বিশ্বকাপ ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে ৫ দল

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৩ জুন ২০১৮, ১৩:১২ | অনলাইন সংস্করণ

নিউজিল্যান্ড, ব্রাজিল,

পানামা ও সৌদি আরব এবার বিশ্বকাপে খেলবে বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ের ৫৫তম এবং ৬৭তম দল হিসেবে। স্বাগতিক রাশিয়াও সৌদি আরবের চেয়ে মাত্র একধাপ উপরে অবস্থান করছে, যা তাদের বিশ্বকাপ ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে স্বাগতিক দল হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিয়েছে।

এবারের পানামা, সৌদি আরব কিংবা রাশিয়ার মতো বিশ্বকাপের ইতিহাসে এমন অনেক দলই খেলেছে। দেখে নেয়া যাক বিশ্বকাপ ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে পাঁচ দল কারা।

জায়ার, ১৯৭৪

আফ্রিকার একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে ১৯৭৪ পশ্চিম জার্মানি বিশ্বকাপে খেলেছিল জায়ার। বাছাইপর্ব উতরে বিশ্বকাপে জায়গা পেলেও তেমন সুবিধা করতে পারেনি আফ্রিকার দেশটি। নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের কাছে ২-০ গোলে হেরে যায় তারা। তাদের খেলোয়াড়রা পরের ম্যাচ খেলতে অস্বীকৃতি জানান। যুগোস্লাভিয়ার বিপক্ষে পরের ম্যাচে সবাই মাঠে নামলেও ২০ মিনিটে গোলরক্ষক পরিবর্তন করে ৫ ফুট ৪ ইঞ্চির বদলি গোলরক্ষককে নামানো হয়। ম্যাচটি যুগোস্লাভিয়া জেতে ৯-০ গোলের ব্যবধানে। জায়ার সরকার ক্ষিপ্ত হয়ে ঘোষণা দেয়, পরের ম্যাচে জায়ার যদি চার কিংবা এর বেশি ব্যবধানে ম্যাচ হারে, তাহলে তাদের দেশে ঢুকতে দেয়া হবে না। নিজেদের পরের ম্যাচে ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে হেরে শাস্তি থেকে রক্ষা পান জায়ারের খেলোয়াড়রা।

নিউজিল্যান্ড, ১৯৮২

১৯৮২ স্পেন বিশ্বকাপে প্রথম বড় মঞ্চে দেখা যায় নিউজিল্যান্ডকে। বাছাইপর্বের ১৫ ম্যাচের নয়টি জিতে ভালো কিছুর আশা নিয়েই স্পেনে পা রেখেছিল কিউইরা। কিন্তু বিশ্বকাপে তারা গ্রুপপর্বে প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় ব্রাজিল, স্কটল্যান্ড এবং সোভিয়েত ইউনিয়নকে। প্রথম ম্যাচে তারা স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৫-২ গোলের বিশাল ব্যবধানে হার মানে। পরের ম্যাচে সোভিয়েত ইউনিয়নের কাছে ৩-০ এবং শেষ ম্যাচে ব্রাজিলের বিপক্ষে ৪-০ গোলে হেরে বিশ্বকাপ প্রথম অভিযান শেষ করে। বিশ্বকাপ খেলতে তাদের এরপর অপেক্ষা করতে হয়েছে ২০১০ সাল পর্যন্ত।

এল সালভেদর, ১৯৮২

১৯৭০ বিশ্বকাপে প্রথম অংশগ্রহণ করা সালভেদর লজ্জার শিকার হয় ১৯৮২ বিশ্বকাপে। নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে হাঙ্গেরির বিপক্ষে ১০-১ গোলে হেরে বিশ্বকাপের রেকর্ড বুকে নাম লেখায় এল সালভেদর। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটিই সবচেয়ে বড় ব্যবধানে হার। প্রথমার্ধে ৩-০ গোলে পিছিয়ে থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে এল সালভেদরকে নিয়ে গোল উৎসবে মেতে ওঠে হাঙ্গেরিয়ানরা। নিজেদের বাকি দুটি ম্যাচে বেলজিয়ামের কাছে ১-০ এবং আর্জেন্টিনার কাছে ২-০ গোলে হেরে যায় তারা।

সৌদি আরব, ২০০২

সৌদি আরবের জন্য বিশ্বকাপ খেলতে পারাটাই অনেক বড় অর্জন। ২০০২ বিশ্বকাপে তারা সুযোগ পেয়েছিল টানা তৃতীয়বারের মতো। তাই সেবার দলটিকে নিয়ে আশায় বুক বাঁধে সমর্থকরা। কিন্তু উদ্বোধনী ম্যাচেই তাদের ৮-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারায় জার্মানি। সৌদি সমর্থকদের আশা চূর্ণ হয়ে যায়। নিজেদের পরের দুটি ম্যাচে ক্যামেরুনের কাছে ১-০ এবং আয়ারল্যান্ডের কাছে ৩-০ গোলে হেরে বিশ্বকাপ অভিযান শেষ করে সৌদি আরব।

উত্তর কোরিয়া, ২০১০

উত্তর কোরিয়া যখন দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করল, তখন তাদের র‌্যাংকিং ১০৫। নিজেদের প্রথম ম্যাচে ব্রাজিলের বিপক্ষে ২-১ গোলে হারে তারা। তারপরই বিশাল এক ধাক্কা। পর্তুগালের কাছে ৭-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারে উত্তর কোরিয়া। শেষ ম্যাচে আইভোরি কোস্টের কাছে ৩-০ গোলে হেরে বিশ্বকাপ শেষ করে এশিয়ার দেশ।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter