বিস্ময়কর টিভি: স্যামসাং কিউএলইডি এইটকে

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

স্যামসাং কিউএলইডি এইটকে। ছবি: সংগৃহীত
স্যামসাং কিউএলইডি এইটকে। ছবি: সংগৃহীত

স্যামসাংয়ের প্রধান সদর দপ্তর দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে মনে হয় এখন উৎসবের আমেজ বইছে। এই আমেজ হয়তবা পাড়ি জমিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় অবস্থিত স্যামসাংয়ের কার্যালয়গুলোতেও। এর পেছনে নিশ্চয়ই বিশাল কোন ব্যাপার রয়েছে।

হ্যাঁ! বিষয়টি হচ্ছে প্রতিষ্ঠার পর স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্স চলতি বছর ৫০ বছরে পা দিয়েছে। শুধু তাই নয় ২০১৯ সালটি প্রযুক্তি দানবটির জন্য ঘটনাবহুল একটি বছর। এ বছর প্রতিষ্ঠানটি নিজেদের উদ্ভাবনী শক্তি দিয়ে বিশ্বকে চমকে দিয়েছে। স্যামসাং বাংলাদেশের জন্যও ২০১৯ সালটি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। কার্যক্রম শুরুর পর এ বছর প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে এক দশক পূর্ণ করেছে। এই দশ বছরের পথচলায় বৈচিত্র্যপূর্ণ ইলেক্ট্রনিক্স পণ্যের পসরা দিয়ে ক্রেতাদের হৃদয় জয় করেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় স্যামসাং প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের ক্রেতাদের জন্য দেশের বাজারে নিয়ে এসেছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন কিউএলইডি (কোয়ান্টাম ডট এলইডি) টিভি।

বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য স্যামসাংয়ের কিউএলইডি এইটকে টিভিকে অন্যান্য টিভির চেয়ে আলাদা করেছে। চলুন দেখে নেওয়া এর অনন্যসাধারণ বৈশিষ্ট্যগুলো-

এইটকে (৮কে) রেজ্যুলেশন

দর্শকদের টিভি দেখার অভিজ্ঞতা অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে টিভিটিতে রয়েছে এইটকে (৮কে) রেজ্যুলেশন প্রযুক্তি। এই টিভির মাধ্যমে দর্শকরা পাবেন কন্টেন্ট উপভোগের সম্পূর্ণ নতুন এবং বাস্তবিক অভিজ্ঞতা।

সর্বাধুনিক প্রযুক্তির এই টিভিটি লিভিং রুমে বড় স্ক্রিনে টিভি দেখার ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

টিভির প্রতি ফ্রেমে ৩৩ মিলিয়ন পিক্সেল থাকার কারণে এআই আপস্কেলিং প্রযুক্তির মাধ্যমে টিভিটি ফোরকে রেজ্যুলেশনের চেয়ে চারগুণ স্বচ্ছ ও পরিষ্কার ছবি দেখাতে সক্ষম।

টিভিটি প্রায় থ্রি-ডাইমেনশনাল ডেপথের অভিজ্ঞতা দিতে সক্ষম। এর ফলে দৃশ্যবস্তু কাছাকাছি চলে আসবে এবং ব্যাকগ্রাউন্ড নির্দিষ্ট দূরত্বে চলে যাবে। থ্রিডি গ্লাস ছাড়াই দর্শকরা তাদের প্রিয় কন্টেন্ট উপভোগ করতে পারবেন।

এআই কোয়ান্টাম প্রসেসর

টিভিটির কৃত্রিমবুদ্ধিমত্তাসমৃদ্ধ মস্তিষ্কটিই হচ্ছে কোয়ান্টাম প্রসেসর এইটকে। এটি সামগ্রিকভাবে এআই অভিজ্ঞতা প্রদান করে।

শতভাগ কালার ভলিয়্যুম

ডিজিটাল সিনেমা প্রদর্শনে ব্যবহৃত ডিসিআই-পিথ্রি কালার স্পেসে স্যামসাংয়ের কিউএলইডি টিভি শতভাগ কালার ভলিয়্যুম দিতে সক্ষম। অর্থাৎ টিভিতে প্রদর্শনরত বিষয়বস্তুর সবগুলো কালার সর্বোচ্চ পর্যায়ে দেখতে পাবেন দর্শকরা।

এছাড়াও কিউএলইডি এইটকে টিভির কিউ ৯০০ মডেলের টিভির প্রসেসর রিয়েল টাইমে প্রতিটি অডিও চ্যানেল বিশ্লেষণের মাধ্যমে নিখুঁত সাউন্ড প্রদান প্রদান করে।

অ্যাম্বিয়েন্ট মোড

স্যামসাংয়ের নতুন কিউএলইডি এইকে (৮কে) টিভি দর্শকদের লিভিং রুম ভিজ্যুয়াল এক্সপেরিয়েন্সের ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করবে। নতুন এই টিভিটিতে রয়েছে অ্যাম্বিয়েন্ট মোড। এই ফিচারটির মাধ্যমে দর্শকরা টিভির স্ক্রিনকে আর্টওয়ার্ক ও ছবির ডিসপ্লে হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন।

এইটকে (৮কে) এআই আপস্কেলিং

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন এই টিভিটি ফুলএইচডি কন্টেন্টকে এইটকে রেজ্যুলশনে নিয়ে যেতে পারবে।

ওয়ান রিমোট

স্যামসাং কিউএলইডি এইটকে টিভিতে বিভিন্ন কেবলগুলো টিভির সঙ্গে থাকা বিশেষ একটি বক্সে এসে যুক্ত হবে এবং সেই বক্স থেকে অদৃশ্যমান একটি তার টিভির সাথে সংযুক্ত হবে। এতে করে অতিরিক্ত কেবলের সমস্যা দূর হবে।

এই বক্সটিকে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে হাত, ভয়েস এবং ফোনের মাধ্যমে। মজার ব্যাপার হলো, এই বক্সটিকে ওয়ান রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে খুব সহজেই নিখুঁতভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

আলট্রা ভিউইং অ্যাঙ্গেল ও বিক্সবি ২.০ এআই ভয়েস কমান্ড

এই টিভিতে রয়েছে ইউনিক লাইটিং কন্ট্রোল প্রযুক্তি, যার ফলে যেকোনো কোণ থেকে টিভি দেখার অভিজ্ঞতা হবে একই রকম। বিক্সবি ২.০ এআই ভয়েস কমান্ডের কারণে ব্যবহারকারী টিভিকে মৌখিকভাবে নির্দিষ্ট নির্দেশনা দিতে পারবেন।

সর্বোপরি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন কিউএলইডি টিভি বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তির টেলিভিশন। দর্শকদের টিভি দেখার নতুন অভিজ্ঞতা দেবে স্যামসাং কিউএলইডি এইটকে টিভি।

তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে দর্শকরা তাদের বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে টিভিকেই বেশি প্রাধান্য দেয়। এইটকে রেজ্যুলেশনের টিভিটি দর্শকদের লিভিং রুম ভিজ্যুয়াল এক্সপেরিয়েন্স-এর ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×