ভাইরাল ভিডিও নিয়ে যা বললেন সাকিব
jugantor
ভাইরাল ভিডিও নিয়ে যা বললেন সাকিব

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৮ আগস্ট ২০১৮, ১১:৪৭:২২  |  অনলাইন সংস্করণ

গেল সোমবার তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ডিএল পদ্ধতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৯ রানে হারিয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ ঘরে তোলে বাংলাদেশ। এ নিয়ে দীর্ঘ ৬ বছর পর বিদেশের মাটিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জেতে টাইগাররা। সেই আনন্দের মাঝে পর দিন হোটেলের লবিতে অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম দেন সাকিব আল হাসান।  রাগে-ক্ষোভে ফেটে এক ভক্তের দিকে তেড়ে যান অধিনায়ক। করেন কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত। মুহূর্তেই সেই দৃশ্য ভাইরাল হয়ে যায়।

তবে কেন ওই ভক্তের সঙ্গে অসদাচরণ করেন সাকিব-তার সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছিল না। যতদূর জানা যায়, ভক্তের অশালীন মন্তব্যের জেরে এ রকম আচরণ প্রদর্শন করেন তিনি। অবশেষে নিজেই তা খোলাসা করলেন টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। 

ফেসবুকে নিজের অফিশিয়াল পেজে লম্বা বিবৃতি দিয়েছেন সাকিব। যুগান্তর অনলাইন পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হল- আমার প্রিয় ভক্ত এবং অনুসারীদের উদ্দেশ্য করে কিছু কথা বলতে চাই। সম্প্রতি আমাকে নিয়ে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে। যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর লবিতে আমাকে এবং আমার একজন তথাকথিত ‘ফ্যান’ এর সঙ্গে তর্কবিতর্ক করতে দেখা যায়। এই ক্লিপটি সম্পূর্ণ ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, যা প্রকৃত ঘটনা প্রকাশ করে না।

পর পর ম্যাচ থাকায় আমি এবং আমার সহকর্মী বেশ ক্লান্ত ছিলাম। আমরা আমাদের রুমে ফিরে যাচ্ছিলাম। আমরা আমাদের নিজস্ব সরঞ্জাম ও ব্যাগ বহন করছিলাম। তাই আমাদের হাত পূর্ণ ছিল, যা কোনোভাবেই অটোগ্রাফ দেয়ার অবস্থায় ছিল না। আমরা সর্বদাই আমাদের ভক্তদের সঙ্গে সময় কাটাতে পছন্দ করি এবং তাদের সঙ্গে ছবি তুলে, অটোগ্রাফ দিয়ে মুহূর্তগুলো ভাগ করে নেয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু ভক্তদেরও বুঝতে হবে যে, আমরাও মানুষ। আমরা মাঠে একটা বিজয় অর্জনের জন্য প্রাণপণে লড়াই করি। আমাদের কি ব্যস্ত কিংবা ক্লান্ত অনুভব করার অনুমতি নেই? আমরা আপনাদের সমর্থন বুঝি এবং প্রশংসা করি সবসময় এবং চেষ্টা করি আপনাদের সমর্থনের প্রতিদান যেন আমরা মাঠে ভালো খেলার মাধ্যমে দিতে পারি। কিন্তু মাঝে মাঝে আমাদের এই কঠিন পরিশ্রম এবং কঠোর চেষ্টার সঙ্গে সবসময় নিজেকে গুছিয়ে রাখা কষ্টকর হয়ে পড়ে।

আমার আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ থাকবে যে আমাদের মধ্যে কেউ যদি আপনাদের অনুরোধ না রাখতে পারি, তবে তা ব্যক্তিগতভাবে নেবেন না। কারণ আমরা যে পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি তা হয়তো আপনি যা দেখছেন তা থেকে ভিন্ন হতে পারে। হুটহাট আমাদের পরিস্থিতি বিবেচনা না করে কিংবা আমরা কেমন মুডে আছি তা বোঝার চেষ্টা ছাড়াই কোনো সিদ্ধান্ত বা মতামত দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন না। আমি আমার ভক্তদের অসম্ভব ভালোবাসি এবং আমি মাঠে তাদের জন্যই খেলি সেটি জাতীয় দলে হোক কিংবা কোনো লিগের জন্য হোক। একই সঙ্গে আমি আমার ভক্তদের কাছ থেকে সম্মান, ভালোবাসা এবং তারা আমাকে বুঝবে এমনটিই আশা করি। আমি জানি, যারা হয়তো আমাকে ফলো করে অথবা করে না, কিন্তু সর্বদা ছোট ছোট বিষয়ে আমাকে নিচু করতে পছন্দ করে। তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই- আমাদের থেকে ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে হলে এই নিচু মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। প্রত্যেকটা ম্যাচে আমরা এমনিতেই অনেক বেশি চাপে থাকি। নতুন কোনো চাপ প্রয়োগ না করার জন্য বিশেষ অনুরোধভাবে করা হল। আর এই মানসিকতার বাইরে যারা আছে আমি সর্বদা তাদের পাশে আছি।

