। ম্যারাডোনার কারণেই আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করেন বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক। তবে এই আর্জেন্টিনা নিয়ে খুব বেশি আশা নেই তার। মাশরাফি বলেন, ‘ছোটবেলা থেকে আমি আর্জেন্টিনার সমর্থক। আমি ম্যারাডোনাকে পছন্দ করি। গতবার বিশ্বকাপ জিততে পারেনি তারা। এবার মেসির দলের শিরোপা জেতার ভালো সুযোগ রয়েছে। ব্রাজিল, জার্মানি ও স্পেনেরও এবার শিরোপ জেতার সুযোগ আছে। মেসি, নেইমার, রোনাল্ডো বা জার্মানির কেউ সেরা খেলোয়াড় হতে পারে।’

ক্রিকেটের পাশাপাশি ফুটবলও দারুণ পছন্দ করেন মাশরাফি। আর্জেন্টিনার ভক্ত হলেও ব্রাজিলের খেলা দেখতে মিস করেন না। নিজ এলাকায় নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের আওতায় নড়াইলে একাডেমি করেছেন তিনি। যেখানে ক্রিকেটের পাশাপাশি ফুটবলার তুলে আনারও চেষ্টা করে যাচ্ছেন মাশরাফি।

সাকিবও আর্জেন্টিনার সমর্থক

কোচ কোর্টনি ওয়ালশকে যদি প্রশ্ন করা হয়, ফুটবলে তার দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে সেরা স্ট্রাইকার কে? তিনি বলবেন, সাকিব আল হাসান। ফুটবলটাও দারুণ খেলেন সাকিব। শৈশবে ঘুমাতে যেতেন ফুটবল কোলে নিয়ে। বাবা মাশরুর রেজা চেয়েছিলেন ছেলে ফুটবলার হবে। সাকিব হলেন ক্রিকেটার। সাকিব বলেন, ‘আর্জেন্টিনা আমার প্রিয় দল। আমিও চাই প্রিয় দলটাই শিরোপা জিতুক।‘

তামিমের ব্রাজিলপ্রেম

তামিম ইকবালের বাবা ছিলেন ফুটবলার। তামিমের ফুটবলপ্রেম ছোটবেলা থেকে। পেলের দেশ ব্রাজিলের সমর্থক তামিম। আর্জেন্টিনার সমর্থকদের সঙ্গে কথার লড়াইয়ে হারতে চান না। তামিম বলেন, ‘ফুটবল মানেই তো ব্রাজিল। গত বিশ্বকাপটা ব্রাজিলই জিতবে আশা করেছিলাম। জার্মানির কাছে সাত গোল খাওয়ার পর খুবই খারাপ লেগেছিল। আর্জেন্টিনার সঙ্গে ব্রাজিলকে মেলানো যাবে না। এবার নেইমার সেরা খেলোয়াড় হবে।’

বিশ্বকাপে নেই মুশফিকের দল

মুশফিকুর রহিমের মনটা খারাপ। যে দলের সমর্থক তিনি, সেই দলই নেই এবার। গত আসরে মুশফিকের প্রিয় দল নেদারল্যান্ডস আর্জেন্টিনার কাছে হেরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল। মুশফিকের প্রিয় খেলোয়াড় মেসি। তিনি বলেন, ‘আমি যে দলকে সমর্থন করি, দুঃখজনকভাবে সে দল বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করেনি। তবে আমি মেসির ভক্ত। চাই আর্জেন্টিনা অনেক দূরে যাক। মেসির খেলা যেন বেশি দেখতে পারি। সেরা খেলোয়াড়ও যেন তিনিই হন।

মাহমুদউল্লাহর আর্জেন্টিনা

গত আসরে অনেক আশা ছিল আর্জেন্টিনা শিরোপা জিতবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জেতেনি। আশা করি, এবার চ্যাম্পিয়ন হবে আর্জেন্টিনা। মেসি, নেইমার, রোনাল্ডো, সুয়ারেজই বিশ্বকাপ মাতাবে, বলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ব্রাজিলের মতো বেশি শিরোপা জিততে না পারলেও আর্জেন্টিনার খেলার মধ্যে আলাদা জাদু আছে বলে ধারণা তার।

