টি-টোয়েন্টিতে যে বিশ্বরেকর্ড শুধুই পাকিস্তানের
jugantor
টি-টোয়েন্টিতে যে বিশ্বরেকর্ড শুধুই পাকিস্তানের

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:০১:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

এশিয়া কাপে সুপার ফ্লপ হয়ে ও শিরোপা নিয়ে ফিরতে না পারায় পাকিস্তানে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন বাবর আজম।

অন্যদিকে টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েও কম স্ট্রাইকরেটের কারণে তেতো কথা শুনতে হয়েছে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে।

আর তাই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ওপেনিংয়ে বাবর-রিজওয়ান জুটির পরিবর্তনের দাবি ওঠে পাকিস্তানে।

গত কয়েক দিন ধরে চলা সেসব সমালোচনার দাঁতভাঙা জবাব এবার মাঠেই দিলেন বাবর ও রিজওয়ান।

শুধু জবাবই দিলেন না, গড়ে ফেললেন এমন এক বিশ্বরেকর্ড যা পাকিস্তান দল ছাড়া আর কারও নেই।

বৃহস্পতিবার করাচিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ২০০ রান তাড়া করে ১০ উইকেটের অবিশ্বাস্য জয় পেয়েছে পাকিস্তান। ওপেনিংয়ে নেমে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়েই মাঠে ছাড়েন বাবর আজম ও রিজওয়ান। ২০৩ রানের জুটি গড়েন তারা, যেখানে পাকিস্তান অধিনায়কের অবদান ৬৬ বলে ১১০* আর রিজওয়ানের ৫১ বলে হার না মানা ৮৮ রান।

এমন দুর্দান্ত জুটি গড়ে দারুণ এক বিশ্বরেকর্ড গড়েছে পাকিস্তান। সেটি হলো— টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে পাওয়া ১০ উইকেটের জয়। বিনা উইকেটে এরচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জয়ের আর কোনো রেকর্ড নেই।

বৃহস্পতিবারের ম্যাচের পর এ রেকর্ডে দ্বিতীয় অবস্থানে চলে গেছে নিউজিল্যান্ড। পাকিস্তানের বিপক্ষেই ২০১৬ সালে হ্যামিল্টনে ১৬৯ তাড়ায় ১০ উইকেটে জিতেছিলেন কিউইরা। ওপেনিংয়ে নেমে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন মার্টিন গাপটিল আর কেন উইলিয়ামসন।

তৃতীয় রেকর্ডটিও পাকিস্তানের। সেটি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে। ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৫২ রান তাড়া করে দলকে বিনা উইকেটে জিতিয়েছিল এই বাবর-রিজওয়ান জুটিই।

অর্থাৎ টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রানের তাড়ায় ১০ উইকেটে জয়ের রেকর্ডে প্রথম তিনটিতেই পাকিস্তানের নাম জড়িয়ে।

টি-টোয়েন্টিতে যে বিশ্বরেকর্ড শুধুই পাকিস্তানের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:০১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এশিয়া কাপে সুপার ফ্লপ হয়ে ও শিরোপা নিয়ে ফিরতে না পারায় পাকিস্তানে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন বাবর আজম। 

অন্যদিকে টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েও কম স্ট্রাইকরেটের কারণে তেতো কথা শুনতে হয়েছে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে।

আর তাই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ওপেনিংয়ে বাবর-রিজওয়ান জুটির পরিবর্তনের দাবি ওঠে পাকিস্তানে।

গত কয়েক দিন ধরে চলা সেসব সমালোচনার দাঁতভাঙা জবাব এবার মাঠেই দিলেন বাবর ও রিজওয়ান।

শুধু জবাবই দিলেন না, গড়ে ফেললেন এমন এক বিশ্বরেকর্ড যা পাকিস্তান দল ছাড়া আর কারও নেই।

বৃহস্পতিবার করাচিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ২০০ রান তাড়া করে ১০ উইকেটের অবিশ্বাস্য জয় পেয়েছে পাকিস্তান। ওপেনিংয়ে নেমে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়েই মাঠে ছাড়েন বাবর আজম ও রিজওয়ান। ২০৩ রানের জুটি গড়েন তারা, যেখানে পাকিস্তান অধিনায়কের অবদান ৬৬ বলে ১১০* আর রিজওয়ানের ৫১ বলে হার না মানা ৮৮ রান।

এমন দুর্দান্ত জুটি গড়ে দারুণ এক বিশ্বরেকর্ড গড়েছে পাকিস্তান।  সেটি হলো— টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে পাওয়া ১০ উইকেটের জয়। বিনা উইকেটে এরচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জয়ের আর কোনো রেকর্ড নেই।  

বৃহস্পতিবারের ম্যাচের পর এ রেকর্ডে দ্বিতীয় অবস্থানে চলে গেছে নিউজিল্যান্ড।  পাকিস্তানের বিপক্ষেই ২০১৬ সালে হ্যামিল্টনে ১৬৯ তাড়ায় ১০ উইকেটে জিতেছিলেন কিউইরা। ওপেনিংয়ে নেমে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন মার্টিন গাপটিল আর কেন উইলিয়ামসন।

তৃতীয় রেকর্ডটিও পাকিস্তানের। সেটি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে।  ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৫২ রান তাড়া করে দলকে বিনা উইকেটে জিতিয়েছিল এই বাবর-রিজওয়ান জুটিই।

অর্থাৎ টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রানের তাড়ায় ১০ উইকেটে জয়ের রেকর্ডে প্রথম তিনটিতেই পাকিস্তানের নাম জড়িয়ে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন