ইংল্যান্ডের বিস্ময়কর রূপান্তরের কারিগর গুয়ারডিওলা!

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৬ জুন ২০১৮, ০৫:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

ইংল্যান্ড,

বিশ্বকাপ এলেই থ্রি লায়নদের নিয়ে ইংলিশ মিডিয়ার মাত্রাতিরিক্ত মাতামাতি ফুটবলপ্রেমীদের জন্য বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অথচ শেষ পর্যন্ত দেখা যায়, পর্বতের মুষিক প্রসব! গত দুই আসরে তো গ্রুপপর্বই পেরোতে পারেনি ইংল্যান্ড।

এবার তাই জাতীয় দল নিয়ে ইংলিশ মিডিয়ার উৎসাহে ভাটা পড়েছে। তেমন কোনো হাঁকডাক শোনা যাচ্ছে না। প্রত্যাশার চাপ না থাকায় ইংল্যান্ডের তারুণ্যনির্ভর দলটি উপভোগের মন্ত্র জপে দারুণ খেলছে রাশিয়া বিশ্বকাপে। টানা দু’ম্যাচ জিতে নিশ্চিত করে ফেলেছে শেষ ষোলোর টিকিট।

অধিনায়ক হ্যারি কেন দুই ম্যাচে করেছেন পাঁচ গোল। আর অনবদ্য হ্যাটট্রিকে রোববার পানামাকে ৬-১ গোলে চূর্ণ করে এবারের আসরের সবচেয়ে বড় জয় তুলে নিয়েছে ইংল্যান্ড। থ্রি লায়নদের এমন মুগ্ধতা ছড়ানো পারফরম্যান্সে প্রশংসায় ভাসছেন দলের তরুণ কোচ গ্যারেথ সাউথগেট।

তবে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কার চোখে ইংল্যান্ডের বিস্ময়কর রূপান্তরের পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান পেপ গুয়ারডিওলার! ম্যানসিটির স্প্যানিশ কোচই নাকি সুন্দর ফুটবল শিখিয়েছেন ইংলিশদের। সেটা কীভাবে, সেই ব্যাখ্যায় পরে আসা যাবে। কাকতাল না হয়ে বিশ্বকাপে ‘গুয়ারডিওলা ইফেক্ট’ যদি ভবিতব্য প্রমাণিত হয়, নিঃসন্দেহে সিটি কোচকে পূজার বেদিতে বসাতেও আপত্তি করবে না ইংলিশরা।

বিশ্বকাপের বছরে গুয়ারডিওলা যে দেশের ঘরোয়া লীগে কোচিং করান, সে দেশই চ্যাম্পিয়ন হয়। সেই ধারাবাহিকতায় এবার ইংল্যান্ডেরই বিশ্বকাপ জেতার কথা! ব্যাপারটিকে হেসে উড়িয়ে দেয়ার উপায় নেই। ২০১০ সালে স্পেনের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের বছরে স্প্যানিশ লিগে বার্সেলোনার কোচ ছিলেন গুয়ারডিওলা। সেবার স্পেনের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে বার্সার খেলোয়াড়দের অবদানই ছিল বেশি।

গুয়ারডিওলার ‘তিকিতাকা’ ফুটবল দর্শন ধার করেই বাজিমাত করে লা রোহারা। বার্সা ছেড়ে ২০১৩ সালে জার্মানির ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখের দায়িত্ব নেন গুয়ারডিওলা। পরের বছর ব্রাজিলে বিশ্বকাপ জিতল জার্মানি। একেই বলে ‘গুয়ারডিওলা ইফেক্ট’! স্পেনের মতো জার্মানি দলেও সেবার সবচেয়ে বেশি খেলোয়াড় ছিলেন গুয়ারডিওলার ক্লাবের। বায়ার্ন কোচের পাসিং ফুটবলের ছোঁয়া ছিল জার্মানির খেলায়।

গুয়ারডিওলা এখন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের কোচ। দু’বছর আগে তিনি ম্যানসিটির দায়িত্ব নেয়ার পর শুধু সিটি নয়, লিগের খেলার মানও বেড়েছে। সিটি গতবার লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় সাফল্যের অব্যর্থ রেসিপি হিসেবে গুয়ারডিওলার আক্রমণাÍক ফুটবল দর্শনে আস্থা রেখেছেন সাউথগেট। ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে আছেন গুয়ারডিওলার চার শিষ্য। যাদের একজন জন স্টোন্স পানামার বিপক্ষে করেছেন জোড়া গোল।

পানামার বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ২৫ পাসের শেষ গোলটিতেও অনেকে খুঁজে পেয়েছেন গুয়ারডিওলার প্রভাব। তবে মাত্র দুই ম্যাচের পারফরম্যান্সেই ইংল্যান্ডকে আগাম চ্যাম্পিয়ন বানিয়ে দেয়াটা বাড়াবাড়িই হবে। সময়ই বলে দেবে ‘গুয়ারডিওলা ইফেক্ট’ কাকতাল নাকি ভবিতব্য

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter