সালাহর নামই ছিল না!

প্রকাশ : ২৬ জুন ২০১৮, ০৫:১০ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

সৌদি আরবের বিপক্ষে টিমশিটে সালাহর নামই ছিল না! চেচনিয়ার নাগরিকত্ব পেয়েছেন। তা নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক উঠেছে। মোহাম্মদ সালাহ খুব বিরক্ত। বিশ্বের একটি বড় সংবাদ মাধ্যম খবর করে দিল, মিসরের পক্ষে আর খেলবেন না তাদের অমিত প্রতিভার ফুটবলার সালাহ! মিসর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানাল এ খবরের। কিন্তু সৌদি আরবের বিপক্ষে সোমবার মিসরের শেষ ম্যাচের টিমশিট দেখে সবাই চমকে গেলেন। ওখানে যে সালাহর নামই নেই! কারণটা কি! রাজনৈতিক এ বিতর্কের কোনো প্রভাব?

রাশিয়া সমর্থিত চেচেন নেতা রমজান কাদিরভ চেচনিয়াকে তার লৌহকঠিন হাতে শাসন করেন। বিতর্কিত তিনি। তার ওখানেই ১৯৯০ সালের পর আবার বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া মিসরের ব্যাজ পরে। ক’দিন আগে চেচেন নেতা কাদিরভ মিসর দলের জন্য ডিনারের আয়োজন করেন। মাঠেও তাকে দেখা যায় সালাহর সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে ছবির জন্য পোজ দিতে। এরপর সালাহকে অনারারি সিটিজেনশিপের ডিক্রি ও সনদ দেয়া হয় কাদিরির আয়োজিত ডিনারে।

বিতর্ক ওঠে। ততদিনে প্রথম দুই ম্যাচ হেরে বিশ্বকাপের গ্রুপ ‘এ’-এর দল সালাহর মিসর বাদ পড়ে গেছে। বাকি শুধু সৌদি আরবের বিপক্ষের ম্যাচটি। তার আগেই বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার এবং এ সময়ের সেনসেশন সালাহকে নিয়ে খবরে বিতর্ক।

প্রথম ম্যাচটি তিনি খেলতে পারেননি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পাওয়া চোট থেকে পুরো সেরে উঠতে না পারায়। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচটি খেললেন।

ততটা ছন্দে ছিলেন না। তারপরও পেনাল্টি থেকে বিশ্বকাপে নিজের প্রথম গোলটি করেছিলেন। এরপর আরবদের বিপক্ষে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে মিসরের শেষ ম্যাচে তাদের টিমলিস্টে সালাহর নাম না দেখে সবার তো চক্ষু চড়কগাছ! তার নামের জায়গায় ছিল আমর ওয়ারদার নাম। তাহলে কি সালাহর আন্তর্জাতিক ফুটবল ছাড়ার কথা বিবেচনা করার খবর সত্য? নাকি ইনজুরি সমস্যা? মিসর দল অবশ্য দ্রুতই এ ভুল শুধরে নিয়েছে।