সবার জন্য আমার তরফ থেকে ভালোবাসা রইল– সাকিব।

ভাইরাল ভিডিও নিয়ে যা বললেন সাকিব

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৮ আগস্ট ২০১৮, ১১:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গেল সোমবার তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ডিএল পদ্ধতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৯ রানে হারিয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ ঘরে তোলে বাংলাদেশ। এ নিয়ে দীর্ঘ ৬ বছর পর বিদেশের মাটিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জেতে টাইগাররা। সেই আনন্দের মাঝে পর দিন হোটেলের লবিতে অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম দেন সাকিব আল হাসান। রাগে-ক্ষোভে ফেটে এক ভক্তের দিকে তেড়ে যান অধিনায়ক। করেন কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত। মুহূর্তেই সেই দৃশ্য ভাইরাল হয়ে যায়।

তবে কেন ওই ভক্তের সঙ্গে অসদাচরণ করেন সাকিব-তার সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছিল না। যতদূর জানা যায়, ভক্তের অশালীন মন্তব্যের জেরে এ রকম আচরণ প্রদর্শন করেন তিনি। অবশেষে নিজেই তা খোলাসা করলেন টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক।

ফেসবুকে নিজের অফিশিয়াল পেজে লম্বা বিবৃতি দিয়েছেন সাকিব। যুগান্তর অনলাইন পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হল- আমার প্রিয় ভক্ত এবং অনুসারীদের উদ্দেশ্য করে কিছু কথা বলতে চাই। সম্প্রতি আমাকে নিয়ে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে। যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর লবিতে আমাকে এবং আমার একজন তথাকথিত ‘ফ্যান’ এর সঙ্গে তর্কবিতর্ক করতে দেখা যায়। এই ক্লিপটি সম্পূর্ণ ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, যা প্রকৃত ঘটনা প্রকাশ করে না।

পর পর ম্যাচ থাকায় আমি এবং আমার সহকর্মী বেশ ক্লান্ত ছিলাম। আমরা আমাদের রুমে ফিরে যাচ্ছিলাম। আমরা আমাদের নিজস্ব সরঞ্জাম ও ব্যাগ বহন করছিলাম। তাই আমাদের হাত পূর্ণ ছিল, যা কোনোভাবেই অটোগ্রাফ দেয়ার অবস্থায় ছিল না। আমরা সর্বদাই আমাদের ভক্তদের সঙ্গে সময় কাটাতে পছন্দ করি এবং তাদের সঙ্গে ছবি তুলে, অটোগ্রাফ দিয়ে মুহূর্তগুলো ভাগ করে নেয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু ভক্তদেরও বুঝতে হবে যে, আমরাও মানুষ। আমরা মাঠে একটা বিজয় অর্জনের জন্য প্রাণপণে লড়াই করি। আমাদের কি ব্যস্ত কিংবা ক্লান্ত অনুভব করার অনুমতি নেই? আমরা আপনাদের সমর্থন বুঝি এবং প্রশংসা করি সবসময় এবং চেষ্টা করি আপনাদের সমর্থনের প্রতিদান যেন আমরা মাঠে ভালো খেলার মাধ্যমে দিতে পারি। কিন্তু মাঝে মাঝে আমাদের এই কঠিন পরিশ্রম এবং কঠোর চেষ্টার সঙ্গে সবসময় নিজেকে গুছিয়ে রাখা কষ্টকর হয়ে পড়ে।

আমার আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ থাকবে যে আমাদের মধ্যে কেউ যদি আপনাদের অনুরোধ না রাখতে পারি, তবে তা ব্যক্তিগতভাবে নেবেন না। কারণ আমরা যে পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি তা হয়তো আপনি যা দেখছেন তা থেকে ভিন্ন হতে পারে। হুটহাট আমাদের পরিস্থিতি বিবেচনা না করে কিংবা আমরা কেমন মুডে আছি তা বোঝার চেষ্টা ছাড়াই কোনো সিদ্ধান্ত বা মতামত দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন না। আমি আমার ভক্তদের অসম্ভব ভালোবাসি এবং আমি মাঠে তাদের জন্যই খেলি সেটি জাতীয় দলে হোক কিংবা কোনো লিগের জন্য হোক। একই সঙ্গে আমি আমার ভক্তদের কাছ থেকে সম্মান, ভালোবাসা এবং তারা আমাকে বুঝবে এমনটিই আশা করি। আমি জানি, যারা হয়তো আমাকে ফলো করে অথবা করে না, কিন্তু সর্বদা ছোট ছোট বিষয়ে আমাকে নিচু করতে পছন্দ করে। তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই- আমাদের থেকে ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে হলে এই নিচু মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। প্রত্যেকটা ম্যাচে আমরা এমনিতেই অনেক বেশি চাপে থাকি। নতুন কোনো চাপ প্রয়োগ না করার জন্য বিশেষ অনুরোধভাবে করা হল। আর এই মানসিকতার বাইরে যারা আছে আমি সর্বদা তাদের পাশে আছি।

সবার জন্য আমার তরফ থেকে ভালোবাসা রইল– সাকিব।