শোর প্রচারের জন্যই কি শোয়েব-সানিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জন?
jugantor
শোর প্রচারের জন্যই কি শোয়েব-সানিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জন?

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৬ নভেম্বর ২০২২, ১১:২১:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

সেলিব্রেটি জুটি শোয়েব মালিক ও সানিয়া মির্জার ১২ বছরের দাম্পত্য জীবন ভাঙনের দোড়গোড়ায়—এমন খবর গত কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে।

শোয়েবের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে দুই দেশেরই একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছিল, তাদের নাকি বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে। তারা আলাদা থাকছেন।

যদিও এ গুঞ্জন নিয়ে শোয়েব-সানিয়ার কেউ এখনও মুখ খোলেননি।

তবে এবার বলা হচ্ছে— বিচ্ছেদের গুঞ্জন নিছকই গুজব। শোয়েব আর সানিয়া নিজেরাই আলোচনায় থাকার জন্য এই গুঞ্জন ছড়াক চেয়েছেন। নতুন শোর প্রচারের জন্যই তারা নাকি এ রকম করেছেন।

শিগগিরই পাকিস্তানি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম উর্দু ফ্লিক্সে ‘দ্য মির্জা মালিক টক শো’ নিয়ে আসছেন এ জুটি। রিয়েলিটি এই শো ইতোমধ্যে দারুণ আলোচনার জন্ম দিয়েছে। দুজনেই খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর ‘অবসর পরিকল্পনা’ হিসেবে এই প্রথম কোনো রিয়েলিটি শোর উপস্থাপক হিসেবে দেখা দিচ্ছেন।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে গুজব আর বিতর্ক ছড়িয়ে সিনেমার প্রচারণার ধারণা বহু পুরনো। প্রায়ই বলিউডের সিনেমার নায়ক-নায়িকাদের প্রেমের গুজব শোনা যায়। শোয়েব-সানিয়াও এ কৌশল অবলম্বন করেছেন বলে এখন প্রচার চলছে।

কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, বিচ্ছেদের গুঞ্জনের আগে ‘দ্য মির্জা-মালিক শো’ তো দূরের কথা, উর্দু ফ্লিক্সেরও তেমন পরিচিতি ছিল না। কিন্তু এখন শোয়েব-সানিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জনের পর এ শোতে বাড়তি আকর্ষণ যোগ হয়েছে।

এমনকি যে ফটোশুট নিয়ে চলছে আলোচনা, সেটিও ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর সংখ্যার। সেখানে শোয়েবের সঙ্গে আয়েশা ওমর নামে যে পাকিস্তানি অভিনেত্রী, গায়িকা ও স্টাইল আইকন ফ্রেম ভাগ করছেন, তাকে নিয়েও চলেছে শেমিং। যদিও শোয়েব আর আয়েশাকে এর পর কোথাও কফি খেতে, বেড়াতে যেতে দেখা যায়নি।

আয়েশার কারণেই আলাদা হচ্ছেন শোয়েব-সানিয়া? এমন খবরই ছড়িয়েছিল চারদিকে। তাই বাধ্য হয়ে সম্প্রতি আয়েশা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক ভক্তের এমন প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ‘জি না। প্রশ্নই আসে না। শোয়েব তার স্ত্রীর সঙ্গে অনেক খুশিতে আছে। আমি আর শোয়েব ভালো বন্ধু। আমি শোয়েব আর সানিয়া দুজনকেই খুব সম্মান করি।’

‘ব্যাড নিউজ ইজ গুড নিউজে’র মতো বিনোদন জগতে ‘নেগেটিভ পাবলিসিটি ইজ গুড পাবলিসিটি’— একটি কথা রয়েছে। বিচ্ছেদের গুঞ্জনের মাধ্যমে শোয়েব–সানিয়া এমনটিই করেছেন।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেন সানিয়া। সেখানে শোয়েবের কোনো নামগন্ধ নেই। এ ছবিও প্রশ্ন তুলে দিয়েছে, তারা একসঙ্গে থাকছেন কিনা, তা নিয়ে।

ইনস্টাগ্রামে একটি স্টোরিতে সানিয়া লিখেছিলেন, ভাঙা হৃদয় কোথায় যায়? আল্লাহকে খুঁজতে।

ভারতের অন্যতম সেরা টেনিস তারকা ছেলের সঙ্গে একটি ছবিও পোস্ট করেন। তাতে দেখা যাচ্ছে, ইজহান তাকে চুমু খাচ্ছে। সেই সঙ্গে সানিয়া লিখেছিলেন— যে মুহূর্তগুলো কঠিন সময় পার করে দেয়।

এর পরই দুদেশের জনপ্রিয় এ তারকাদের নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।

শোর প্রচারের জন্যই কি শোয়েব-সানিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জন?