তাসকিনের ব্রাজিল

আমি ব্রাজিল ছাড়া কিছুই বুঝি না। ফুটবলটা দারুণ ভালো লাগে। রাতে আমি বাসায় ফুটবলটাই বেশি দেখি। এই বিশ্বকাপেও ফুটবল দেখব। আমাদের দলে ফুটবল নিয়ে ঝগড়া হয়। আমি ছাড়াও ব্রাজিলের বড় ভক্ত তামিম ভাই। যখন তর্ক শুরু হয় কেউ কাউকে ছাড়ে না। জাতীয় দলের কথা বাদ দেন, আমার বাসায়ও আমি ব্রাজিল নিয়ে অসহায়!

সৌম্য সরকারের পর্তুগাল

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর ভক্ত সৌম্য সরকার। এ কারণে পর্তুগালকে সমর্থন করেন তিনি। চান শিরোপা রোনাল্ডোর হাতেই উঠুক। সৌম্য বলেন, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর কারণে আমি পর্তুগালের সমর্থক। ওদের খেলা দেখি। আমার আরও একটি দল ব্রাজিল। তাদের ফুটবল আসলেই ভালো লাগে।

দু’দলের সমর্থক আবু জায়েদ

এককভাব কাউকে এখনও প্রিয় দল হিসেবে বেছে নিতে পারিনি। মেসির খেলা পছন্দ করি। আগে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচ হলে দেখতাম। একবার ফুটবলে গোলকিপিং করতে গিয়ে চোখের উপরে পাঁচটি সেলাই লেগেছিল। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল মুখোমুখি হলে আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করব। ব্রাজিল যদি অন্য দলের সঙ্গে খেলে তখন ব্রাজিল।

আর্জেন্টিনার ভক্ত মুমিনুল

‘ম্যারাডোনা আমার প্রিয় ফুটবলার। তাকে দেখেই ফুটবল ভালোবাসতে শুরু করি। এখন মেসি। তাদের কারণেই আমি আর্জেন্টিনার সমর্থক। এবার বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থাকায় হয়তো সব ম্যাচ দেখতে পারব না। আর্জেন্টিনার ম্যাচগুলো যাতে মিস না হয়, চেষ্টা করব। এবার আর্জেন্টিনাও ভালো দল।

রুবেলের প্রিয় ব্রাজিল

আমার প্রিয় দল ব্রাজিল। রোনালদো, রোনালদিনহো, কাকা, কার্লোসরা আমার আসল হিরো। এখন নেইমার। এবারও ব্রাজিল অনেক ভালো দল। আশা করছি, শিরোপা নেইমারের হাতেই শোভা পাবে।

ম্যারাডোনা-ভক্ত তুষার

ম্যারাডোনার অন্ধ ভক্ত, সমর্থন করি আর্জেন্টিনাকে। আমি ক্রিকেট খেলি। কিন্তু আমার মন পড়ে থাকে ফুটবলে। ফুটবল খেলাটাই বেশি ভালোবাসি। সারা দিন সুযোগ না পেলেও রাতে খেলা দেখি। আর আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনার ম্যাচ হলে তো কথাই নেই। তবে এবার ব্রাজিলও ভালো দল। জার্মানি সবসময় ফেভারিট।

মোসাদ্দেকের প্রিয় ব্রাজিল

ব্রাজিল আগেরবার সুযোগ হাতছাড়া করেছে। ছোটবেলা থেকেই এই দলটাকে সমর্থন করি। ওরাই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি শিরোপা জিতেছে। ওদের ফুটবল খেলায় জাদু আছে। মনে হয় এবার নেইমারই বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় হবে।

মেসিকে নিয়ে আশায় রাজ্জাক

আর্জেন্টিনার খেলা মিস করি না। মেসি এত ভালো খেলোয়াড়। কিন্তু বিশ্বকাপ জিততে পারেনি। তার সামনে এটাই হয়তো শেষ সুযোগ। গত আসরে সেরা খেলোয়াড় হয়েছিল। এবারও হয়তো হবে। তার হাতে শিরোপা দেখলেই বেশি খুশি হব।

মিরাজের পছন্দ ব্রাজিল

রোনালদিনহো ও কাকা আমার প্রিয় খেলোয়াড়। এখন পছন্দ করি নেইমারকে। সমর্থন করি ব্রাজিলকে। এবারও ব্রাজিল ভালো দল। নেইমারও ভালো করবে।

নাসিরের আর্জেন্টিনা

সাকিব আল হাসানের মতো নাসির হোসেনও ভালো ফুটবল খেলেন। পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়েছে ফুটবল খেলতে গিয়ে। নাসির বলেন, ‘পরিবারের সবাই আর্জেন্টিনার সমর্থক। আমিও তাই। তাদের বিশ্বকাপ জেতার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে। মেসি সেরা খেলোয়াড় হবে।

পতাকা তৈরি করতেন আবু হায়দার

মেসির খেলা ভালো লাগে। নেত্রোকোনায় শৈশবে বড় পতাকা বানাতাম। এখন আর সেটা করা হয় না। সমর্থন করি আর্জেন্টিনাকে। মেসির হাতেই শিরোপা দেখতে চাই।

মার্শালের প্রিয় হলুদ-সবুজ

‘হলুদ আমার প্রিয় দল। মানে ব্রাজিলের খেলা পছন্দ করি। ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিতুক। কিন্তু সেরা খেলোয়াড় হিসেবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে দেখতে চাই আমি।

শামসুরের শুধুই আর্জেন্টিনা

আমার পরিবারের প্রায় সবাই আর্জেন্টিনার সমর্থক। মা শুধু ইতালি সমর্থন করে। দুর্ভাগ্যজনক হল, ইতালি খেলছে না এবার। খেলা দেখার সময় খাওয়া-দাওয়া, হইচই হয়। আমি সবসময় পতাকা লাগাই। উপরে বাংলাদেশের পতাকা, নিচে আর্জেন্টিনার। বাসার ছাদে টানাই। এবারও টানাব।

নুরুল হাসানও আর্জেন্টিনার

‘ম্যারাডোনাকে ভালো লাগত। এখন মেসির খেলা ভালো লাগে। দলটা অনেকদিন শিরোপা জেতে না। এবার তারা শিরোপা জিততে পারলে ভালো লাগবে। মেসিকে সেরা খেলোয়াড় হিসেবে দেখতে চাই।

আবুল হাসান ব্রাজিলের সমর্থক

‘আমার পরিবারের সবাই ব্রাজিল ভক্ত। শুধু বাবা ছাড়া। আমি রোনালদো ও কাকার ভক্ত। শেষবার যখন বিশ্বকাপ পেয়েছিল ব্রাজিল সেবার মিছিল করতে বেরিয়েছিলাম ঢোল নিয়ে। ফুটবল মানেই ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা।

নাজমুল আর্জেন্টিনা

পরিবারের সবাই আর্জেন্টিনার সমর্থক। আমি ম্যারাডোনার খেলা দেখিনি। মেসির খেলা দেখেছি। সেখান থেকেই আমিও আর্জেন্টিনার সমর্থক। যখনই বিশ্বকাপ আসে, ফুটবল নিয়ে রোমাঞ্চ জাগে। গতবার ছাদে আর্জেন্টিনার পতাকা টানিয়েছিলাম।

এনামুলের স্পেন

বাবা ব্রাজিলের সমর্থক। মা স্পেনের। আমার স্পেনের খেলা দেখতে ভালো লাগে। গতবারও তারা ভালো দল ছিল। এবার তাদের ভালো সম্ভাবনা রয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.