১০ জুলাই শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট
jugantor
১০ জুলাই শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট

  আইটি ডেস্ক  

২৯ জুন ২০২০, ১৫:৪৫:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

‘আজকের উদ্ভাবন ,আগামীর সম্ভাবনা’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দেশে চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট-২০২০।

বর্তমান বৈশ্বিক মহামারী করোনার পরিপ্রেক্ষিতে এবারের বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট পুরোপুরি ভার্চুয়ালভাবে করার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম। জুলাই ১০ এবং ১১ তারিখে এবারের ভার্চুয়াল সামিটে প্রায় বিশ সহস্রাধিকের ওপর অংশগ্রহণকারী অংশ নিবেন বলে আশা করছে আয়োজকরা।

আয়োজনকে মূলত দুইভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটি ভাগে থাকছে বিজনেস সামিট এবং আরেকটি ভাগে থাকছে আইটি প্রফেশনালস মিট-আপ। এবারের আয়োজনে দুদিনে প্রায় ৩০ জনের অধিক দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বক্তা কথা বলবেন। এবার বক্তারা মূলত বর্তমান পরিস্থিতির আলোকে এই সময়ের প্রয়োজনীয় নানান পদক্ষেপ এবং আগামীর কর্মপরিকল্পনা কেমন হতে পারে তা নিয়ে কথা বলবেন।

প্রতিটি সেশন এমনভাবে সাজানো হচ্ছে যাতে একজন অংশগ্রহণকারী এবারের সম্মেলন থেকে নানান প্রয়োজনীয় বিষয় যেমন স্কিল ডেভেলপমেন্ট, চাকরির বাজারে নিজেকে প্রস্তুতকরণ, বাংলাদেশে উদ্যোগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সম্ভাবনা, গেইম ডেভেলপমেন্ট ,অনলাইন মাধ্যমের দ্বারা ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড এমন প্রয়োজনীয় নানান বিষয়ে সম্যক ধারণা পেতে পারেন।

এছাড়াও বক্তারা আইওটি, ডাটা সায়েন্স, প্রোগ্রামিং, থিম ডেভেলপমেন্ট, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, ডিজিটাল মার্কেটিং সহ লোকাল এবং আন্তর্জাতিক বাজারে আইটি প্রফেশনালসদের চাকরির বাজার ও চাকরিতে সফল হওয়ার বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলবেন বলেও জানা গিয়েছে। দুদিনই সম্মেলনটি প্রতিদিন দুপুর তিনটা থেকে শুরু হয়ে রাত ১১ টা পর্যন্ত চলবে।

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, তরুণ প্রজন্মের চাকরি কিংবা ব্যবসায় সফলতা আনার জন্য প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিতে আমরা প্রতিবছর বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিটের আয়োজন করে থাকি। আমরা খেয়াল করে দেখছি যে বর্তমানে এই কঠিন পরিস্থিতিতে অনেকেই হতাশ হয়ে পড়ছেন, নিজেদের কর্মপরিকল্পনা ঠিক করতে পারছেন না। আমি আশা করি এই সম্মেলন থেকে অংশগ্রহণকারীরা এই অবস্থায় নিজের মনোবল কিভাবে দৃঢ় রেখে আগামীর জন্য তৈরি হবে তার একটি দিক নির্দেশনা পাবে। সবার কথা বিবেচনায় রেখে এবারের সম্মেলন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করার উদ্যোগ নিয়েছি আমরা।

এবারের সামিটে কো-পার্টনার হিসাবে থাকছে উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম “নিজের বলার মতো একটি গল্প”। সহযোগী হিসেবে থাকছে ওমেন এন্ড ই-কমার্স, প্রাইডসিস ইআরপি, ক্রিয়েটিভ আইটি, রাইজআপ ল্যাবস, বেবিলন রিসোর্সেস।

লাইভ স্ট্রিমিং পার্টনার হিসেবে থাকছে লাইভ টু ওয়েব। বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিটে অংশগ্রহণের জন্য বিস্তারিত জানা যাবে https://bif.org.bd/ এই ঠিকানা থেকে।

১০ জুলাই শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট

 আইটি ডেস্ক 
২৯ জুন ২০২০, ০৩:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

‘আজকের উদ্ভাবন ,আগামীর সম্ভাবনা’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দেশে চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট-২০২০। 

বর্তমান বৈশ্বিক মহামারী করোনার পরিপ্রেক্ষিতে এবারের বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট পুরোপুরি ভার্চুয়ালভাবে করার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম। জুলাই ১০ এবং ১১ তারিখে এবারের ভার্চুয়াল সামিটে প্রায় বিশ সহস্রাধিকের ওপর অংশগ্রহণকারী অংশ নিবেন বলে আশা করছে আয়োজকরা। 

আয়োজনকে মূলত দুইভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটি ভাগে থাকছে বিজনেস সামিট এবং আরেকটি ভাগে থাকছে আইটি প্রফেশনালস মিট-আপ। এবারের আয়োজনে দুদিনে প্রায় ৩০ জনের অধিক দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বক্তা কথা বলবেন। এবার বক্তারা মূলত বর্তমান পরিস্থিতির আলোকে এই সময়ের প্রয়োজনীয় নানান পদক্ষেপ এবং আগামীর কর্মপরিকল্পনা কেমন হতে পারে তা নিয়ে কথা বলবেন। 

প্রতিটি সেশন এমনভাবে সাজানো হচ্ছে যাতে একজন অংশগ্রহণকারী এবারের সম্মেলন থেকে নানান প্রয়োজনীয় বিষয় যেমন স্কিল ডেভেলপমেন্ট, চাকরির বাজারে নিজেকে প্রস্তুতকরণ, বাংলাদেশে উদ্যোগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সম্ভাবনা, গেইম ডেভেলপমেন্ট ,অনলাইন মাধ্যমের দ্বারা ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড এমন প্রয়োজনীয় নানান বিষয়ে সম্যক ধারণা পেতে পারেন। 

এছাড়াও বক্তারা আইওটি, ডাটা সায়েন্স, প্রোগ্রামিং, থিম ডেভেলপমেন্ট, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, ডিজিটাল মার্কেটিং সহ লোকাল এবং আন্তর্জাতিক বাজারে আইটি প্রফেশনালসদের চাকরির বাজার ও চাকরিতে সফল হওয়ার বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলবেন বলেও জানা গিয়েছে। দুদিনই সম্মেলনটি প্রতিদিন দুপুর তিনটা থেকে শুরু হয়ে রাত ১১ টা পর্যন্ত চলবে। 

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, তরুণ প্রজন্মের চাকরি কিংবা ব্যবসায় সফলতা আনার জন্য প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিতে আমরা প্রতিবছর বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিটের আয়োজন করে থাকি। আমরা খেয়াল করে দেখছি যে বর্তমানে এই কঠিন পরিস্থিতিতে অনেকেই হতাশ হয়ে পড়ছেন, নিজেদের কর্মপরিকল্পনা ঠিক করতে পারছেন না। আমি আশা করি এই সম্মেলন থেকে অংশগ্রহণকারীরা এই অবস্থায় নিজের মনোবল কিভাবে দৃঢ় রেখে আগামীর জন্য তৈরি হবে তার একটি দিক নির্দেশনা পাবে। সবার কথা বিবেচনায় রেখে এবারের সম্মেলন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করার উদ্যোগ নিয়েছি আমরা।

এবারের সামিটে কো-পার্টনার হিসাবে থাকছে উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম “নিজের বলার মতো একটি গল্প”। সহযোগী হিসেবে থাকছে ওমেন এন্ড ই-কমার্স, প্রাইডসিস ইআরপি, ক্রিয়েটিভ আইটি, রাইজআপ ল্যাবস, বেবিলন রিসোর্সেস। 

লাইভ স্ট্রিমিং পার্টনার হিসেবে থাকছে লাইভ টু ওয়েব। বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিটে অংশগ্রহণের জন্য বিস্তারিত জানা যাবে https://bif.org.bd/ এই ঠিকানা থেকে।