লুনা শামসুদ্দোহার উকিল নোটিশ ও যুগান্তরের বক্তব্য

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৯ মার্চ ২০১৮, ১৬:২৮ | অনলাইন সংস্করণ

লুনা শামসুদ্দোহার উকিল নোটিশ ও যুগান্তরের বক্তব্য

গত ৯ মার্চ দৈনিক যুগান্তরের অনলাইন বিভাগ ‘লুনা শামসুদ্দোহা বিরাট ষড়যন্ত্র করতে বসেছেন’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করে। মূলত সমসাময়িক ইস্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচিত স্ট্যাটাসগুলো ‘সোশ্যাল মিডিয়া’ বিভাগে প্রকাশ করা হয়ে থাকে।

এ ক্ষেত্রে স্ট্যাটাসের বানান ভুল ছাড়া অন্য কোন কিছু পরিবর্তন ও পরিমার্জন করা হয় না। এছাড়া লেখা শেষে সংশ্লিষ্ট স্ট্যাটাসদাতার তথ্য প্রকাশ করা হয়ে থাকে।

হালের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) নির্বাহী কমিটির ২০১৮-২০ মেয়াদের নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে।

গত ৯ মার্চ বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাত সংশ্লিষ্ট ফিঙ্গারটিপস ইনোভেশন লিমিটেডের পরিচালক সুহৃদ তৌফিকুল করিমের লন্ডন থেকে দেয়া ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে একটি হুবহু সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

যুগান্তর অনলাইন ছাড়াও যুগোপযোগী বিষয় হওয়ার কারণে স্ট্যাটাসটি নিয়ে আরও কয়েকটি প্রিন্ট ও অনলাইন সংবাদ মাধ্যম প্রায় একই শিরোনামে সংবাদটি প্রকাশ করেছে।

এ সংবাদ প্রকাশের পর ১৫ মার্চ যুগান্তর বরাবর পাঠানো লুনা শামসুদ্দোহার আইনজীবী নাজমুস সালেহীন স্বাক্ষরিত এক উকিল নোটিশের মাধ্যমে বলা হয়েছে, যিনি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তাঁর লেখার কোথাও শিরোনামে দেয়া উক্তিটি নেই এবং অতিরিক্ত লেখাও নাকি সংযোজন করা হয়েছে।

অথচ এখনও শিরোনামে দেয়া অংশটুকু সুহৃদ তৌফিকুল করিমের ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিদ্যমান রয়েছে।

তিনি স্ট্যাটাসের প্রথম লাইনেই লিখেছেন, ‘বেসিস এর ভোটারদের জন্য কিছু কথা বলছি লুনা শামসুদ্দোহা এবং বেসিস নিয়ে! আমার মনে হচ্ছে উনি এক বিরাট ষড়যন্ত্র করতে বসেছেন বেসিস এবং বেসিস মেম্বারদের স্বার্থ ধ্বংস করতে।’

তৌফিকুল করিমের ফেসবুক স্ট্যাটাসের স্ক্রিনশট।

মূলত দীর্ঘ লাইনের লেখাটি সংক্ষিপ্ত করে শিরোনাম দেয়া হয়েছিল।

তাঁর স্ট্যাটাসটি দেখা যাবে https://www.facebook.com/Taufiqul.Karim.Suhrid/posts/10160066774070635 এই ঠিকানায়।

প্রসঙ্গত, এই সংবাদের কোন অংশে অতিরিক্ত একটি শব্দও যোগ করা হয়নি এবং লেখক স্বত্ত হিসেবে লেখার শেষাংশে এভাবে উল্লেখ করা হয়েছে- ‘[সুহৃদ তৌফিকুল করিমের (পরিচালক, ফিঙ্গারটিপস ইনোভেশন লিমিটেড) ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে]’।

ঘটনাপ্রবাহ : বেসিস নির্বাচন ২০১৮

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter