ইমরুল-মাহমুদউল্লাহর প্রশংসায় অধিনায়ক

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

মাহমুদউল্লাহ,

অবিশ্বাস্য বোলিং করেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। শেষ ওভারে আফগানিস্তানকে ৪ রানের বেশি তুলতে দেননি তিনি। বাংলাদেশকে ৩ রানের রোমাঞ্চকর জয় এনে দেয়ার কারিগর কাটার মাস্টারই।

তবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও ইমরুল কায়েসকে আড়ালে ফেলে দিলে চলবে না। এর ভিতটা কিন্তু তাদেরই তৈরি। দুজনের প্রশংসা করতে ভুলেননি টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। মোস্তাফিজের মতো তাদেরও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তিনি।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে নাটকীয় জয়ের পর এ ত্রয়ীর উচ্চসিত প্রশংসা ঝরে পড়ল মাশরাফির কণ্ঠে। পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে তিনি বলেন, ম্যাচ শেষে এককথায় বলব, মোস্তাফিজ জাদুকরের মতো বল করেছে। শেষ ওভারে সে ছিল ম্যাজিসিয়ান। এরকম বহু ম্যাচ আছে যেগুলোর শেষ মুহূর্তে ৮-৯ রান দরকার হলেও আমরা জিততে পারিনি। তবে এ ম্যাচে আমরাই প্রতিপক্ষকে সেই ৮ রানেই আটকে দিলাম। সে শেষ পর্যন্ত ম্যাচ ছেড়ে দেয়নি।

টাইগার অধিনায়ক বলেন, শেষ তিনটি বল খুবই ভালো করেছে সাকিব। এরপরই আমরা মোস্তাফিজকে নিয়ে আসি। তাকে উইকেট নেয়ার চেষ্টা করতে বলি। কারণ, ওই মুহূর্তে ব্যাটসম্যানরা হিট করতে গেলে মিসিং হতে পারে। আমরা পুরো ১০ ওভারই বোলিং করাতে চেয়েছিলাম। তবে পায়ে টান পেয়েছিল। যে কারণে তা হয়ে উঠেনি। এমনকি ইয়র্কার পর্যন্ত দিতে পারেনি।

সবশেষে মাহমুদউল্লা-ইমরুলের প্রশংসা করেন মাশরাফি, সবার আগে এ জয়ের কৃতিত্ব দিতে হবে তাদের (ইমরুল ও মাহমুদউল্লাহ)। তারা দু’জন অসাধারণ ব্যাটিং করেছেন। সেটি না হলে হয়তো এ বিজয় সম্ভব হতো না।

ঘটনাপ্রবাহ : এশিয়া কাপ ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter