সাব্বিরের সমস্যাটা কোথায়...

  স্পোর্টস রিপোর্টার ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

সাব্বির রহমান রুম্মন
সাব্বির রহমান রুম্মন-ফাইল ছবি

সাম্প্রতিক সময়ের বাজে পারফরম্যান্সের পাশাপাশি একের পর এক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে সাব্বির রহমান রুম্মনের বিরুদ্ধে। একজন তারকা ক্রিকেটার হয়েও অপ্রত্যাশিত কর্মকাণ্ড করে যাচ্ছেন তিনি।

২০১৬ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) চলার সময় চট্টগ্রামে নিজের হোটেল কক্ষে ‘নারী অতিথি’ নিয়ে রাত্রিযাপন করার অপরাধে সাব্বিরকে মোটা অঙ্কের জরিমানা করা হয়েছিল।

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে জাতীয় লিগের ম্যাচ চলাকালীন ‘ম্যাও’ বলার অপরাধে এক কিশোরকে মাঠের সাইড স্কিনের পাশে নিয়ে বেধড়ক প্রহার করেন সাব্বির।

চলতি বছরের জুনে ভারতের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ চলা অবস্থায় মামুলি বিষয় নিয়ে সতীর্থ মেহেদি হাসান মিরাজের সঙ্গে হাতাহাতিরও অভিযোগ আছে সাব্বিরের বিরুদ্ধে।

শুধু তাই নয়, গত জুলাই মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ চলার সময় ফেসবুকে দুই সমর্থককে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন সাব্বির। এসব কারণে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাকে তলব করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ করে।

কেন একের পর এক শৃঙ্খলা ভঙ্গের মতো কাজ করে যাচ্ছেন সাব্বির। এ প্রসঙ্গে শনিবার বিসিবির শৃঙ্খলা কমিটির অন্যতম সদস্য ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, গাইডেন্সের কথা বলব। বন্ধুবান্ধব যাদের সঙ্গে চলে, তাদের কারণে হতে পারে। বোর্ডপ্রধান কঠোর হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। ভবিষ্যতে আরও কড়া শাস্তি দেয়া হতে পারে। তখন হয়তো ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও সে দীর্ঘমেয়াদে নিষিদ্ধ থাকতে পারে।

তার শাস্তি প্রসঙ্গে বিসিবির এ পরিচালক বলেন, সম্প্রতি ফেসবুকের একটা ঘটনার কারণে তাকে ডাকা হয়েছে। সে বলেছে, তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছিল। তার যাবতীয় কার্যকলাপকে বিবেচনা করেছি, তাকে সতর্ক করা হয়েছে। সে ছয় মাস আন্তর্জাতিক দলে খেলতে পারবে না। এই সুপারিশ বোর্ড প্রেসিডেন্টকে পাঠানো হবে। তিনি অনুমোদন দিলে, আগামীকাল থেকেই এটি কার্যকর হবে।

সে কি ফেসবুকের বিষয়টি স্বীকার করেছে? এমন প্রশ্নের জবাবে মল্লিক বলেন, সে বলেছে হ্যাক হয়েছিল। বাকি কার্যকলাপের বিষয়ে সে কিছু বিষয় স্বীকার করেছে। ওই বিষয়ে তাকে নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে এ রকম কিছু ঘটলে তাকে দীর্ঘমেয়াদে নিষিদ্ধ করা হতে পারে।

আগের শাস্তিগুলো বড় হলে সে শোধরাতে পারত বলে মনে করেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে বিপিএল গভর্নিং বডির এ সদস্যসচিব বলেন, আগে সে দেড় কোটি টাকার শাস্তি পেয়েছে। কেউ নিজেকে শোধরায়, কেউ শোধরায় না। একটা কথা বলতে পারি, বোর্ড সভাপতি ক্লিয়ারভাবে বলে দিয়েছেন, শৃঙ্খলা ভঙ্গের শাস্তি কঠোর হবে। যে শাস্তিগুলো দেয়া হচ্ছে, তা বোর্ডের আলোচনার আলোকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×