মেঘ ছাড়াই ‘ভুতুড়ে’ বৃষ্টি!

  যুগান্তর ডেস্ক ২৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

শনির চাঁদ টাইটানের উত্তর মেরুতে বৃষ্টি
শনির চাঁদ টাইটানের উত্তর মেরুতে বৃষ্টি। ছবি: নাসা

নীল আকাশের মেঘ জমলেই তা বৃষ্টি হয়ে নামবে এটাই প্রকৃতিগত।

তবে আকাশে নেই কোনো মেঘ অথচ ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি নেমেছে। এমন কথা বৈজ্ঞানিকভাবে অবিশ্বাস্য।

তাহলে কোথায় আর কীভাবে মেঘ ছাড়াই নামল ভুতুড়ে বৃষ্টি!

নাসা জানিয়েছে, পৃথিবী নয় শনিগ্রহের চাঁদ টাইটানে ঘটেছে এমন ঘটনা।

বৃষ্টি হতে হলে যে আকাশে মেঘ জমতে হবে এমন নিয়মের ধার ধারে না টাইটান।

টাইটানের উত্তর মেরুতে গ্রীষ্মকালে মেঘ ছাড়াই আকাশ ঝেঁপে নামে বৃষ্টি।

তবে নাসা জানিয়েছে, আমাদের বৃষ্টির মতো পানি নয় টাইটানের আকাশ থেকে ঝড়ে পড়ে তরল মিথেন।

আর টাইটানের আকর্ষণবল পৃথিবীর আটভাগ হওয়ায় তা নেমে আসে আমাদের বৃষ্টির তুলনায় ধীরেধীরে।

নাসার ‘ক্যাসিনি’ মহাকাশযানের পাঠানো ছবি ও তথ্য থেকে এসব খবর জানা গেছে ও

‘ক্যাসিনি’ মহাকাশযানের তথ্য অনুযায়ী, ওই ভুতুড়ে বৃষ্টির পরে টাইটানের উত্তর মেরুতে শীতকাল চলে গিয়ে গ্রীষ্ম চলে আসে।

তবে তা আকাশের ঠিক কোথা থেকে নেমে আসছে, কেন নেমে আসছে, জানা যায়নি।

এ বিষয়ে নাসায় কর্মরত ভারতীয় বিজ্ঞানী রজনী ধিংড়া জানাচ্ছেন, টানা ১৩ বছর শনি ও টাইটানকে পর্যবেক্ষণ করছে ক্যাসিনি মহাকাশযান।

ওই ১৩ বছরে বড়জোর সাত থেকে আটবার এমন মিথেন বৃষ্টির দেখা পেয়েছে ক্যাসিনি। ইতিমধ্যে আমেরিকান জিওফিজিক্যাল ইউনিয়নের আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান-জার্নাল ‘জিওফিজিক্যাল রিসার্চ লেটার্স’-এ ‘ক্যাসিনি’র পাঠানো তথ্য বিশ্লেষণ করে একটি গবেষণাপত্র ছাপা হয়েছে।

তবে মেঘ ছাড়া টাইটানের এই ভুতুড়ে বৃষ্টি কোথা থেকে ঝড়ে সে বিষয়ে এখনও ব্যাখ্যা দিতে পারেনি নাসার বিজ্ঞানীরা।

প্রসঙ্গত, পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের সঙ্গে শনির চাঁদ টাইটানের বায়ুমণ্ডলের মিল বেশ মিল রয়েছে। টাইটানে পৃষ্ঠ পৃথিবীর মতোই পাথুরে।

এমনকি পৃথিবীর শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষার মতো রয়েছে টাইটানেও ঋতু আবর্তিত হয়। তবে পৃথিবীর কয়েক বছর মিলে সেখানে একটা ঋতু হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×