ঢাকায় উবার যাত্রীরা যে ২০টি জিনিস ভুলে রেখে যান

  যুগান্তর ডেস্ক    ২১ মার্চ ২০১৮, ১৮:২১ | অনলাইন সংস্করণ

ঢাকায় উবার যাত্রীরা যে ২০টি জিনিস ভুলে রেখে যান

বিশ্বের সর্ববৃহৎ অন-ডিম্যান্ড রাইডশেয়ারিং কোম্পানি উবার দ্বিতীয়বারের মতো প্রতিষ্ঠানটির লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড ইনডেক্স প্রকাশ করেছে। প্রায়শই ঢাকায় উবার যাত্রীরা গাড়িতে জিনিসপত্র ভুলে রেখে যান, যার কারণে এবছর বাংলাদেশও এই তালিকায় স্থান পেয়েছে।

তালিকায় এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের মধ্যে দেশ হিসেবে বাংলাদেশের অবস্থান ১১তম এবং নগর হিসেবে ঢাকার অবস্থান ৩৬তম।

প্রত্যেক সপ্তাহে হাজার হাজার মানুষ তাদের চাবি, চার্জার, মানিব্যাগসহ আরও বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র ভুলে গাড়িতে রেখে যান। যাত্রীরা প্রায়শই যেসব জিনিসপত্র ভুলে রেখে যান তার উপর ভিত্তি করেই উবার লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড ইনডেক্সটি তৈরি করা হয়েছে।

এছাড়াও এই তালিকার মাধ্যমে প্রকাশ পায় কোন শহরের মানুষের ভুলে যাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি এবং জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার প্রবণতা কোন দিন বেশি থাকে।

উবারের রিজিওনাল জেনারেল ম্যানেজার প্রোভজোৎ সিং বলেন, “জীবনে কখনো না কখনো আমাদের সবার সাথেই এমন হয়েছে যে আমরা আমাদের খুবই প্রয়োজনীয় বা প্রিয় জিনিসটি হারিয়ে ফেলেছি। সেই জিনিসটি যখন ফিরে পাওয়া যায় তখন খুশির সীমা থাকে না। এক ব্যাগ গলদা চিংড়ি ফেরত পাওয়ার পর ভোজনপ্রিয় কোনো যাত্রীর হয়তো ঠিক এমনটিই মনে হয়। এই বিশেষ তালিকাটির মাধ্যমে আমরা আমাদের যাত্রীদের জানাতে চাই যে তারা আমাদের অ্যাপটি ব্যবহার করেই তাদের হারিয়ে যাওয়া জিনিসটি ফেরত পেতে পারেন।”

লস্ট আইটেম ফেরত পাওয়ার একটি ভিডিও এবং নির্দেশিকা:

১। প্রথমে “মেন্যুতে” যান

২। “ইয়োর টিপস্‌” বাটনে চাপ দিন এবং যে ট্রিপে আপনার জিনিসটি হারিয়ে গেছে সেটি সিলেক্ট করুন

৩। “রিপোর্ট অ্যান ইস্যু” বাটনটি সিলেক্ট করুন

৪। “আই লস্ট অ্যান আইটেম” বাটনটি সিলেক্ট করুন

৫। “কন্ট্যাক্ট মাই ড্রাইভার অ্যাবাউট এ লস্ট আইটেম” অপশনটি সিলেক্ট করুন

৬। স্ক্রল করে নিচে নামুন এবং যে ফোন নাম্বারে আপনার সাথে যোগাযোগ করতে হবে সেটি লিখুন।

৭। যদি নিজের মোবাইল হারিয়ে যায় তাহলে কাছের কোনো মানুষের ফোন নাম্বার ব্যবহার করুন।

৮। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনাকে কল করা হবে এবং সরাসরি চালকের সাথে সংযোগ করিয়ে দেওয়া হবে।

৯। যদি চালক ফোন ধরেন এবং নিশ্চিত করেন যে তার কাছে জিনিসটি আছে তাহলে তার সাথে যোগাযোগ করে নিজের জিনিসটি নিয়ে নিন।

১০। যদি চালকের সাথে যোগাযোগ করতে না পারেন তাহলে অ্যাপের “ইন অ্যাপ সাপোর্ট” অপশনটি সিলেক্ট করুন এবং রিপোর্ট করুন। উবারের সাপোর্ট টিম আপনাকে সাহায্য করবে।

মার্কারি রেট্রোগ্রেড (বুধ গ্রহের পশ্চাৎমুখী ঘূর্ণন) হওয়ার কারণে অনেকেই বিশ্বাস করেন যে, বছরের এই সময়ে মানুষের ভুলে যাওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। এই সময়েই উবার তাদের দ্বিতীয় লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড ইনডেক্স প্রকাশ করছে।

দেখা গেছে, এই দিনে, বিশেষ করে দুপুর ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ঢাকার উবার যাত্রীদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। এছাড়া সোমবার এবং শনিবার যাত্রীদের জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার পরিমাণও অনেক বেশি।

বেশির ভাগ সময় ঢাকায় উবার যাত্রীরা যে ১০টি জিনিস ভুলে রেখে যায়

১। মোবাইল ফোন

২। ব্যাগ

৩। মানিব্যাগ

৪। আইডি/লাইসেন্স/পাসপোর্ট

৫। চশমা

৬। কাপড়

৭। ছাতা

৮। চাবি/কী কার্ড/তালা

৯। টাকা

১০। বোতল

ঢাকায় উবার যাত্রিদের ভুলে রেখে যাওয়া ১০টি অনন্য জিনিসপত্র

১১। গলদা চিংড়ি

১২। ২টি ব্যাডমিন্টন র‍্যাকেট

১৩। বিড়ালের হার্নেস

১৪। টাই এবং পকেট স্কয়ারে ভর্তি একটি উপহার বাক্স

১৫। সোনার চেইন

১৬। মোবাইলের চার্জার

১৭। ঔষধ ও প্রেসক্রিপশন

১৮। সিগার

১৯। এক ক্যান স্টারবাক্স কফির

২০। লোশনের বোতল

যেসব দিনগুলিতে মানুষ সাধারণত জিনিসপত্র ভুলে রেখে যায়

১। শনিবার

২। সোমবার

দিনের যে সময়ে জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার পরিমাণ সবচেয়ে বেশি সাধারণত, দুপুর ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ঢাকার উবার যাত্রীদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার পরিমাণ সবচেয়ে বেশি।

২০১৭ সালের যে দিনগুলিতে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ জিনিস ভুলে রেখে যাওয়া হয়েছে

১৪ অক্টোবর, ২০১৭

৩০ ডিসেম্বর, ২০১৭

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter