মশা মারতে মশা উৎপাদন করছে গুগল!

  যুগান্তর ডেস্ক ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

মশা মারতে মশার উৎপাদন করছে গুগল!

মশার আতংকে ভুগছে বিশ্ববাসী। বিশেষকরে উপমহাদেশে মশার উপদ্রবটা অবর্ণণীয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, মশার কামড়ে বিশ্বে বছরে ১০ লাখেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়।

যে কারণে মশা নিধনে নানা ধরণের প্রযুক্তি তৈরিতে ব্যস্ত বিজ্ঞানীরা।

তবে মশা নির্মূল করতে এবার অদ্ভুত এক পরিকল্পনা নিয়েছে গুগল। তারা জানিয়েছে, মশা মারতে মশার আরও প্রজনন ঘটাতে হবে।

বিশ্বখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট সম্প্রতি এমন অদ্ভুত কর্মপদ্ধতি ঠিক করছে।

২০১৭ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেস্নোতে মশার বংশ নিধনে ‘ডিবাগ প্রজেক্ট' নামে একটি প্রকল্প শুরু করেছিল আলফাবেট পরিচালিত একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান।

সেই প্রকল্পে ক্যালিফোর্নিয়ার একটি গবেষণাগারে মশার উৎপাদন শুরু হয়।

ওই গবেষণায় তৈরি করা হয় ওলবাখিয়া নামের ব্যাকটেরিয়ায় সংক্রামিত পুরুষ মশা। এসব পুরুষ মশাকে স্ত্রী মশাদের সঙ্গে মিলিত হতে ছেড়ে দেয়া হয়। এতে ওইসব পুরুষ মশার সংস্পর্ষে এসে স্ত্রী মশারা বন্ধ্যা হয়ে যায় এবং মশার বংশবৃদ্ধি আস্তে আস্তে কমে আসে।

গত ছয় মাসে এ কার্যক্রমের অধীনে ডিবাগ ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেস্নোতে ১৫ মিলিয়নেরও বেশি সংক্রামিত মশার জন্ম দিয়ে তাদের ছেড়ে দিয়েছে।

এর ফলে স্ত্রী মশার জনসংখ্যা দুই তৃতীয়াংশ হ্রাস পেয়েছে বলে দাবি করছেন প্রকল্পের বিজ্ঞানীরা।

এ বিষয়ে ডিবাগ তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, এই পদ্ধতি মশার প্রজনন দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনবে। আমাদের শুরুটা ভালোই হয়েছে। কিন্তু এখনও অনেক কাজ বাকি। আমরা বেশ কিছু কমিউনিটির সঙ্গে কাজ করতে উন্মুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×