মেসিকে দেখতে সাইকেলে কেরালা থেকে রাশিয়া!

  যুগান্তর ডেস্ক ২১ জুন ২০১৮, ১৮:১৩ | অনলাইন সংস্করণ

মেসি
মেসি ও ক্লিফিন ফ্রান্সিস।

ঘটনাটা গত বছরের আগস্টের। এক অবসর সময়ে ক্লিফিন ফ্রান্সিসকে তার বন্ধু জিজ্ঞেস করেন, বিশ্বকাপে মেসিকে দেখতে রাশিয়া যাবে কিনা? কৌতুকের ছলেই ফ্রান্সিস উত্তরে করেছিলেন, ‘অবশ্যই। কে বলতে পারে আমি রাশিয়া যাব না।’

পেশায় ফ্রিল্যান্স গণিত শিক্ষক ক্লিফিন সেদিন জানতেনও না কীভাবে তার কথা বাস্তবে ফলে যাবে! দিনে ৪০ ডলার আয় করা এ দক্ষিণ ভারতীয় যুবক স্বপ্নের নায়ক লিওনেল মেসিকে দেখতে রাশিয়া পাড়ি দিয়েছেন। তবে বিমানে করে নয়, সাইকেলে চেপে!

কীভাবে মাথায় চাপল এই ভূত? ক্লিফিন বলছেন, ‘আমি চিন্তা করলাম রাশিয়ায় যাওয়া আর এক মাস সেখানে থাকার জন্য আমার যথেষ্ট টাকা নেই। তারপরই নিজেকে প্রশ্ন করতে থাকি তাহলে কম অর্থে কি উপায় হতে পারে? সেই উত্তর হলো বাইসাইকেল।’ চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় ক্লিফিনের মহাকাব্যিক যাত্রা! শুরুতে দুবাই পর্যন্ত বিমানযাত্রা। এরপর ফেরি করে ইরান। তারপর সেখান থেকে ২ হাজার ৬০০ মাইল সাইকেলে চেপে রাশিয়ায়। এত কষ্ট করে যাত্রা পাড়ি দেয়ার পুরস্কার ক্লিফিন পাবেন হাতেনাতেই। সেটি হলো মেসির সাক্ষাৎ, ‘আমি সাইক্লিং ভালোবাসি। আর আমি ফুটবল বলতে পাগল। আমি শুধু এই স্বপ্নের যোগসাজশ ঘটিয়েছি।’

‘আমি সমর্থন করি আর্জেন্টিনা এবং লিওনেল মেসি আমার প্রিয়। তাকে পুজো করি আমি। তার সঙ্গে দেখা করা আর তাকে আমার সাইকেলে একটা অটোগ্রাফ দেয়ার কথা বলাটাই আমার স্বপ্ন।’ পথে অম্ল-মধুর দুই স্মৃতি আছে ক্লিফিনের। দুবাইয়ে ৭০০ ডলার খরচ করে নতুন সাইকেল কিনতে হয়েছে। আটকে ছিলেন জর্জিয়ার নো-ম্যান্স ল্যান্ডে। সবচেয়ে মধুর স্মৃতিটা এসেছে ইরানে। ইরান সম্পর্কে যে ধারণা ছিল, সেটা বদলে গেছে ক্লিফিনের, ‘ইরান বিশ্বের চমৎকার একটি দেশ এবং মানুষগুলোও চমৎকার। ৪৫ দিন ওখানে কাটিয়েছি। অথচ এর মধ্যে হোটেলে ছিলাম মাত্র দুদিন।’ বেশির ভাগ সময়ই ইরানিরা ক্লিফিনকে নিজেদের বাড়িতেই রেখেছেন। অবশ্য প্রতিশ্রুতিও আদায় করে নিয়েছেন। বিশ্বকাপে যেন ইরানকে সমর্থন করেন ক্লিফিন।

একদিন ভারতও বিশ্বকাপ খেলবে বলে বিশ্বাস ক্লিফিনের। সেদিন তার কষ্ট সার্থক হবে বলে বিবিসিকে বলেছেন এ ভারতীয় যুবক। ওয়েবসাইট।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter