বেসিস নির্বাচনে নির্দিষ্ট সময়ের পর মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার অভিযোগ

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ মার্চ ২০১৮, ১৪:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

বেসিস নির্বাচনে নির্দিষ্ট সময়ের পর মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার অভিযোগ

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) নির্বাচন ২০১৮-২০২০ সালের নির্বাচন কমিশন নির্দিষ্ট সময়ের পর মনোনয়নপত্র কেনা ও জমা দেয়ার মতো অনিয়ম হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার বেসিস নির্বাচন কমিশন চেয়ারম্যান বরাবর এ অভিযোগপত্র দিয়েছেন সফট পার্কের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং আসন্ন নির্বাচনে অ্যাসোসিয়েট ক্যাটাগরীর পদপ্রার্থী দেলোয়ার হোসেন ফারুক।

তিনি অভিযোগপত্রে লিখেছেন, ‘আমি বেসিস নির্বাচন কমিশন কর্তৃক প্রদত্ত সময় সীমার শেষ দিন সকাল ১০.১৫ ঘটিকা থেকে বিকাল ৫.০০ ঘটিকা পর্যন্ত বেসিস সচিবালয়ে অবস্থান করি। বিকাল ৫.০০ ঘটিকায় সচিবালয় ত্যাগ করার মুহুর্তে ফরম বিক্রি ও জমা নেওয়ার জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুগ্ধাকে ফরম জমা নেওয়ার সর্বশেষ অবস্থা জানতে চাইলে তিনি আমাকে অ্যাসোসিয়েট ক্যাটাগরীতে ৫টি ও জেনারেল ক্যাটাগরীতে ৩৪টি ফরম জমা হওয়ার বিষয়টি জানান।’

এ সময় তাঁর সাথে সুটিং স্টার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিদারুল আলম সানী, হাইপারট্যাগ সলিউশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সফিউল আলম ও মধুমতিটেকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন বলে উল্লেখ করেছেন।

ফারুক লিখেছেন, ‘আমরা এই তথ্যটি নিয়ে সচিবালয় ত্যাগ করি। এছাড়াও ফরম বিক্রি ও জমা দেওয়ার বিষয় নিয়ে বেসিস সচিবালয়ের সচিব হাশিম সাহেবের সাথেও আমার বহুবার কথা হয়। আগের বিভিন্ন সময়ে হাশিম সাহেব থেকে প্রাপ্ত তথ্য ও বিকাল ৫টায় বের হয়ে যাওয়ার সময়ের সর্বশেষ তথ্যের সাথে হুবহু মিল আছে। কিন্তু সন্ধ্যা ৬টায় বেসিস সচিবালয় থেকে অ্যাসোসিয়েট ক্যাটাগরীতে ৬টি এবং জেনারেল ক্যাটাগরীতে ৩৪টি মনোনয়ন জমা হওয়ায় বিষয়টি জানায়।’

‘উপরোক্ত বিষয়ের আলোকে আমি সুনির্দিষ্টভাবে অভিযোগ করছি যে, অ্যাসোসিয়েট ক্যাটাগরীতে ৬ নম্বর মনোনয়ন ফরম নিয়ে যিনি প্রার্থী হয়েছেন তিনি বেসিসের সাবেক সভাপতি হিসাবে সম্পূর্ণভাবে অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে বেসিস সচিবালয়ের যোগসাজসে নির্দিষ্ট সময়ের পরে ফরম কিনেছেন ও জমা দিয়েছেন।’

সবশেষে দেলোয়ার হোসেন ফারুক লিখেছেন, ‘উপরোক্ত বিষয়াদি পর্যালোচনা করে সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে বিধি মোতাবেক ৬ নম্বর মনোনয়ন ফরমের প্রার্থী “আজকেরডিল”-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহিম মাশরুর’র মনোনয়নপত্র বাতিল করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।’

এ ব্যাপারে জানতে ফাহিম মাশরুরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি যুগান্তরকে বলেন, যথাযথ প্রক্রিয়া শেষ করে নির্দিষ্ট সময়ের আধাঘণ্টা আগেই মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : বেসিস নির্বাচন ২০১৮

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter