তামিমের এক হাতের কাছে হেরেছে লংকা

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:১১ | অনলাইন সংস্করণ

এক হাতে বল মোকাবেলা করছেন তামিম ইকবাল।
এক হাতে বল মোকাবেলা করছেন তামিম ইকবাল।

সবাই ধরে নিয়েছিলেন, ২২৯ এই গুটিয়ে গেল টাইগাররা। হতাশ হয়ে টিভি সেট থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে চেয়েছিলেন অনেকেই।

যদিও লেজের ব্যাটসম্যানদের ওপাশে রেখে মুশফিক তো শতক হাঁকিয়েছিলেনই, তবে ২২৯ রান! বিশ্বকাপজয়ী একটি দলের জন্য মোটেই চ্যালেঞ্জিং স্কোর নয়।

কিন্তু হঠাৎ ক্রিড়ামোদীদের বিস্ময়। সবাই দেখল, হাতে ব্যান্ডেজ নিয়ে নামছেন তামিম! দুবাইয়ের হাজারো প্রবাসী বাংলাদেশির চোখ চকচক করে উঠল।

এক হাতে ব্যাট ধরে ক্রিজে দাঁড়ালেন তামিম। দায়িত্ব শুধু সেঞ্চুরিয়ান মুশফিককে সঙ্গ দেয়া। ব্যস এতেই কাজ হয়ে গেল।

কতটা পেশাদারিত্ব থাকলে গুরুতর ইনজুরি নিয়েও দলের প্রয়োজনে ব্যাটিংয়ে নামা যায়- তার নজির স্থাপন করলেন তামিম ইকবাল।

২২৯ রানে ৯ উইকেটের পতন ঘটিয়ে সুখের ঢেকুর যখন তুলছিলেন মালিঙ্গারা, ঠিক তখনই দেশের ১ নম্বর ব্যাটসম্যান নাম লেখালেন ১১ নম্বরে।

ক্রিকেটবোদ্ধাদের বক্তব্য, বাংলাদেশের এ কৌশলটাই বদলে দিয়েছে পুরো ম্যাচের চেহারা।

তামিমের এমন দেশপ্রীতি, এমন পেশাদ্বারিত্বের কাছেই হেরে গেছে হাথুরুসিংহের দল।

তামিম এক হাতে ব্যাটে বল ছুঁয়েই যখন ১ রানের জন্য দৌড়ে গেলেন অপরপ্রান্তে সামাজিকমাধ্যম ভেসে গেল তখন তামিম বন্দনায়।

ফেসবুকের নিউজফিড ভেসেছে স্ট্যাটাসের বন্যায়-

* ম্যাচ হারলেও দুঃখ নেই। তামিম হৃদয় জিতে নিয়েছে।

* রান না করেও কী করে স্কোরবোর্ড সমৃদ্ধ করতে হয় তা দেখিয়ে দিলেন তামিম।

* জয়ের স্বাদ তামিমের দেশপ্রেমেই পেয়ে গেছি।

এভাবেই ম্যাচসেরা মুশফিকের দুর্দান্ত হার না মানা ১৪৪ রানের ইনিংসটিকে পাশ কাটিয়ে অনন্য উচ্চতায় গিয়ে পৌঁছেছে ওয়ান হ্যান্ডেড তামিম।

এদিকে তামিমের চোট এতটাই গুরুতর যে, এশিয়া কাপ এলেই শেষ কিনা, সে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

তবে ওয়ান হ্যান্ডেড তামিমের প্যাশনের কাছেই যে হেরেছে রাবনের লংকা, সে কথাই বলছে ক্রিকেটবিশ্ব।

তামিমের এক হাতের ব্যাটিং এর ভিডিও দেখুন:

ঘটনাপ্রবাহ : এশিয়া কাপ ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×