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৬ নভেম্বর ২০২২, ১১:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সেলিব্রেটি জুটি শোয়েব মালিক ও সানিয়া মির্জার ১২ বছরের দাম্পত্য জীবন ভাঙনের দোড়গোড়ায়—এমন খবর গত কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে। 

শোয়েবের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে দুই দেশেরই একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছিল, তাদের নাকি বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে। তারা আলাদা থাকছেন।

যদিও এ গুঞ্জন নিয়ে শোয়েব-সানিয়ার কেউ এখনও মুখ খোলেননি। 

তবে এবার বলা হচ্ছে— বিচ্ছেদের গুঞ্জন নিছকই গুজব। শোয়েব আর সানিয়া নিজেরাই আলোচনায় থাকার জন্য এই গুঞ্জন ছড়াক চেয়েছেন। নতুন শোর প্রচারের জন্যই তারা নাকি এ রকম করেছেন।  

শিগগিরই পাকিস্তানি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম উর্দু ফ্লিক্সে ‘দ্য মির্জা মালিক টক শো’ নিয়ে আসছেন এ জুটি। রিয়েলিটি এই শো ইতোমধ্যে দারুণ আলোচনার জন্ম দিয়েছে। দুজনেই খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর ‘অবসর পরিকল্পনা’ হিসেবে এই প্রথম কোনো রিয়েলিটি শোর উপস্থাপক হিসেবে দেখা দিচ্ছেন।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে গুজব আর বিতর্ক ছড়িয়ে সিনেমার প্রচারণার ধারণা বহু পুরনো। প্রায়ই বলিউডের সিনেমার নায়ক-নায়িকাদের প্রেমের গুজব শোনা যায়। শোয়েব-সানিয়াও এ কৌশল অবলম্বন করেছেন বলে এখন প্রচার চলছে।  

কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, বিচ্ছেদের গুঞ্জনের আগে ‘দ্য মির্জা-মালিক শো’ তো দূরের কথা, উর্দু ফ্লিক্সেরও তেমন পরিচিতি ছিল না। কিন্তু এখন শোয়েব-সানিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জনের পর এ শোতে বাড়তি আকর্ষণ যোগ হয়েছে।  

এমনকি যে ফটোশুট নিয়ে চলছে আলোচনা, সেটিও ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর সংখ্যার। সেখানে শোয়েবের সঙ্গে আয়েশা ওমর নামে যে পাকিস্তানি অভিনেত্রী, গায়িকা ও স্টাইল আইকন ফ্রেম ভাগ করছেন, তাকে নিয়েও চলেছে শেমিং। যদিও শোয়েব আর আয়েশাকে এর পর কোথাও কফি খেতে, বেড়াতে যেতে দেখা যায়নি। 

আয়েশার কারণেই আলাদা হচ্ছেন শোয়েব-সানিয়া? এমন খবরই ছড়িয়েছিল চারদিকে। তাই বাধ্য হয়ে সম্প্রতি আয়েশা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক ভক্তের এমন প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ‘জি না। প্রশ্নই আসে না। শোয়েব তার স্ত্রীর সঙ্গে অনেক খুশিতে আছে। আমি আর শোয়েব ভালো বন্ধু। আমি শোয়েব আর সানিয়া দুজনকেই খুব সম্মান করি।’

‘ব্যাড নিউজ ইজ গুড নিউজে’র মতো বিনোদন জগতে ‘নেগেটিভ পাবলিসিটি ইজ গুড পাবলিসিটি’— একটি কথা রয়েছে। বিচ্ছেদের গুঞ্জনের মাধ্যমে শোয়েব–সানিয়া এমনটিই করেছেন। 

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেন সানিয়া। সেখানে শোয়েবের কোনো নামগন্ধ নেই। এ ছবিও প্রশ্ন তুলে দিয়েছে, তারা একসঙ্গে থাকছেন কিনা, তা নিয়ে।

ইনস্টাগ্রামে একটি স্টোরিতে সানিয়া লিখেছিলেন, ভাঙা হৃদয় কোথায় যায়? আল্লাহকে খুঁজতে।

ভারতের অন্যতম সেরা টেনিস তারকা ছেলের সঙ্গে একটি ছবিও পোস্ট করেন। তাতে দেখা যাচ্ছে, ইজহান তাকে চুমু খাচ্ছে। সেই সঙ্গে সানিয়া লিখেছিলেন— যে মুহূর্তগুলো কঠিন সময় পার করে দেয়। 

এর পরই দুদেশের জনপ্রিয় এ তারকাদের নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।   
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন