হোয়াটসঅ্যাপের এজেন্ট স্মিথ যেভাবে গোপন তথ্য চুরি করে

  মাহতাবুর রহমান মাসুম ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৮:৩৯ | অনলাইন সংস্করণ

হোয়াটসঅ্যাপ লোগো
হোয়াটসঅ্যাপ লোগো

আধুনিক যুগে আমরা যতই পা রাখছি ততই প্রযুক্তির নতুন নতুন ধাপ ব্যবহার করছি।এর মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ একটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে রেখেছে। তবে এটি ব্যবহারে সতর্ক না হলে হোয়াটসঅ্যাপে এজেন্টে স্মিথের থাবায় চুরি হয়ে যেতে পারে আপনার গোপনীয় তথ্য।

আপনার মোবাইলে হোয়াটসঅ্যাপ চালু করলেই কী অজানা কোনো বিজ্ঞাপন বারবার উঁকি দিচ্ছে পপ আপে? যদি তাই হয়ে থাকে তাহলে সাবধান! আপনার মোবাইল ঢুকে পরছে এজেন্ট স্মিথ। এজেন্ট স্মিথ হচ্ছে একটি ম্যালওয়ার ভাইরাস। অত্যন্ত শক্তিশালী একটি ভাইরাস আর বর্তমানে এই ভাইরাসটি টার্গেট করছে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলোকে। ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়াই এবং সম্পূর্ণ অজান্তে হোয়াটসঅ্যাপে ঢুকে পড়ে ম্যালওয়ারটি।

হোয়াটসঅ্যাপ খুললেই চলে আসছে বিজ্ঞাপন, বারবার উঁকি দিচ্ছে পপ-আপ। যেভাবে এই ম্যালওয়ার জাল বিস্তার করছে, তাতে উদ্বিগ্ন হওয়া স্বাভাবিক। কারণ, ব্যবহারকারীর অজান্তেই স্মার্টফোনে প্রবেশ করে এ ম্যালওয়ার। এরপর হোয়াটসঅ্যাপের সঙ্গে জুড়ে যায় এজেন্ট স্মিথ। ফলে যে কোনো মুহূর্তে ফোন থেকে চুরি যেতে পারে গুরুত্বপূর্ণ ও গোপনীয় তথ্য।

যেমন ২০১৭ সালে বিশ্বজুড়ে ত্রাস সৃষ্টি করেছিল ওয়ানাক্রাই, পেটিয়ার মতো র‌্যানসমওয়্যার বা কম্পিউটার ভাইরাস। বিশ্বের শতাধিক দেশে হামলা করেছিল কম্পিউটার ভাইরাস ‘ওয়ানাক্রাই’। র‌্যানসমওয়্যার বা কম্পিউটার ভাইরাস যার মাধ্যমে হ্যাকাররা কোনো ব্যক্তি বা সংস্থার কম্পিউটার সিস্টেমের সমস্ত ফাইল হ্যাক করে সেটা লক করে দেয়।

ফলে ব্যবহারকারী ওই কম্পিউটার আর ব্যবহার করতে পারেন না। ফাইল খোলা বা আনলকের জন্য মোটা ‘মুক্তিপণ’ চাওয়া হয়। একমাত্র ‘র‌্যানসম’ বা মুক্তিপণ মেটানো হলে তবেই কম্পিউটার ফের সচল করা হয়।

কী করে বুঝবেন আপনার হোয়াটসঅ্যাপ সুরক্ষিত কিনা। মেসেজিং অ্যাপটি খুললেই যদি স্ক্রিনে বিজ্ঞাপন ভেসে ওঠে তবে তা হল সর্বপ্রথম সিগন্যাল। কারণ হোয়াটসঅ্যাপের স্ট্যান্ডার্ড ভার্সনে কোনো বিজ্ঞাপন আসে না। যদি এমন বিজ্ঞাপন পান তবে মোবাইলের অ্যাপের তালিকায় গিয়ে দেখুন তো গুগল আপডেটার বা গুগল ইনস্টলারের মতো কোনো সন্দেহজনক অ্যাপ জেঁকে বসেছে কিনা। তেমন দেখলে তাৎক্ষণিক সেই সন্দেহজনক অ্যাপ খুঁজে তা আনইনস্টল করুন।

যদি এমন অ্যাপ খুঁজে না পান, তাহলে সদ্য ইনস্টল হওয়া সবকটি অ্যাপই আনইনস্টল করে দিন। সেই সঙ্গে মোবাইল থেকে সরিয়ে ফেলুন হোয়াটসঅ্যাপ। এরপর গুগল প্লে স্টোর থেকে ফের হোয়াটসঅ্যাপ ডাউনলোড করে ইনস্টল করুন। তবে মেসেজিং অ্যাপটি আনইনস্টল করার আগে চ্যাটের ব্যাক আপ রাখতে ভুলবেন না।

লেখক আইটি বিশেষজ্ঞ

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×