দেশে ৪ হাজার মোবাইল টাওয়ার দিল ইডটকো বাংলাদেশ

প্রকাশ : ২৮ জুলাই ২০১৯, ২১:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

  আইটি ডেস্ক

ফাইল ছবি

টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইডটকো দেশে ৪ হাজারটি টাওয়ার কো-লোকেশন্স সম্পন্ন করেছে। ২০১৩ সাল থেকে শুরু করে গত গত ৬ বছরে তারা এ কাজ সম্পন্ন করেছে। রোববার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় ইডটকো। 

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইডটকো টাওয়ার সেবা খাতে টাওয়ার লিজিং, কো-লোকেশন্স, বিল্ড-টু-স্যুট, এনার্জি, ট্রান্সমিশন এবং অপারেশন্স ও মেইন্ট্যানেন্স বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করে আসছে।

ইডটকো বিডির কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাহুল চৌধুরী বলেন, 'দেশের টেলিযোগাযোগ শিল্পের উন্নয়ন এবং সরকারের ডিজিটালাইজেশনের লক্ষ্য পূরণের এই অর্জন আমাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। অবকাঠামো সেবা ভাগ করে নেয়ার মাধ্যমে আমরা মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটরদের ভারি ইকুইপমেন্ট ব্যবহারের মতো বিষয়গুলো দূর করে দিতে পেরেছি। এর ফলে তারা মূল পরিসেবাসমূহে মনোনিবেশ করতে পেরেছে এবং গ্রাহকদের কাছে সেবা পৌঁছে দিতে পেরেছে। '

পরবর্তী প্রজন্মের শেয়ারিং প্রযুক্তির মাধ্যমে ৫জি-এর চাহিদা পূরণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে কাজ করতে ইডটকো অঙ্গীকারাবদ্ধ বলেও তিনি জানান।

তিনি আরও বলেন, 'ইডটকো ২০১৭ সালে সর্বপ্রথম বাঁশ দিয়ে টাওয়ার তৈরি করে প্রমাণ করেছে বিকল্প উপকরণ ব্যবহার করে টেকসই উন্নয়নকে কীভাবে এগিয়ে নেয়া যায়। এর ফলে ৭০ শতাংশ কার্বন নিঃসরণ হ্রাস হয়েছে। এ পর্যন্ত ১৫টি বাঁশের টাওয়ার স্থাপন করেছে ইডটকো। গ্রুপের আওতায় ইডটকো অপারেশন্সের অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোর সম্ভাব্য জায়গাগুলোতে আমরা কার্বন ফাইবার টাওয়ার স্থাপন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানি অন্তর্ভুক্ত করেছি। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালে প্রতিটি টাওয়ার সাইটে ৫৪ শতাংশ কম কার্বন নিঃসরণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করেছি।'

ইডটকো বর্তমানে বাংলাদেশে ১০ হাজার নিজস্ব মোবাইল টাওয়ার পরিচালনা করছে। এ ছাড়াও ইডকোর অপারেশন্স রয়েছে এমন ছয়টি দেশে ২৯ হাজার ৩০০-এরও বেশি টাওয়ার পরিচালনা করছে।