এনওসি বন্ধের প্রভাব: কর্মী কমাচ্ছে রবি

  এম. মিজানুর রহমান সোহেল ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

রবি আজিয়াটা লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়। ছবি: যুগান্তর
রবি আজিয়াটা লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়। ছবি: যুগান্তর

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড এয়ারটেলকে একীভূত করার তিন বছর পর কর্মী কমাতে ভিএসএস (স্বেচ্ছা পৃথকীকরণ স্কিম) ঘোষণা করেছে।

ভিএসএস স্কিমে কর্মীদের অবসরের যাওয়ার সময় পাওনা টাকার সঙ্গে অতিরিক্ত অর্থ প্রদানের জন্য কয়েকটি প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে।

ইতিমধ্যে কর্মী কমিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত রোববার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) অবহিত করেছে অপারেটরটি।

রবির ১৫৫০ জন কর্মী থেকে এই স্কিমের আওতায় কতজন বিদায় নেবেন সে বিষয়ে সরাসরি কোনো ধারনা দিতে পারেনি অপারেটরটি। তবে কর্মী সংখ্যা এক হাজারের নিচে কমিয়ে আনা হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

রবি বলছে, বিভিন্ন বিভাগে অবকাঠামোগত উন্নয়নের কাজ শেষ হওয়ার পর সেসব বিভাগে অনেকেই এখন বসে আছে।

এছাড়া রবির কাছে পাওনা ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকার ইস্যুতে এনওসি বন্ধ করে দেয়াতে নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণসহ ভেন্ডর সংশ্লিষ্ট অনেক কর্মীকেই কাজে লাগানো যাচ্ছে না।

অনুমোদন পাওয়ার আগ পর্যন্ত নতুন কিছু করারও সুযোগ নেই তাদের। ফলে দৃশ্যমান অনেক কার্যক্রমই বন্ধ রয়েছে অপারেটরটির। এমন ঘটনার প্রেক্ষিতে লোকবল কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রবি।

এর আগে ২০১৬ সালের ১৮ আগস্ট রবির সঙ্গে এয়ারটেল একীভূত হওয়ার সময় আদালতের নির্দেশে এয়ারটেলের মোট ৩৮৩ জন কর্মী থেকে স্বেচ্ছায় অবসর স্কিম (ভিআরএস) ও স্বেচ্ছা পৃথকীকরণ স্কিম (ভিএসএস) এর আওতায় ১২০ জন কর্মী বিদায় নেন।

তারও আগে রবিতে ট্রেড ইউনিয়ন গঠন কার্যক্রম শুরু হলে সমঝোতার ভিত্তিতে বেশ কিছু কর্মীকে বিদায় করে দেয় রবি।

সদ্য ঘোষিত স্বেচ্ছা পৃথকীকরণ স্কিম প্রসঙ্গে রবি আজিয়াটা লিমিটেডের চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম যুগান্তরকে বলেন, রবি তার কর্মীদের জন্য প্রথমবারের মতো ভলান্টারি সেপারেশন স্কিম (ভিএসএস) ঘোষণা করেছে। টেলিযোগাযোগ খাতে ভিএসএস একটি সাধারণ ঘটনা।

তিনি বলেন, এই সুবিধা নিতে কোনো কর্মীই বাধ্য নন। একজন কর্মী যখন স্বেচ্ছায় এই সুবিধা নিতে আগ্রহী হবেন শুধু তখনই এই সুবিধা তার জন্য প্রযোজ্য হবে।

ব্যয় ব্যবস্থাপনায় দক্ষতা অর্জন প্রতিযোগিতামূলক টেলিযোগাযোগ খাতে টিকে থাকার জন্য অত্যন্ত জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে। রবির ভিএসএস প্রদানের ঘোষণার মাধ্যমে বিষয়টি আবারও প্রমাণিত হল।

আর টেলিযোগাযোগ খাতে কর্মীদের ভিএসএস সুবিধা দেওয়াটা এরই মধ্যে প্রতিষ্ঠিত একটি প্রক্রিয়া বলে উল্লেখ করেন সাহেদ আলম।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×