এবার নারী ফুটবলারদের বেতন বাড়ানোর আশ্বাস
jugantor
এবার নারী ফুটবলারদের বেতন বাড়ানোর আশ্বাস

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:১৪:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

গত সোমবার কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে সাফের ফাইনালে স্বাগতিক নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার শিরোপা জিতে নেয় বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল।

পাঁচবারের শিরোপাজয়ী ভারতের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে সাফে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। সাবিনা খাতুনদের ঐতিহাসিক এই জয়ে সারা দেশ এখন উচ্ছ্বসিত।

দেশের মুখ উজ্জ্বল করা নারী ফুটবলাররা মাসিক সম্মানী হিসেবে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা পেয়ে থাকেন। তাদের বেতন বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন।

বৃহস্পতিবার কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সদস্যরা। সেখানেই বাফুফে-বস বেতন বাড়ানোর কথা বলেছেন।

এ ব্যাপারে সাফজয়ী অধিনায়ক সাবিনা বলেন, আমাদের তো চাওয়ার শেষ নেই। মূলত ফ্যাসিলিটিজ ও সম্মানীর বিষয়ে কথা বলেছি। সভাপতি স্যার আমাদের বিষয়টি বাস্তবায়ন করবেন বলে জানিয়েছেন। আমরা একটা অঙ্ক বলেছি, ফেডারেশন সেটা দেখবে।

প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে নারী ফুটবলারদের সঙ্গে আছেন গোলাম রব্বানী ছোটন। তিনি জানিয়েছেন, বেতন বাড়লে বাসায় সম্মানও বাড়বে।

এমনটি জানিয়ে ছোটন বলেন, আমরা দিনের অধিকাংশ সময় ফুটবল নিয়েই থাকি। বাসায় মেহমান হিসেবেই থাকি। মাস শেষে আমাদের সম্মানী বাড়লে বাসায় সম্মানও বাড়বে। সাবিনাদের সঙ্গে আমাদের বিষয়টিও সভাপতি মহোদয় বিবেচনা করবেন বলে জানিয়েছেন।

এবার নারী ফুটবলারদের বেতন বাড়ানোর আশ্বাস

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গত সোমবার কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে সাফের ফাইনালে স্বাগতিক নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার শিরোপা জিতে নেয় বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। 

পাঁচবারের শিরোপাজয়ী ভারতের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে সাফে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। সাবিনা খাতুনদের ঐতিহাসিক এই জয়ে সারা দেশ এখন উচ্ছ্বসিত। 

দেশের মুখ উজ্জ্বল করা নারী ফুটবলাররা মাসিক সম্মানী হিসেবে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা পেয়ে থাকেন। তাদের বেতন বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন।

বৃহস্পতিবার কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সদস্যরা। সেখানেই বাফুফে-বস বেতন বাড়ানোর কথা বলেছেন। 

এ ব্যাপারে সাফজয়ী অধিনায়ক সাবিনা বলেন, আমাদের তো চাওয়ার শেষ নেই। মূলত ফ্যাসিলিটিজ ও সম্মানীর বিষয়ে কথা বলেছি। সভাপতি স্যার আমাদের বিষয়টি বাস্তবায়ন করবেন বলে জানিয়েছেন। আমরা একটা অঙ্ক বলেছি, ফেডারেশন সেটা দেখবে।

প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে নারী ফুটবলারদের সঙ্গে আছেন গোলাম রব্বানী ছোটন। তিনি জানিয়েছেন, বেতন বাড়লে বাসায় সম্মানও বাড়বে।

এমনটি জানিয়ে ছোটন বলেন, আমরা দিনের অধিকাংশ সময় ফুটবল নিয়েই থাকি। বাসায় মেহমান হিসেবেই থাকি। মাস শেষে আমাদের সম্মানী বাড়লে বাসায় সম্মানও বাড়বে। সাবিনাদের সঙ্গে আমাদের বিষয়টিও সভাপতি মহোদয় বিবেচনা করবেন বলে জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন