হাশমতের ব্যাটে আফগানদের চ্যালেঞ্জ

  স্পোর্টস ডেস্ক ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

হাশমতউল্লাহ শহীদি
হাশমতউল্লাহ শহীদি-ছবি ক্রিকইনফো

দুর্ভাগ্য হাশমতউল্লাহ শহীদির। ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরির সুযোগ পেয়েও তা হাতছাড়া করেন ২৩ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। মাত্র ৩ রানের জন্য শতরানের দেখা পাননি তিনি। তার ক্যারিয়ার সেরা ৯৭ এবং আসগর স্টানিকজাইয়ের ৬৭ রানের ইনিংসে ভর করে ৭ উইকেটে ২৫৭ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে শূন্য রানে ওপেনার ফখর জামানের উইকেট হারিয়েছে পাকিস্তান। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাকিস্তানের সংগ্রহ ১০ ওভারের খেলা শেষে ১ উইকেটে ৩৬ রান।

আফগানিস্তানের উন্নতি চোখে পড়ার মতো। নবীন হয়েও শক্তিশালী দলের মতোই খেলছে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। চলমান এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বের দুই খেলায় শ্রীলংকা ও বাংলাদেশকে বড় ব্যবধানে পরাজিত করেছে আফগানরা।

সুপার ফোরেও পাকিস্তানের বিপক্ষেও অসাধারণ ক্রিকেট খেলে যাচ্ছে যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগান ক্রিকেটাররা।

শুক্রবার আবুধাবিতে এশিয়া কাপের সুপার ফোরের দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে আফগানিস্তান।

ইনিংসের শুরুতে ৩১ রানে দুই ওপেনারের উইকেট হারিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয়ে পড়ে যাওয়া আফগানিস্তানকে খেলায় ফেরান রহমত শাহ ও হাশতউল্লাহ। তৃতীয় উইকেটে ৬৩ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফেরেন রহমত শাহ (৩৬)।

এরপর অধিনায়ক আসগর স্টানিকজাইকে সঙ্গে নিয়ে ১০৪ রানের জুটি গড়েন হাশমতউল্লাহ। সাম্প্রতিক সময়ে অফ ফর্মে থাকা আফগান অধিনায়ক পাকিস্তানের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে অসাধারণ ইনিংস খেলেন। তার ৬৭ রানের ইনিংসটি ৫৬ বলে পাঁচটি ছক্কা ও দুটি চারে সাজানো।

এরপর সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি এবং নজিবউল্লাহ জাদরান ৭ ও ৫ রানে ফিরে গেলেও ইনিংসের শেষ পর্যন্ত খেলে যান হাশমতউল্লাহ। ১১৮ বল খেলে সাত চারের সাহায্যে ৯৭ রান করেন তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : এশিয়া কাপ ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×