অ্যামটবের নতুন সেক্রেটারি এস এম ফরহাদ

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৯ মার্চ ২০১৯, ১৯:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

অ্যামটবের নতুন সেক্রেটারি এস এম ফরহাদ। ছবি: যুগান্তর
অ্যামটবের নতুন সেক্রেটারি এস এম ফরহাদ। ছবি: যুগান্তর

অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশের (অ্যামটব) নতুন সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম ফরহাদ, এসএসপি, বিজিবিএম, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি (অবসরপ্রাপ্ত)। তিনি আগের সেক্রেটারি জেনারেল টিআইএম নূরুল কবীরের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

অ্যামটব এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, জেনারেল ফরহাদ তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি জগতে সুপরিচিত ব্যক্তি; যার নীতি প্রণয়ন, পরিকল্পনা, সংগঠন এবং বাস্তবায়নে বিশেষ দক্ষতা আছে। দীর্ঘ ৩৪ বছরের চাকরি জীবনে তিনি ডিজিএফআই ও বিজিবির পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালনসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সবশেষ ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিগনালস বিভাগের পরিচালক হিসেবে।

অ্যামটবের প্রেসিডেন্ট মাইকেল প্যাট্রিকফোলি বলেন, অ্যামটবের নতুন প্রধান হিসেবে জেনারেল ফরহাদের নাম ঘোষণা করতে পেরে আমি খুব আনন্দিত। তিনি একজন দক্ষ নেতা, তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ, স্ট্রাটেজিস্ট এবং অবসরপ্রাপ্ত অভিজ্ঞসেনা কর্মকর্তা।

মাইকেল ফোলি বলেন, আমরা খুব আশাবাদী যে জেনারেল ফরহাদের নেতৃত্বে দেশের মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটরদের সঙ্গে এর বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার বিশেষকরে সরকারি নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হবে। যেহেতু তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিকম খাত দেশের একটি প্রধান চালিকা শক্তি, তাই সরকারের সঙ্গে এই সম্পর্ক প্রকৃতপক্ষে ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিশন ও চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সাহায্য করবে।

চাকরি জীবনে জেনারেল ফরহাদ বিভিন্ন সামরিক খেতাবে ভূষিত হয়েছেন যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো সম্মানজনক সেনা পারদর্শিতা পদক এবং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ মেডেল (বিজিবির সর্বোচ্চ পদক)। তিনি ২০১২ সালে মোবাইলফোন গ্রাহকদের সিম নিবন্ধনে গুরুত্বপূর্ণভূমিকা পালন করেন।

এস এম ফরহাদ ১৯৮৪ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগ দেন এবং দেশে-বিদেশে বিভিন্ন সামিরিক কোর্স ও প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেন। এর পাশাপাশি তিনি স্ট্রাটেজিক স্টাডিজ, মিলিটারি সিকিউরিটি স্টাডিজ ও ডিফেন্স স্টাডিজ নিয়ে তিনটি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

প্রসঙ্গত, অ্যামটব দেশের সবগুলো মোবাইল টেলিযোগাযোগ অপারেটর নিয়ে গঠিত সংগঠন। দেশের মোবাইল টেলিযোগাযোগ খাতের মুখপত্র হিসেবে অ্যামটব সংশ্লিষ্ট সরকারি সংস্থা, নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, নাগরিক সমাজ, প্রযুক্তিগত সংস্থা, গণমাধ্যম এবং অন্যান্য জতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে কাজ করে থাকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×